প্রাথমিকের শিক্ষকদের চালু হচ্ছে অনলাইন বদলি

আগের সংবাদ

বদলে যাচ্ছে ফেসবুক

পরের সংবাদ

২৩তম নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীর পর্দা উঠবে বুধবার

প্রকাশিত: জুলাই ২৬, ২০২২ , ৯:০৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ২৬, ২০২২ , ৯:১২ অপরাহ্ণ

১৯৭৫ সালে প্রথম নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীর মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু হয়েছিল। তারই ধারাবাহিকতায় তরুণ শিল্পীদের বর্ণাঢ্য শিল্পকর্ম নিয়ে মাসব্যাপী ‘২৩তম নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনী-২০২২’ শীর্ষক প্রদর্শনীর পর্দা উঠবে আগামীকাল বুধবার। এতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, নারায়নগঞ্জ চারুকলা ইন্সটিটিউট, ইউনিভার্সিটি অফ ডেভেলপমেন্ট, শান্ত মারিয়াম ইউনিভার্সটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়সহ মোট ১০টি বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে প্রদর্শনীটি সারাদেশের শিল্পী, শিল্পরসিক ও দর্শকদের উপভোগ করার সুবিধার্থে গ্যালারির পাশাপাশি অনলাইনে ভার্চুয়াল ডিসপ্লের মাধ্যমে প্রচার করা হবে।

তারুণ্যকে প্রাধান্য দিয়ে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা গ্যালারীতে আয়োজিত প্রদর্শনীটি সন্ধ্যা ৭টায় উদ্বোধন করবেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। এতে বিশেষ অতিথি থাকবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ ও শিল্প সমালোচক অধ্যাপক নজরুল ইসলাম ও চিত্রশিল্পী ড. ফরিদা জামান। সভাপতিত্ব করবেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।

মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) দুপুরে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সেমিনার হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রদর্শনীর বিস্তারিত তুলে ধরে শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী এসব কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন একাডেমির সচিব মো. আছাদুজ্জামান, চারুকলা বিভাগের পরিচালক শিল্পী মিনি করিম, উপপরিচালক এ এম মোস্তাক আহমেদ, কালচারাল অফিসার সৌম্য সালেক ও জনসংযোগ কর্মকর্তা হাসান মাহমুদ।

সংবাদ সম্মেলনে লিয়াকত আলী লাকী বলেন, বায়ান্নোর ভাষা আন্দোলন থেকে একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধসহ নানা আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে অর্জিত আজকের স্বাধীন বাংলাদেশ। এর মূল্যবোধগুলো যাতে দুর্বল হয়ে না যায় সেই লক্ষ্যে এই আয়োজন।

তিনি বলেন, দেশজুড়ে যেভাবে সাম্প্রদায়িক চেতনাকে ভুলুণ্ঠিত করার চেষ্টা চলছে সেসব মোকাবেলায় আমরা সংস্কৃতির মধ্য দিয়ে যুদ্ধ করছি। সাম্প্রদায়িকতা এবং মূল্যবোধের অবক্ষয় রুখে দিতে এই প্রদর্শনী ব্যাপক ভূমিকা রাখবে।

মো. আছাদুজ্জামান বলেন, চিত্রশিল্পের ভাষা সর্বমানবিক। এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে সর্বমানবিকতা এবং আন্তর্জাতিকতাকেই তুলে ধরা হবে।
মিনি করিম বলেন, চিত্রশিল্পের কোনো ভাষা নেই, অন্যান্য শিল্পের চেয়ে একেবারেই আলাদা একটি মাধ্যম। তবে রঙ, লাইন, বিষয়বস্তুই এর প্রধান ভাষা। নবীন শিল্পীদের সম্মিলনে এ আয়োজন শিল্পীদের জন্য বিশেষ প্রাপ্তি।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ‘২৩তম নবীন শিল্পী চারুকলা পুরস্কার ২০২২’ এবং ফটোগ্রাফিসহ চারুশিল্পের ১১টি শাখায় শ্রেষ্ঠ পুরস্কার দেয়া হবে। শ্রেষ্ঠ পুরস্কার বিজয়ীকে ১ লক্ষ টাকা, ১টি মেডেল, ১টি ক্রেস্ট, সনদপত্র ও ক্যাটালগ দেয়া হবে।

প্রদর্শনীতে চিত্রকলা, ছাপচিত্র, ভাস্কর্য, প্রাচ্যকলা, কারুশিল্প, মৃৎশিল্প, গ্রাফিক ডিজাইন, আলোকচিত্র, স্থাপনাশিল্প, পারফরমেন্স আর্ট, নিউ মিডিয়া আর্ট এবং চারুশিল্পের প্রায় সকল মাধ্যমের শিল্পকর্মসহ ৩৫৬ জন শিল্পীর ৪২২টি শিল্পকর্ম স্থান পাচ্ছে। এবারের প্রদর্শনীর গুরুত্বপূর্ণ ও আকর্ষণীয় সংযোজন বিশেষ কিউরেটেড প্রদর্শনীর আয়োজন।
প্রসঙ্গত, ১৯৭৫ সালে ১ম নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীর আয়োজনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন এবং বরেণ্য শিল্পী কামরুল হাসান। ওই প্রদর্শনীতে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার অর্জন করেন শিল্পী চন্দ্র শেখর দে। গুণী এই শিল্পী ২০১৭ সালে ‘শিল্পকলা পদক’ লাভ করেছেন। ১৯৭৬ সালে ২য় নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীতে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার অর্জন করেন শিল্পী শহিদ কবির। তিনি আন্তর্জাতিক পর্যায়ের একজন খ্যাতিমান চিত্রশিল্পী। নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীতে যেসকল শিল্পী স্বীকৃত ও পুরস্কৃত হয়েছেন, তারা আজ দেশ-বিদেশে আন্তর্জাতিক চারুকলা প্রদর্শনীতে একদিকে পুরস্কৃত হচ্ছেন অপর দিকে দেশের জন্য বয়ে আনছেন সম্মান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়