সাম্প্রদায়িক শক্তিকে প্রতিরোধ করতে হবে: কাদের

আগের সংবাদ

জন্মের আগে থেকেই বিতর্ক, এক বছরে নুসরাতপুত্র

পরের সংবাদ

এ কাজটি করলে বাড়বে না ভুঁড়ির মেদ

প্রকাশিত: আগস্ট ২৭, ২০২২ , ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ২৭, ২০২২ , ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ

দুর্গাপুজোকে ডেডলাইন ধরে অনেকেই ওজন ঝরানোয় মন দিতে শুরু করে দিয়েছেন। জোরদারভাবে চলছে জিম সেশন। ব্যায়াম কসরতের পাশাপাশি শুরু হয়ে গিয়েছে ডায়েটে মেপে খাওয়া দাওয়া। তবে জানেন কি পানি খেয়েও রোগা হওয়া যায়! তবে, যেমন তেমনভাবে পানি পান করে কিন্তু মিলবে না ফল! দেখে নিন কিছু টোটকা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ঈষদুষ্ণ গরম পানি আপনার শরীরে শুধু বাড়তি মেদ কমাবেই না, সঙ্গে শরীরের আরও নানান ধরনের সমস্যা থেকে দেবে মুক্তি। ভুঁড়ির আকার যদি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে থাকে, কিম্বা হজমের গণ্ডগোল সহ নানান রোগ জ্বালা আপনাকে ছেঁকে ধরে, তাহলে সকালে উঠে ঈষদুষ্ণ পানি পান করুন। দেখে নিন এর উপকারিতা।

হজম-

হজম শক্তি ভাল হতে শরীর শুধু ফিটই থাকে না, সঙ্গে ত্বকে একটি আলাদা জেল্লা আসে। রক্ত সঞ্চালনকে সঠিক রেখে হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে গরম পানি। ফলে খাওয়ার পর ঈষদুষ্ণ পানি পান করলে তা কাজে দেবে।

What you should know about drinking water (but probably don't)

ওজন ঝরাতে-

খালিপেটে সকালে উঠে যদি ঈষদুষ্ণ পানি খেতে পারেন তাহলে মেদ কমতে বাধ্য। এটি অন্ত্রের সংকোচন রোধ করে। এছাড়াও সকালে শরীরের ভিতরের যে তাপমাত্রা থাকে তার সঙ্গে ভারসাম্য রাখতেই সকালে উঠে খালি পেটে গরম পানি উপকারি।

ওজন কমানোর সহজ টোটকা-

রাতে শোবার কিছু ঘণ্টা আগেও যদি হালকা গরম পানি পান করতে পারেন, তাহলে তা খুবই কার্যকরী ফল দেবে। এমনকি খাবার ৩০ মিনিট আগেও অল্প তাপমাত্রার গরম পানি পান করতে পারেন। এতে মিলবে ফল।

সর্দি কাশি-

শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে ঈষদুষ্ণ পানি খুবই উপকারি। এই পানি পান করলে দ্রুত ফ্যাট যেমন কমে, তেমনই কাশির সমস্যা থাকলে সকালে উঠেই ঈষদুষ্ণ পানি পান করলে বিভিন্ন সমস্যা কেটে যেতে পারে।

দাঁতের শিরশিরানিতে-

অনেক সময় ঠাণ্ডা কিম্বা মিষ্টি কিছু খেলে দাঁতে একটা শিরশিরানি থেকে যায়। তখন দারুন কাজ দেয় এই ঈষদুষ্ণ পানি। এতে দাঁতে লেগে থাকা জীবাণু পরিষ্কার হয়, ব্যথা কম হয়। কেটে যায় অস্বস্তি। সুত্র : হিন্দুস্থান টাইমস।

টিআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়