১০০ রানেই শেষ ইন্ডিজ, ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ ভারতের

আগের সংবাদ

ইউক্রেনের পরমাণু কেন্দ্রে হামলা

পরের সংবাদ

জাহ্নবীকে কী বলে সাবধান করেছিলেন শ্রীদেবী

প্রকাশিত: আগস্ট ৮, ২০২২ , ১০:০১ পূর্বাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৮, ২০২২ , ১০:০১ পূর্বাহ্ণ

মেয়ে উন্নতি করছে। মা যদি দেখে যেতেন, এখনও কি শ্রীদেবীর দুশ্চিন্তা থাকত জাহ্নবীকে নিয়ে? সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে মায়ের বলা কথাগুলিই ভাগ করে নিলেন বলিউড নায়িকা জাহ্নবী কপুর।

শ্রীদেবী মেয়েকে বলেছিলেন, ইন্ডাস্ট্রিতে ঢুকলে কপালে অনেক দুঃখ আছে। জাহ্নবীকে ‘কঠোর’ হতে হবে। বলিউডে জীবন নির্মম। নরম হৃদয়ে আঘাত আসতে পারে প্রতিনিয়ত। সে সব সামলাতে পারবেন না জাহ্নবী, এমনই ছিল শ্রীদেবীর আশঙ্কা। তবে মেয়ে বলেছিলেন, ‘দেখো মা, ঠিক পারব।’

কেমন পারলেন বা আদৌ পারছেন কি না, তা অবশ্য মাকে না দেখাতে পারার আফসোস রয়েই গেল জাহ্নবীর।

২০১৮ সালের, ২৪ ফেব্রুয়ারি। সবাইকে কান্নায় ভাসিয়ে দুবাইয়ে মারা যান শ্রীদেবী। সেখানে তিনি একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন। ১৯৯৬ সালে প্রযোজক বনি কপুরের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন অভিনেত্রী। তাদের জীবনে আশীর্বাদ হয়ে আসেন মেয়ে জাহ্নবী আর খুশি।

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মায়ের কথা বলতে গিয়ে স্মৃতিকাতর হয়ে পড়েছিলেন জাহ্নবী। অভিনয় জীবনে আসার সিদ্ধান্তের পিছনেও যে রয়েছে মাকে খুশি করার জেদ, সে কথা অকপটে জানালেন। বললেন, ‘মা বলতেন, ইন্ডাস্ট্রিতে থাকতে গেলে যতটা কঠোর হতে হবে তাতে মানুষ হিসাবে বদলে যাবে তুমি। এই ঝরঝরে নরম মনের মেয়েটি আর থাকবে না। এটা আমি চাই না। তা ছাড়া, লোকে যখন আমার ৩০০টা কাজের সঙ্গে তোমার প্রথম কাজটার তুলনা করবে, পারবে তো সামলাতে?’

জাহ্নবী সেই শুনে মাকে বলেছিলেন, তিনি জানেন কাজটি কঠিন হবে। কিন্তু অভিনয়ে না এলে তাঁরও যে ভাল লাগবে না। সারাজীবন দুঃখে কাটবে!

টিএপি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়