দৈনিক মজুরি ৩০০ টাকার দাবিতে ২৪১ চা বাগানে কর্মবিরতি

আগের সংবাদ

করোনায় আরও একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৩৯

পরের সংবাদ

বাউল ও ট্রুবাডোর সঙ্গীত নিয়ে এডিনবারা ফ্রিঞ্জ ফ্যাস্টিভালে যোগ দিচ্ছে সৌধ

প্রকাশিত: আগস্ট ৯, ২০২২ , ৪:৪১ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৯, ২০২২ , ৪:৪৩ অপরাহ্ণ

পৃথিবীর বৃহত্তম শিল্প-উৎসব এডিনবারা ফ্রিঞ্জে এবছর দ্বিতীয়বারের মত যোগ দিতে যাচ্ছে বৃটেনে দক্ষিণ এশীয় ধ্রুপদী শিল্পের শীর্ষ সংস্থা সৌধ সোসাইটি অব পোয়েট্রি এন্ড ইন্ডিয়ান মিউজিক। বাংলা বাউল ও বৈষ্ণব গানের সঙ্গে ইউরোপীয় দ্বাদশ ও ত্রয়োদশ শতকের বিশেষ সঙ্গীত – ট্রুবাডোরের এক মৌলিক এবং স্বতস্ফুর্ত মিশেল দিয়ে রচিত হয়েছে এই পরিবেশনার প্রধান ভিত।

“বাউল, ট্রুবাডোর এন্ড ভার্সেস অন লাভ, লাস্ট এন্ড ফ্লেম’ শিরোনামে এই অনুষ্ঠানে শরীরী প্রণয় ও পূজো নিয়ে রচিত বাউল, বৈষ্ণব ও ট্রুবাডোর গানের পাশাপাশি পঠিত হবে মধ্যযুগের অন্যতম প্রধান কবি বিদ্যাপতি, কবি মোহিতলাল মজুমদার, পারস্যের কবি হাফিজ, রুমী, ফরাসী কবি বোদেলেয়ার এবং গ্রীক কবি কাভাফির কবিতা। এই বিশেষ পরিবেশনা নঞ্চায়িত হবে এডিনবারার ইউক্রেনিয়ান সেন্টার হিসাবে পরিচিত একুইস্টিক মিউজিক সেন্টারে, ১৭ আগস্ট বুধবার সন্ধ্যা সাতটায়।

এই বিশেষ আয়োজনের পরিচালক ও সৌধের প্রতিষ্ঠাতা টি এম আহমেদ কায়সার জানান, বিশ্বের দুই প্রাচীন সঙ্গীতের এক অপূর্ব অভিসার দিয়ে আমরা প্রকারান্তরে এই দুই সঙ্গীতকেই নতুনভাবে এবং আরো নিবিড়ভাবে অবলোকন, এদের নতুন ব্যাখ্যা নির্মাণের প্রয়াস চালিয়েছি। দুই ভিন্ন সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য থেকে উৎসারিত হলেও এই দুই ধারার সঙ্গীতের রস, আবেগ এবং আভ্যন্তরীন শৃংখলার মাঝে রয়েছে এক আশ্চর্য অন্বয়। তার সঙ্গে শরীরী প্রণয় ও মোহ নিয়ে বিশ্বের কিছু মহান কবিদের অসামান্য পংক্তিমালা গানের অন্তর্নিহিত আবহকে আরো বিপুল অর্থপূর্ণ করে তুলবে বলে মনে করি। এর সঙ্গে থাকছে সুফি-নৃত্য, যাতে বাউল গানের ভাব-সৌন্দর্য আরো তাৎপর্যপূর্ণ, আরো মূর্ত হয়ে ধরা দেবে।

সৌধের এই অভিনব পরিবেশনায় থাকছেন শুবার্ট-শিল্পী এরিক শিলান্ডার, কবি টি এম আহমেদ কায়সার, আবৃত্তিশিল্পী পপি শাজনাজ মানস চৌধুরি, কবি শ্রী গাঙ্গুলী, লোকনৃত্যশিল্পী সোহেল আহমেদ প্রমুখ।

এবছর পালিত হচ্ছে এডিনবারা ফ্রিঞ্জ ফ্যাস্টিভালের পঁচাত্তরতম আয়োজন। ৫ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া বিশ্বের এই সর্ববৃহৎ শিল্প-উৎসবে বিশ্বের ৫৮টি দেশের ৪৯,৮২৭ জন শিল্পী যোগ দিচ্ছেন ৩,১৭১ এরও বেশী অনুষ্ঠানমালায়। উৎসব চলবে ২৯শে আগস্ট পর্যন্ত একটানা।

টিআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়