প্রযুক্তির ব্যবহারে মানবপাচার রোধ করতে পারি আমরা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আগের সংবাদ

নিউজ ফ্ল্যাশ

পরের সংবাদ

পঞ্চগড়ে মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠার দাবিতে রাজধানীতে মানববন্ধন

প্রকাশিত: জুলাই ৩০, ২০২২ , ৩:৪৭ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ৩০, ২০২২ , ৪:১৮ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে জনদুর্ভোগ লাঘব ও ওই এলাকার মানুষের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার দাবিতে মানববন্ধন করেছে ঢাকাস্থ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা।

শনিবার (৩০ জুলাই) বেলা সাড়ে ১২টায় রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মেডিকেল কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ছাত্র কল্যাণ সমিতির ব্যানারে এই মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য দেন পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মাজহারুল হক প্রধান, বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের যুগ্মসচিব ও পঞ্চগড় জেলা সমিতির সভাপতি মো. মাহবুবুর রহমান ফারুকি, পঞ্চগড় জেলা সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা ইউনিভার্সিটি এসোসিয়েশন অফ পঞ্চগড়ের (ডিইউসেপ) সাবেক সভাপতি সাদ্দাম হোসেন, ঢাবির মাস্টার দ্য সূর্যসেন হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিয়াম রহমানসহ জগন্নাথ ও জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়সহ ঢাকা কলেজের ছাত্রকল্যাণ সমিতির নেতারা।

ঢাকা ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অফ পঞ্চগড় (ডিইউসেপের) সভাপতি রিফা জাকিয়ার সভাপতিত্ব ও সাধারণ সম্পাদক দীপম সাহার সঞ্চলনায় এ সময় বক্তারা পঞ্চগড়ের প্রান্তিক এলাকায় মানুষের চিকিৎসা সেবার জটিলতা ও দুর্ভোগ তুলে ধরে বলেন, পঞ্চগড়ে একটি হাসপাতাল থাকলেও সেখানে সব রোগের ডাক্তার পাওয়া যায় না। এতে করে রোগীর কঠিন মুহূর্তে রংপুর বা দিনাজপুর মেডিকেলে রেফার করা হয়। পঞ্চগড় থেকে প্রায় দেড়শত কিলোমিটার দূরে রোগীকে আনার পথে অনেক রোগী রাস্তাতেই মারা যান। আবার অনেকেই আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে দূরে এসে চিকিৎসা করাতে পারেন না। ফলে মানুষ চিকিৎসার অভাবেই মারা যায়। তাই দ্রুত পঞ্চগড়ে একটি মেডিকেল কলেজ ও মানসম্মত হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার দাবি জানান বক্তারা।

বক্তব্য প্রদানকালে পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মাজহারুল হক প্রধান বলেন, পঞ্চগড়ে মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার দাবি নতুন কিছু নয়। অনেক আগে থেকেই এই দাবি উত্থাপন করে আসছি। আমি জাতীয় সংসদে প্রদানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে এই দাবির কথা উত্থাপন করেছি। কিন্তু সেটা বাস্তবায়ন হচ্ছে না। বর্তমানে পঞ্চগড় সদর হাসপাতালটি ২৫০ শয্যাবিশিষ্টি। আর একটি মেডিকেকেল কলেজ প্রতিষ্ঠার জন্য ২৫০টি বেড হলেই সেটা প্রতিষ্ঠা করা যায়। সুচিকিৎসার জন্য পঞ্চগড়বাসীকে পদে পদে ধুকতে হচ্ছে এখনো।

পঞ্চগড় জেলা সমিতির সভাপতি মাহবুবুর রহমান ফারুকি বলেন, পঞ্চগড় থেকে সাধারণত রোগীকে রংপুর, দিনাজপুর বা ঢাকায় রেফার করা হয়। পঞ্চগড় থেকে নেওয়ার পথেই অনেকে প্রাণ হারায় অথবা অনেকেই টাকার অভাবে দূরে চিকিৎসা করাতে পারেন না।

সাদ্দাম হোসেন বলেন, ১০ লাখ লোকের এই জেলায় মানুষ পর্যাপ্ত চিকিৎসা সেবা পাচ্ছে না। পঞ্চগড়ে একটি মেডিকেল প্রতিষ্ঠিত হলে সার্কভুক্ত দেশগুলোর শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশে পড়ার সুযোগ পাবে। তার থেকেও বড় সুবিধা হলো, ওই এলাকার মানুষেরা পরিপূর্ণ চিকিৎসা সেবা নিতে পারবে। আমরা চাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই দিকে সুনজর দেবেন।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়