পঞ্চাশে বাংলাদেশ : একত্রে উদযাপন

আগের সংবাদ

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে চট্টগ্রামে পরিবহন ধর্মঘট

পরের সংবাদ

পেট্রোল পাম্পগুলোতে উপচে পড়া ভিড়, মিলছে না তেল

প্রকাশিত: আগস্ট ৬, ২০২২ , ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৬, ২০২২ , ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ

অনেক পেট্রোল পাম্প ১২ টার পরে পেট্রোল বিক্রি বন্ধ করে দেয়

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার খবরে রাজধানী সহ দেশের সব জেলার পেট্রোল পাম্পগুলোতে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় শুরু হয়। বিশেষ করে বাইকারদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। রাজধানীর মতিঝিল সহ সব পেট্রোল পাম্পের শত শত বাইকার তেল নেয়ার জন্য ভিড় করে। কিন্তু তেলের দাম বাড়ার খবর জানার সঙ্গে সঙ্গে পেট্রোল পাম্প গুলো তেল বিক্রি বন্ধ করে দেয়।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১০টার দিকে হঠাৎ করেই জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তেলের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়া হয়। রাত বারোটা থেকে এই দাম কার্যকর হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এই ঘোষণা জানাজানি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীর সব পেট্রোল পাম্পে আগের দামে তেল কেনার জন্য বাইকার এবং গাড়ি চালকদের উপচে পড়া ভিড় শুরু হয়। কারণ রাত বারোটা বাজার সঙ্গে সঙ্গে সবাইকে বাড়তি দামে তেল কিনতে হবে। কিন্তু সুযোগ বুঝেই অধিক মুনাফা লাভের আশায় পেট্রোলপামগুলো তেল বিক্রি বন্ধ করে দেয়। পেট্রোল পাম্প কর্মীরা জানিয়ে দেয় রাত বারোটার পর তেল বিক্রি শুরু হবে, এখন তেল নেই। বাইকার এবং গাড়ি চালকরা তখন এক পেট্রোল পাম্প থেকে অন্য পেট্রোল পাম্পে ছোটাছুটি শুরু করে।

কিছু পেট্রোল পাম্প জ্বালানি তেল বিক্রি অব্যাহত রাখলেও অধিকাংশই তেল বিক্রি বন্ধ রাখে।

আজহারুল ইসলাম অভিযোগ করেন, রাত সাড়ে দশটায় খবরটি জানার পর তিনি মতিঝিলের একটি পেট্রোল পাম্পে তেল কেনার জন্য ছুটে যান। গিয়ে দেখেন তার মতো আরো বহু বাইকার পেট্রোল পাম্পের সামনে অবস্থান করছে। কিন্তু পেট্রোল পাম্প গুলো তেল বিক্রি করছে না।

জানা গেছে, কোন কোন পেট্রোল পাম্প অকটেন বিক্রি করলেও পেট্রোল বিক্রি করছে না।

আজহারুল ইসলাম অভিযোগ করেন, সরকার জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর খবর পেয়ে পেট্রোল পাম্পগুলো অধিক মুনাফা লাভের আশায় তেল বিক্রি বন্ধ করে দেয়। কারণ দুই ঘন্টা পরে তারা নতুন দামে জ্বালানি তেল বিক্রি করতে পারবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়