সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টে জমা আছে ৫০ কোটি টাকা: তথ্যমন্ত্রী

আগের সংবাদ

পদ্মা সেতুর টোল প্লাজায় যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কা

পরের সংবাদ

রাষ্ট্রপতির ছেলের ড্রাইভারকে মারধর, তদন্ত প্রতিবেদন ২৮ জুলাই

প্রকাশিত: জুন ২৮, ২০২২ , ৬:০৯ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২৮, ২০২২ , ৬:০৯ অপরাহ্ণ

গাড়ির হর্ণ দেয়ায় উত্তেজিত হয়ে রাষ্ট্রপতির ছেলের গাড়ির ড্রাইভার মো. নজরুল ইসলামকে মারধরের অভিযোগে কৌশিক সরকার সাম্য নামে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রলীগকর্মীর বিরুদ্ধে করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২৮ জুলাই দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তরিকুল ইসলাম মামলার এজাহার গ্রহণ করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য এ দিন ধার্য করেন। কৌশিক সরকার সাম্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) সঙ্গীত বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। তাকেসহ এ মামলায় অজ্ঞাত আরো চার-পাঁচজনকে আসামি করা হয়েছে।

এর আগে, গত সোমবার রাতে মারধর ও হত্যার হুমকির অভিযোগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ড্রাইভার পরিচয়ে ভুক্তভোগী নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে ওয়ারী থানায় মামলা দায়ের করেন।
এদিকে এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওয়ারী থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক জহির হোসেন বলেন, তুচ্ছ ঘটনায় ড্রাইভারকে মারধর করা হয়। ড্রাইভার প্রধানমন্ত্রী দপ্তরের ড্রাইভার। তবে মহামান্য রাষ্ট্রপতির ছেলে রিয়াদ আহমেদ তুষারের গাড়ির ড্রাইভার হিসেবে নিয়োজিত রয়েছেন।

মামলার এজাহারে অভিযোগে বলা হয়, গত ২৬ জুন সন্ধ্যা ৭টার দিকে চালক নজরুল ইসলাম বঙ্গভবন থেকে রাষ্ট্রপতির নাতি ইসা আব্দুল্লাহকে (৮) প্রাইভেট পড়তে রাজধানীর ওয়ারী থানাধীন চামু ডেল্টার মোড়ে নিয়ে যান। সেখানে রাষ্ট্রপতির নাতিকে নামিয়ে দিয়ে বঙ্গভবনের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়ে ওয়ারী থানাধীন চামু ডেল্টার মোড় হতে টিপু সুলতান রোডের মাথায় পৌঁছান তিনি।
ওই সময় আসামি কৌশিক সরকার সাম্য মোবাইলে কথা বলতে বলতে রাস্তা পার হচ্ছিলো। তখন ড্রাইভার নজরুল পেছন থেকে হর্ণ দিলে সাম্য উত্তেজিত হয়ে গাড়ির দিকে তেড়ে আসেন এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এক পর্যায়ে ড্রাইভারের মুখে থুথু নিক্ষেপের পর গাড়ির পেছনে জোরে লাথি মারেন সাম্য।
এরপর সাম্যর পরিচয় জানার চেষ্টা করলে, তিনি উত্তেজিত হয়ে মোবাইলে অজ্ঞাত চার-পাঁচজনকে ডেকে নিয়ে আসেন। পরে তারা পরস্পর যোগসাজশে নজরুলের মুখে ও পিঠে এলোপাতাড়ি আঘাত করে। পরবর্তীতে তারা চালক নজরুলকে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যান।

উল্লেখ্য, এরআগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় ২০১৯ সালের ৭ নভেম্বর আসামি কৌশিক সরকার সাম্যকে সাময়িক বহিস্কার করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়