বাফেদা-এবিবির সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈঠক রবিবার

আগের সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর উপহৃত বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি নিদর্শন জাদুঘরে হস্তান্তর

পরের সংবাদ

মহিলা সমিতিতে ‘আওরঙ্গজেব’

প্রকাশিত: আগস্ট ১৩, ২০২২ , ৮:৪৯ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ১৩, ২০২২ , ৮:৫০ অপরাহ্ণ

নাটকসরণীখ্যাত বেইলি রোডের মহিলা সমিতির নীলিমা ইব্রাহিম মিলনায়তনে মঞ্চায়ন হলো নাটকের দল প্রাঙ্গণেমোর প্রযোজিত নাটক ‘আওরঙ্গজেব’।
গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় মঞ্চায়ন হয় নাটকটি।

মোহিত চট্টোপাধ্যায় রচিত এই নাটকটির নির্দেশনায় ছিলেন অনন্ত হিরা।

তৈমুরলঙ্গ আর চেঙ্গিস খাঁ ভারতবর্ষে মুঘল সাম্রাজ্যের পত্তন করেছিল। যার তলোয়ার যত দীর্ঘ, যত ধারালো, যত সফল মসনদে তার ততই দখল এটাই ছিল তৈমুর বংশের প্রথা। ভাই কামরান, আশকরী ও হিন্দালের বিরুদ্ধে লড়াই করে মসনদ দখল করেছিল সম্রাট হুমায়ুন। মির্জা মুহম্মদ হাকিমের বিরুদ্ধে মসনদের জন্য ভাইয়ের বুকে অস্ত্র ধরেছিলো আকবর। বাদশা জাহাঙ্গীর নিজের পিতার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেছিলো। আপন ভাই খসরু শাহরিয়ারের রক্তপাত ঘটিয়ে মসনদ দখল করেছিলো শাহজাহান। কিন্তু সেই শাহজাহানই শেষ বয়সে নিজ পুত্র আওরঙ্গজেবের হাতে বন্দি জীবন কাটান। আওরঙ্গজেব একজন ধর্মপ্রাণ সুন্নি মুসলমান হয়েও নিজ পিতাকে বন্দি করে মসনদ দখল করেন এবং মসনদের অন্য দাবীদার আপন ভাই দারা, মুরাদ আর সুজাকে হত্যা করেন। মৃত্যুর পূর্বে নব্বই বছর বয়সে বৃদ্ধ আওরঙ্গজেবের উপলদ্ধি হয়েছিল, পবিত্র কুরআন বুকে নিয়েও কেউ যদি হৃদয়হীন হয় তাহলে তার ক্ষমা নেই, কারণ আল্লাহ্ এবং পবিত্র কোরআন কাউকে জল্লাদ হতে নিষেধ করেছেন। যুগে যুগে দেশে দেশে রাষ্ট্র ক্ষমতা দখলের রাজনীতিতে ধর্মের ব্যবহার, ধর্মের নামে নির্মমতা, নিষ্ঠুরতা বা যে কোনো অমানবিক অন্যায়ের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ ইত্যাদি বিষয়গুলো নিয়েই এগিয়ে যায় নাটকের কাহিনী।

বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন – নুনা আফরোজ, অনন্ত হিরা, রামিজ রাজু, ইউসুফ পলাশ, মাইনুল তাওহীদ, সরোয়ার আলম সৈকত, শুভেচ্ছা, রিগ্যান প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়