চীনকে ‘শান্ত’ করতে পেলোসির কাছে আসেননি দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট

আগের সংবাদ

থাইল্যন্ডে নাইটক্লাবে ভয়াবহ আগুন, নিহত ১৩

পরের সংবাদ

ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুপুরে নামছে তামিম বাহিনী

প্রকাশিত: আগস্ট ৫, ২০২২ , ৯:২৯ পূর্বাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৫, ২০২২ , ৯:৩০ পূর্বাহ্ণ

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যে কোনো দলের বিপক্ষেই বাংলাদেশ একটি শক্তিশালী দল। টেস্ট কিংবা টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের সামর্থ্যরে প্রমাণ দিতে না পারলেও ওয়ানডেতে নিজেদের উজাড় করে দেন আফিফ-মিরাজরা। চলতি বছরের শুরু থেকেই ক্রিকেটে ব্যস্ত সময় পার করছে টাইগাররা।

আজ থেকে এই বছরের চতুর্থ ওয়ানডে সিরিজে মাঠে নামবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে তামিম বাহিনী। হারারে স্পোর্টস ক্লাবে আজ দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে ম্যাচটি শুরু হবে। খেলাধুলাভিত্তিক বাংলাদেশের একমাত্র টিভি চ্যানেল ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টানা ১৯ ম্যাচ জয়ের রেকর্ড গড়েছে টাইগাররা। জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে আজ স্বাগতিকদের বিপক্ষে টানা ২০ জয় পাবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে গতকাল টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেন, দুই দলের শক্তি বিচার করলে আমরাই এগিয়ে। তবে ক্রিকেটে নির্দিষ্ট দিনে যে ভালো করবে, জিতবে সেই দলই। টি-টোয়েন্টিতে তো জিম্বাবুয়ে আমাদের চেয়ে ভালো খেলেছে বলেই সিরিজ জিতেছে। এখানেও একই কথা। যদি ওদের হারাতে চাই, নিজেদের সেরা খেলাটাই খেলতে হবে। নিজেদের কন্ডিশনে জিম্বাবুয়ে বিপজ্জনক দল।

জিম্বাবুয়ের সফরে এই প্রথমবার টি-টোয়েন্টিতে হারের স্বাদ পেয়েছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। এর আগের ৬ দেখায় প্রতিবারই জিতেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। তবে টি-টোয়েন্টি থেকে টাইগাররা অধিকতর শক্তিশালী ওয়ানডেতে। এই বছর প্রথমেই শক্তিশালী আফগানিস্তানকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এরপর বিদেশের মাটিতে পরপর দুইটি সিরিজ খেলেছে তামিমরা। দক্ষিণ আফ্রিকায় ইতিহাস গড়ে ২-১ ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে। এর আগের সিরিজে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করেছে বাংলাদেশ। পরিসংখ্যানে জিম্বাবুয়ে থেকে যোজন যোজন এগিয়ে বাংলাদেশ। একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এ পর্যন্ত ৭৮ বার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে। তার মধ্যে ৫০ বার জিতেছে বাংলাদেশ আর ২৮ বার জিতেছে জিম্বাবুয়ে। সাম্প্রতিক সময়ে ওয়ানডেতে বিশ্বের সেরা দল টাইগাররা। ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর ৯টি দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে সাতটিতেই জিতেছে তারা। ২০১৯ সালে শ্রীলঙ্কা ও ২০২১ সালে নিউজিল্যান্ডের কাছে দুটি সিরিজ হারে তারা। নিউজিল্যান্ডের কাছে হারের পর টানা পাঁচটি সিরিজ জিতেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। ওয়ানডেতে বাংলাদেশের শক্তি স্পষ্ট। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ সিরিজ হারলে সেটি হবে বড় ধরনের অঘটন। ২০১৩ সালের পর থেকে জিম্বাবুয়ের কাছে কোনো সিরিজ হারেনি টাইগাররা। ওই বছর ঘরের মাঠে বাংলাদেশকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। ওই সময় থেকে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পাঁচটি সিরিজ ও ত্রিদেশীয় সিরিজে দুটি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ দল : তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), লিটন দাস, আনামুল হক বিজয়, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাসুম আহমেদ, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও তাইজুল ইসলাম।

জিম্বাবুয়ে দল : ক্রেইগ আরভিন (অধিনায়ক), রেগিস চাকাভা (উইকেটরক্ষক), তানাকা চিভাঙ্গা, লুক জংওয়ে, ইনোসেন্ট কাইয়া, ওয়েসলে মাধভের, তাদিওয়ানশে মারুমানি, ওয়েলিংটন মাসাকাদজা, টনি মুনিয়োঙ্গা, রিচার্ড এনগারাভা, ভিক্টর নিয়ুচি, সিকান্দার রাজা, মিল্টন শুম্বা ও সিন উইলিয়ামস।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়