ভাড়া ৩০ শতাংশ বৃদ্ধির দাবি পরিবহন মালিক সমিতির

আগের সংবাদ

মোংলা বন্দরে পৌঁছেছে বঙ্গবন্ধু রেল সেতুর জিনিষপত্রের প্রথম চালান

পরের সংবাদ

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি ‘অযৌক্তিক, প্রত্যাহার চায় যাত্রী কল্যাণ সমিতি

প্রকাশিত: আগস্ট ৬, ২০২২ , ৭:০৮ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৬, ২০২২ , ৭:০৮ অপরাহ্ণ

জ্বালানি তেলের রেকর্ড মূল্যবৃদ্ধিকে একেবারেই ‘অযৌক্তিক ও গণবিরোধী’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি। অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে সংগঠনটি বলেছে, অস্বাভাবিক এই মূল্যবৃদ্ধিতে জনজীবনে দুর্ভোগ নেমে এসেছে।

শনিবার (৬ আগস্ট) সকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ দাবি জানান সংগঠনটির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী।

বিবৃতিতে বলা হয়, সরকার গত নভেম্বরে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম এক লাফে ১৫ টাকা বৃদ্ধি করেছিলেন। তখন দাম নির্ধারণ করা হয় ৮০ টাকা লিটার। ডিজেলের দাম বাড়ানোর পর বাস ভাড়া বাড়ানো হয় প্রায় ২৭ শতাংশ, লঞ্চ ভাড়া বাড়ানো হয় ৩৫ শতাংশ; যা তেলের দাম বাড়ানো হারের চেয়ে অনেক বেশি।

দ্রব্যমূল্যে ঊর্ধ্বগতিতে দেশের সাধারণ মানুষ দিশেহারা উল্লেখ করে বিবৃতিতে আরও বলা হয়, চরম এক দুঃসময়ে জ্বালানি তেলের দাম একলাফে প্রায় ৫০ শতাংশের কাছাকাছির বাড়ানোর ফলে জনজীবনে চরম দুর্ভোগ নেমে আসবে। পরিবহন ব্যয় দ্বিগুণ হওয়ায় পাশাপাশি নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যমূল্য সাধারণ মানুষের সামর্থের বাইরে চলে যাবে। পরিবহন সেক্টরে অস্থিরতা দেখা দেবে। শিল্প উৎপাদন ব্যহত হবে, ফলে আমদানির উপর নির্ভরশীলতা বাড়বে। প্রতিযোগিতায় টিকতে না পেরে অনেক ছোট ছোট শিল্প-কলকারখানা বন্ধ হয়ে যাবে।

আর এর ফলে একদিকে আমদানি ব্যয় বৃদ্ধির মধ্যে দিয়ে জাতীয় অর্থনীতি উপর চাপ আরও বাড়বে বলে মনে করে যাত্রী কল্যাণ সমিতি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়