ময়মনসিংহে কলেজছাত্রকে ছুরিকাঘাতে হত্যা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আগুন

আগের সংবাদ

সাজেদা চৌধুরী : নারী রাজনীতির অগ্রপথিক

পরের সংবাদ

কোরিয়ান বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করলো ‘কৃত্রিম সূর্য’

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২২ , ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২২ , ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ

দক্ষিণ কোরিয়ার পদার্থবিদরা নতুন এক আবিষ্কার করে তাক লাগিয়ে দিয়েছে বিশ্বকে। পরিবেশবান্ধব বা নিরাপদ পারমাণবিক শক্তির একটি কৃত্রিম উৎস আবিষ্কার করেছেন কোরিয়ান বিজ্ঞানীরা।

শক্তিশালী পারমাণবিক বিক্রিয়া ঘটিয়ে যা তারা আবিষ্কার করেছেন তা সূর্যের চেয়ে সাত গুণ বেশি তাপ উৎপন্ন করতে সক্ষম।

বিশ্বজুড়ে পরিবেশবান্ধব জ্বালানির তীব্র সংকটের মুখে তাদের এ আবিষ্কারকে তাৎপর্যপূর্ণ হিসেবে মনে করা হচ্ছে। এটাকে অনেকে ‘কৃত্রিম সূর্য’ আবিষ্কার হিসেবেই দেখছেন। খবর নিউইয়র্ক পোস্টের।

দক্ষিণ কোরিয়ার সিউল ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ও কোরিয়া ইনস্টিটিউট অব ফিউশন এনার্জির বিজ্ঞানীদের তথ্যমতে, কোরিয়া সুপারকন্ডাক্টিং তোকামাক অ্যাডভান্সড রিসার্চ (কেএসটিএআর) নামে একটি পারমাণবিক চুল্লি (রিঅ্যাক্টর) ৩০ সেকেন্ড সময়ের মধ্যে ১০ কোটি ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি তাপমাত্রায় পৌঁছায়। এটা মাইলফলক, যা প্রথমবারের মতো এমন ঘটনা ঘটেছে।

কেএসটিএআর পারমাণবিক চুল্লি উত্তপ্ত হয়ে অত্যধিক তাপমাত্রা সৃষ্টির ঘটনার একটি ভিডিও গত শুক্রবার ইউটিউবে শেয়ার করা হয়। ‘সায়েন্স অ্যালার্ট’ নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে এটি আপলোড করা হয়েছে।

ভিডিওটির ক্যাপশনে বলা হয়েছে, কেএসটিএআর চুল্লিটি ২৪ সেকেন্ডের মধ্যে এই আয়ন তাপমাত্রা সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে। চ্যানেলের তথ্যে আরও বলা হয়েছে, কোরিয়ার কেএসটিএআর চুল্লিটি ২০ সেকেন্ডের বেশি সময় ধরে ১০ কোটি ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার প্লাজমা ধরে রেখেছে। প্লাজমা হলো অতি উচ্চ তাপমাত্রায় আয়নিত গ্যাস। গবেষকেরা শব্দের মধ্য দিয়ে এ প্লাজমাকে শনাক্ত করতে পারেন।

নিউইয়র্ক পোস্টের এই প্রতিবেদনে বলা হয়, আসল সূর্যের কেন্দ্রের তাপমাত্রা দেড় কোটি ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত হতে পারে। নিউক্লিয়ার বিক্রিয়ার মাধ্যমে তাপ উৎপাদনের মতোই তাপমাত্রা পেতে এর প্রক্রিয়াকে কৃত্রিমভাবে প্রয়োগের চেষ্টা করছেন। এ বছরের শেষ নাগাদ ১০ কোটি ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ৫০ সেকেন্ড ধরে রাখতে চান বিজ্ঞানীরা।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ২০২৬ সাল নাগাদ তাঁদের লক্ষ্য হচ্ছে কৃত্রিম সূর্যের তাপমাত্রা ৩০০ সেকেন্ড বা ৫ মিনিট পর্যন্ত ধরে রাখা। ধীরে ধীরে তা বাড়ানো, যাতে করে পরিবেশবান্ধব শক্তি পাওয়া যেতে পারে। এতে করে জ্বালানিসংকটও দূর করা সম্ভব হবে বলে বিজ্ঞানীরা তাদের গবেষণায় জানিয়েছেন।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়