আমার সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে: হিরো আলম

আগের সংবাদ

দৈনিক দেশ রূপান্তর সম্পাদক অমিত হাবিব আর নেই

পরের সংবাদ

ইউরোর ফাইনালে ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ জার্মানি

প্রকাশিত: জুলাই ২৮, ২০২২ , ১০:৪৫ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ২৮, ২০২২ , ১০:৪৫ অপরাহ্ণ

উয়েফা উইমেন্স ইউরো টুর্নামেন্টের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িয়ে আছে একটি নাম। শক্তিশালী জার্মানি ছাড়া তা আর অন্য কিছু নয়। ইউরোপের নয়বার সেরা হওয়ার দৌড়ে এ আসরে জার্মান নারীদের প্রয়োজন মাত্র একটি জয়। নারী ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের এই আসরের ফাইনালে ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ জার্মানি। টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে গতকাল ফ্রান্সকে ২-১ গোলে হারিয়ে নবমবার ফাইনালে পদার্পণ করেছে জার্মানি। জার্মানদের হয়ে জোড়া গোল করেছেন আলেক্সান্দ্রা পপ। আর ফরাসিদের পাওয়া একমাত্র গোলটি করেছেন জার্মান গোলরক্ষক মেরলে ফ্রোয়েমস।

ইংল্যান্ডের ব্যাকিংহামশায়ারের এমকে স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার শক্তিশালী জার্মানির বিপক্ষে সমানে সমানে লড়েছেন ফরাসি নারীরা। পুরুষদের ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে দুবারের চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। বিশ^কাপেও দুবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন জিদান-এমবাপ্পেরা। তবে ফরাসি মেয়েরা এখনো কোনো বড় টুর্নামেন্ট জিতেনি। চলমান প্রমীলা ইউরোতে শিরোপার খরা কাটানোর সুযোগ এসেছিল তাদের সামনে। সুযোগ কাজে লাগাতে আটবারের ইউরো চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে বেশ লড়াই করেছে তারা। ম্যাচে ৪৯ শতাংশ সময়ই বলের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের কাছে রেখেছে ফ্রান্স। গোল উদ্দেশ্যে শট নিতেও দ্বিধায় থাকেনি তারা। সাকুল্যে ১৪টি শট নিয়েছে প্রতিপক্ষের গোলপোস্টের উদ্দেশ্যে। তবে সেখান থেকে মাত্র ২টি ছিল লক্ষ্য বরাবর। বিপরীতে জার্মান নারীরা বলের নিয়ন্ত্রণ রেখেছেন ম্যাচের ৫১ শতাংশ সময়। সেখানে থেকে ১১টি শট নিতে পারলেও এর মধ্যে ৪টি ছিল লক্ষ্য বরাবর। এই ৪ শটের থেকে ২টিতেই কাক্সিক্ষত গোলের দেখা পেয়েছেন পপ। ম্যাচের দুই অর্ধে দুই গোলের দেখা পেয়েছে জার্মানি। ম্যাচের ৪০ মিনিটে জার্মানকে লিড এনে দেন আরেক্সান্দ্রা পপ।

এই গোলের সুবাদে টুর্নামেন্টে টানা পাঁচ ম্যাচেই গোল পেয়েছেন পপ। তবে স্বস্তি নিয়ে বিরতিতে যেতে পারেনি আটবারের ইউরো চ্যাম্পিয়নরা। ৪৪তম মিনিটে জার্মান গোলরক্ষকের সহায়তায় সমতায় ফেরে ফ্রান্স। ফ্রান্সের রাইট উইঙ্গার কাদিদিয়াত্ব দিয়ানির জোরালো শট গোলপোস্টে লেগে ফিরে আসার সময় জার্মান গোলরক্ষক মেরলে ফ্রোয়েমসের গায়ে লেগে জালে জাড়িয়ে যায় বল। এর সুবাদে ১-১ গোলের সমতা নিয়ে বিরতিতে যায় ফ্রান্স। এরপর বিরতি থেকে ফিরে ফরাসি রক্ষণভাগে আবারো একের পর পর আক্রমণ চালান জার্মান নারীরা। যার সুফল লাভ করে ৭৬ মিনিটে। হাওয়ায় ভাসতে ভাসতে ফরাসিদের ডি-বক্সে উড়ে আসা বলকে হেড দিয়ে ফরাসি গোলরক্ষককে আবারো পরাস্ত করেন পপ। এই গোলের সুবাদে টুর্নামেন্টের পাঁচ ম্যাচে ছয় গোলের দেখা পেয়েছেন তিনি। যার সুবাদে এরই মধ্যে জার্মান দলের সর্বোাচ্চ গোলদাতা হয়েছেন পপ। এরপর আর কোনো গোলের দেখা পায়নি ফ্রান্স। ফলে নির্ধারিত সময় শেষে ২-১ গোলের জয় নিয়ে ফাইনালে পদার্পণের উদযাপনে মেতে ওঠে জামার্নি।

আগামী রবিবার উয়েফা উইমেন্স ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের এই আসরের ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে জার্মানি। ফিনল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০০৯ সালে প্রমীলা ইউরোর ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল জার্মানি ও ইংল্যান্ড। প্রমীলা ইউরোর অভিষেক আসরেও ফাইনালে সুইডেনের বিপক্ষে হেরেছে ইংলিশরা। সেই ম্যাচে জার্মান নারীদের বিপক্ষে ৬-২ গোলে হেরেছে ইংলিশরা। এর আগে আটবার উয়েফা উইমেন্স ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলেছে দেশটি। তবে একবারও শিরোপা হারেনি তারা। টুর্নামেন্টের ১২ আসরের মধ্যে সর্বাধিক শিরোপা আটবার জয় করেছে তারা। ১৯৯৫ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত টানা ছয় আসরে শিরোপা ধরে রেখেছিল তারা। এর আগে ১৯৮৯ ও ১৯৯১ সালেও ইউরো চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন জার্মান নারীরা। ১২ আসরে আটবার শিরোপা জিতেছে জার্মানি। একবার করে জিতেছে সুইডেন, নরওয়ে ও ইতালি।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়