রিমোট কন্ট্রোলের ডাকা আন্দোলনে জনগণ সাড়া দিবে না : সেতুমন্ত্রী

আগের সংবাদ

গভীর রাতে হঠাৎ অসুস্থ পুতিন

পরের সংবাদ

ঢাবির রোকেয়া হলে হিন্দু ছাত্রীদের প্রার্থনা কক্ষ উদ্বোধন

প্রকাশিত: জুলাই ২৮, ২০২২ , ৩:২৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ২৮, ২০২২ , ৩:২৮ অপরাহ্ণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রোকেয়া হলের আবাসিক ছাত্রীদের মধ্যে হিন্দু ছাত্রীদের জন্য আলাদা একটি প্রার্থনা কক্ষ উদ্বোধন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) দুপুর ১টায় আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থনা কক্ষটি উদ্বোধন করেন হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা। এসময় হলটির বিভিন্ন ধর্মের শিক্ষার্থী, আবাসিক শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

প্রার্থনা কক্ষটি উদ্বোধন করা হলেও আগামীকাল শুক্রবার (২৯ জুলাই) বিকেল তিনটায় বিগ্রহ প্রতিষ্ঠা ও পূজার আয়োজন করা হবে। এর পর থেকে নিয়মিত প্রার্থনা করতে পারবে সনাতনী ধর্মাবলম্বী ছাত্রীরা।

অনুষ্ঠানে হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা বলেন, আজকে রোকেয়া হল পরিবারের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন। কারণ আমরা সনাতনী ধর্মাবলম্বীদের বহু আকাঙ্ক্ষিত এই প্রার্থনা কক্ষটি উদ্বোধন করতে পেরেছি। এই প্রার্থনা কক্ষটি উদ্বোধনের ফলে এখানে সম্প্রীতির একটি বার্তা দেয়। ধর্মনিরপেক্ষতার একটি ইঙ্গিত দেয়। এতে করে হলে অবস্থিত সকল ধর্মের ছাত্রীদের ধর্ম পালনের পূর্ণাঙ্গ সুযোগ তৈরি হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি আমাদের এ ক্ষুদ্র প্রয়াস টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রায় আমাদের আরো বহুদূর এগিয়ে নিয়ে যাবে।

প্রার্থনা কক্ষটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধনের পরে বিশ্ববিদ্যালয় ও হল প্রশাসনকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন হলটির সনাতনী ধর্মাবলম্বী ছাত্রীরা। তারা মনে করছেন এই প্রার্থনা কক্ষ চালু হওয়ার ফলে একদিকে তারা যেমন ধর্ম পালনের সুযোগ পাবেন অন্যদিকে অসাম্প্রদায়িক চেতনাকেও তারা মনেপ্রাণে লালন করতে পারবেন।

এসময় মার্কেটিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষ ও হলটির আবাসিক শিক্ষার্থী অর্পিতা ঘোষ বলেন, আমাদের সনাতনী ধর্মাবলম্বীদের প্রার্থনা কক্ষ প্রদানের জন্য হল প্রশাসন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি স্যারকে ধন্যবাদ জানাই। এটি উদ্বোধনের ফলে আমরা নির্বিঘ্নেই আমাদের ধর্ম পালন করতে পারব।

সংস্কৃত বিভাগের চতুর্থ বর্ষ ও হলটির আবাসিক ছাত্রী হেনরী ক্লারা ত্রিপুরা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, আজকে আমরা অনেক খুশি। প্রার্থনা কক্ষের চাহিদাটি অনেক আগের একটি চাহিদা ছিল। যেহেতু আজকে আমরা এটি পেয়ে গেছি তাই আমরা ভীষণ আনন্দিত।

এসময় প্রার্থনা কক্ষটি বরাদ্দ দেওয়া ও উদ্বোধনের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আরো বক্তব্য দেন হলটির সিনিয়র আবাসিক শিক্ষক নমিতা মণ্ডল, রোকেয়া হল ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকা বিনতে হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক অন্তরা দাস পৃথা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, মেয়েদের হলগুলোতে মুসলিম ছাত্রীদের জন্য প্রার্থনা কক্ষ বা নামাজের স্থান থাকলেও হিন্দু ছাত্রীদের কোনো প্রার্থনা কক্ষ ছিল না। প্রার্থনা কক্ষের জন্য ২০১৯ সালে ২৭ সেপ্টেম্বর উপাচার্য বরাবর প্রথম দাবি উত্থাপন করা হয়। এর পরে দ্বিতীয় বারের মতো চলতি বছরের জানুয়ারিতে সবগুলো ছাত্রী হলে প্রার্থনা কক্ষের আবেদন জানালে এ বিষয়ে উদ্যোগ নিতে সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশ দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য।

এরই অংশ হিসেবে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে গত ১৮ই এপ্রিল এবং শামসুন নাহার হলে গত ৫ জুন প্রার্থনা কক্ষ উদ্বোধন করা হয়। এদিকে কবি সুফিয়া কামাল হলে আগামী ৩১ জুলাই প্রার্থনা কক্ষটি উদ্বোধন হওয়ার কথা রয়েছে। এছাড়াও বাংলাদেশ-কুয়েতমৈত্রী হলে আলাদা কক্ষের সংকট থাকায় নতুন করে প্রার্থনা কক্ষের নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে।

শীঘ্রই নির্মাণ কাজ শেষে এটিও আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হবে।

টিএপি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়