করোনায় আরও ১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২১৪

আগের সংবাদ

কুমিল্লায় ত্রিমুখী সংঘর্ষে আহত ২০

পরের সংবাদ

ঢাকা জেলা পরিষদ নির্বাচনে আলোচনায় যারা

প্রকাশিত: আগস্ট ৩১, ২০২২ , ৪:৫২ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৩১, ২০২২ , ৪:৫৭ অপরাহ্ণ

নির্বাচন কমিশন (ইসি) জেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর চেয়ারম্যান ও সদস্য পদে আগ্রহীরা দৌঁড়ঝাপ শুরু করেছেন। তিন পার্বত্য জেলা বাদে ৬১টি জেলা পরিষদের নির্বাচন আগামী ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা জেলায় চেয়ারম্যান পদে একাধিক আগ্রহীর নাম শোনা যাচ্ছে। পুরুষ ও নারী সদস্য পদে আগ্রহী প্রায় দুইডজন। তারা ভোটার জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয়, জেলা ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দের কাছে তদবির করছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে প্রচারণা।

ঢাকা জেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, জেলা পরিষদের বর্তমান প্রশাসক বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহাবুবুর রহমান, দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন, আওয়ামী লীগ জাতীয় কমিটির সদস্য আব্দুল বাতেন মিয়ার নাম শোনা গেছে। একাধিক গোয়েন্দা সংস্থার কাছেও তাদের নাম ও জীবন বৃত্তান্ত রয়েছে। আওয়ামী লীগের সমর্থন লাভের জন্য তারা দলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের কাছে ধর্না দিচ্ছেন। যোগাযোগ রাখছেন গণভবন ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়েও।

এদিকে ধামরাই উপেজলার পাঁচজন নারী নেত্রী জেলা পরিষদে সংরক্ষিত নারী সদস্য হতে প্রচারণায় আছেন। সাভার থেকেও একই পদে আগ্রহী তিন নারীর নাম শোনা যাচ্ছে। পুরুষ সদস্য পদে সাভার থেকে একাধিক আগ্রহী রয়েছে বলে জানা গেছে। আবার জেলা পরিষদে চেয়ারম্যান হতে মহিলা আওয়ামী লীগের একজন কেন্দ্রীয় নেত্রী চেষ্টা-তদবির করছেন বলে তার ঘনিষ্টরা দাবি করছেন।

প্রসঙ্গত, জেলা পরিষদ নির্বাচন আইনানুযায়ী, সংশ্লিষ্ট জেলার অধীনে যতগুলো স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান রয়েছে, সেগুলোর সদস্যরাই জেলা পরিষদ সদস্যদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করতেন। অর্থাৎ সিটি করপোরেশন, উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেয়র এবং কাউন্সিলররা বা সদস্যরা ভোট দিয়ে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ১৫ জন সদস্য ও পাঁচজন সংরক্ষিত সদস্য নির্বাচিত করতেন। কিন্তু সংশোধিত আইনে জেলা পরিষদের সদস্য সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে সংশ্লিষ্ট জেলার উপজেলার সংখ্যার সমান। আর নারী সদস্য সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে সংশ্লিষ্ট জেলার উপজেলা চেয়ারম্যানদের মোট সংখ্যার এক-তৃতীয়াংশ। অর্থাৎ একেক জেলা পরিষদের সদস্যের সংখ্যা হবে একেক রকম, সংশোধনের আগে যেটা ২১ জন নির্দিষ্ট করে দেয়া ছিল। সেই হিসাবে ঢাকা পরিষদে চেয়ারম্যান ছাড়া ৫ জন পুরুষ সদস্য এবং দুইজন নারী সদস্য নির্বাচিত হবেন। সাভার, ধামরাই, কেরানীগঞ্জ, নবাবগঞ্জ ও দোহার উপজেলার অন্তর্গত সকল জনপ্রতিনিধি এবং ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের জনপ্রতিনিধিরা চেয়ারম্যান ও সদস্য নির্বাচন করবেন।

তফসিল অনুযায়ী-মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ১৫ সেপ্টেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই ১৮ সেপ্টেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরের সময় ১৯ থেকে ২১ সেপ্টেম্বর, আপিল নিষ্পত্তি ২২ থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ সেপ্টেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ ২৬ সেপ্টেম্বর। ভোটগ্রহণ ১৭ অক্টোবর।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়