ড. এনামুল হককে রাষ্ট্রীয় সম্মান ও শেষ শ্রদ্ধা

আগের সংবাদ

মাকে বেঁধে মেয়েকে ধর্ষণ: তিনজনের ফাঁসি

পরের সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি বহরে হামলা মামলায় সাক্ষ্য গ্রহণ

প্রকাশিত: জুলাই ১৪, ২০২২ , ৩:৩০ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ১৪, ২০২২ , ৩:৩০ অপরাহ্ণ

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ২০০২ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলার অস্ত্র আইনের মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এবং স্পেশাল ট্রাইবুনাল-৩ এর বিচারক বিশ্বনাথ মণ্ডলের আদালতে সাক্ষ্য দেন কলারোয়ার শহিদুল ইসলাম।

আসামি জাবিদ হাসান লাকী অসুস্থতাজনিত কারণে আদালতে হাজির না থাকায় আসামিপক্ষের আইনজীবীরা সাক্ষীকে জেরা করেননি।

সাতক্ষীরা আদালতের পিপি অ্যাড. আবদুল লতিফ জানান, অস্ত্র ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের মামলার দ্বিতীয় দিনে সাক্ষ্য দিয়েছেন একজন। আগামী ১৯ জুলাই সাক্ষ্যগ্রহণের পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে।

আসামিপক্ষের আইনজীবী আবদুল মজিদ বলেন, ৪০ জন আসামির মধ্যে জাবিদ হাসান লাকী অসুস্থতাজনিত কারণে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন থাকার কারণে আদালতে উপস্থিত ছিলেন না। আমরা সাক্ষ্যগ্রহণের তারিখ পেছানোর আবেদন করেছিলাম। এ অবস্থায় শহিদুল ইসলামের সাক্ষ্যে আমরা আসামী পক্ষের আইনজীবীরা জেরা করা থেকে বিরত ছিলাম।

২০০২ সালের ৩০ আগস্ট সকাল ১০টায় ওই সময়ের বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক মুক্তিযোদ্ধার ধর্ষিতা স্ত্রীকে দেখতে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে যান। সেখান থেকে যশোরে ফিরে যাওয়ার পথে সকাল ১১টা ৪০ মিনিটে বিএনপির নেতাকর্মীরা কলারোয়ায় দলীয় অফিসের সামনে একটি যাত্রীবাহী বাস (সাতক্ষীরা-জ-০৪-০০২৯) রাস্তার ওপর আড় করে দিয়ে তার গাড়ি বহরে হামলা চালায়। হামলায় আহত হন আওয়ামী লীগের এক ডজন নেতাকর্মী।

এ ঘটনায় দায়ের করা হামলা মামলায় ২০২১ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি তালা-কলারোয়ার বিএনপি দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ ৫০ জন নেতাকর্মী চার থেকে ১০ বছর মেয়াদে সাজা ঘোষণা করেন সাতক্ষীরার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ুন কবির। এর আগে, গত ১৪ জুলাই অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনের অপর দুটি মামলায় অভিযোগ গঠন করা হয়।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়