বাংলা গানের মাঝেই বেঁচে থাকবেন গাজী মাজহারুল আনোয়ার

আগের সংবাদ

গয়েশ্বরের বাসার গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

পরের সংবাদ

কুলাউড়ায় দেড় শতাধিক পান গাছ কাটল দুষ্কৃতকারীরা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১২, ২০২২ , ১০:০৩ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ১২, ২০২২ , ১০:০৩ অপরাহ্ণ

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার কর্মধা ইউনিয়নের মুরইছড়া খাসিয়া পুঞ্জির জুমে অন্তত দেড়শ’র বেশি পান গাছ কেটে ফেলেছে দুষ্কৃতকারীরা। এতে উদ্বিগ্ন ও আতঙ্কের মাঝে রয়েছেন খাসিয়া সম্প্রদায়ের লোকজন। তারা পানজুমে যেকোনো সময় ফের হামলার আশঙ্কা করছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে পান গাছগুলো কাটা হয়েছে। রবিবার বিকেলে জুমে ডিউটিরত অবস্থায় পুঞ্জির কয়েকজন যুবক বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে মুরইছড়া পুঞ্জির মান্ত্রী ফ্লোরা বাবলী তালাংকে অবহিত করেন।

ক্ষতিগ্রস্থ জুমের মিথিল্ডা তালাং (৫১), মিন তালাং (৬০) এবং নেরিশ তালাং (৫৩) জানান, মুরইছড়া পুঞ্জির পান জুম থেকে তাদের অন্তত ১৫০টিরও বেশি পান গাছ দুষ্কৃতকারীরা কেটে ফেলেছে। তারা বলেন, কে বা কারা এটা করেছে তা আমরা জানি না। আমরা নিরীহ মানুষ। আমরা পান চাষ করেই সংসার চালাই। এটাই আমাদের একমাত্র জীবিকা। চার বছর পানজুমে পরিচর্যার পর একটু ভালো উৎপাদন হয়েছিল কিন্তু দুষ্কৃতকারীরা সব স্বপ্ন এক নিমিষেই শেষ করে দিল। এসব গাছ কোনো কাজে আসবেনা। এখন আমাদের পথে বসার উপক্রম।

মুরইছড়া পুঞ্জির বাসিন্দা ও মানবাধিকার কর্মী হীরামন তালাং মুঠোফোনে বলেন, কেনো খাসি আদিবাসীদের জীবিকার ওপর বারবার হামলা হচ্ছে জানিনা। এখানে পান গাছের দোষই বা কি? এই কাজটি কারা করেছে পানজুম মালিকদের জানা নেই। তবে দুষ্কৃতকারীরা খাসিয়াদের নিশ্চিহ্ন করতেই সহজ কৌশল হিসেবে বারবার পান গাছ কেটে দেয়। খাসিয়ারা রবিবারে পান জুমে কাজ করে না জেনেই দুষ্কৃতকারীরা শনিবার রাতে মুরইছড়ার জুমে প্রবেশ করে পানগাছ কেটে দেয়। তিনি দুষ্কৃতকারীদের বিচার দাবী করেন।

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুছ ছালেক বলেন, মুরইছড়া পুঞ্জির জুমে পান গাছ কাটার খবর পেয়েছি। সরেজমিনে পরিদর্শন করে তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এনজে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়