পাটখাত রক্ষায় আলাদা তহবিল গঠনের দাবি ব্যবসায়ীদের

আগের সংবাদ

রঙিন পোশাকে সাদা বলে আশা দেখছেন সাকিব

পরের সংবাদ

প্রতিশোধের ম্যাচে একই ব্যবধানে ঢাকা আবাহনীর জয়

প্রকাশিত: জুন ২৮, ২০২২ , ৯:৫৪ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২৮, ২০২২ , ৯:৫৪ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ ফুটবল প্রিমিয়ার লিগের চলতি আসরে মঙ্গলবার কুমিল্লায় দুই আবাহনীর হাড্ডাহাড্ডি লড়াই অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে ম্যাচের শেষে ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে দুইবার এগিয়ে গিয়েও শেষ পর্যন্ত ঢাকা আবাহনীর বিপক্ষে ৩-২ গোলের ব্যবধানে হেরেছে চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড। একইদিনে বিপিএলের আরো দুইটি ম্যাচ মাঠে গড়িয়েছে। সবমিলিয়ে ফুটবলে এক রোমাঞ্চকর দিন কেটেছে মঙ্গলবার। প্রিমিয়ার লিগের উদ্বোধনী ম্যাচে বসুন্ধরা কিংসকে হারানো নবাগত স্বাধীনতা ক্রীড়াসংঘ একের পর এক ম্যাচে হেরেই গেছে। দীর্ঘ ১৪৫ দিন পর আবারো জয়ের দেখা পেয়েছে প্রিমিয়ার লিগের নবাগত দলটি। সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবকে আজ ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাধীনতা ক্রীড়াসংঘ। দিনের তৃতীয় ম্যাচে পদ্মা সেতু পাড়ি দিয়ে গোপালগঞ্জে মুখোমুখি হয়েছে উত্তর বারিধারা ও রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি। এই দুই ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে।

কুমিল্লায় ভাষাসৈনিক শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার দুই আবাহনীর প্রথম লেগের পুনরাবৃত্তি ঘটেছে। সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে গত মার্চে ঢাকা আবাহনীকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। এবার কুমিল্লায় সেই ম্যাচেরই প্রতিশোধ নিয়েছে ঢাকা আবাহনী। পরপর দুইবার এগিয়ে গিয়েও ঢাকা আবাহনীর বিপক্ষে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে পারেনি সাগরপাড়ের ক্লাবটি। ঢাকা আবাহনীর হয়ে আজ জোড়া গোল করেন দোরিয়েলতন ও একটি গোল করেছেন নুরুল নাইম ফয়সাল। অন্যদিকে চট্টগ্রাম আবাহনীর হয়ে একটি করে গোল করেছেন ওমিদ পোপালজাই ও পিটার থ্যাঙ্কগড। লিগের শিরোপার জন্য আবাহনীর জন্য জয়ের বিকল্প ছিল না। এমনিতেই আকাশি-নীল জার্সিধারীদের থেকে ৯ পয়েন্টে এগিয়ে আছে বসুন্ধরা কিংস। এই ম্যাচে হেরে গেলেও আরো তিন পয়েন্টে পিছিয়ে যেতো মারিও লেমোসের শিষ্যরা।

সবদিক বিবেচনা করেই গতকাল কেউ কাউকে ছেড়ে খেলেনি। শুরু থেকেই আক্রমণ করে খেলেছে ঢাকা আবাহনী। ম্যাচের ১৪ মিনিটেই কোনাকুনি শট নিয়েছিলেন দানিয়েল কলিন্দ্রেস। অল্পের জন্য ক্রসবারের উপর দিয়ে চলে যায় বল। এরপর কলিন্দ্রেসের ক্রসে দরিয়েলতন গোমেজের হেডকে যে কোনো মূল্যে রুখে দেন সাইফুল ইসলাম। কিন্তু ম্যাচের ৩২তম মিনিটে গিয়ে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয় চট্টগ্রাম আবাহনী। ডি বক্সের বাইরে থেকে অসাধারণ ফ্রি কিকে ঢাকা আবাহনীর গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেলকে পরাস্ত করে দলকে লিড এনে দেন ওমিদ পোপালজাই। তবে সমতা ফিরতে সময় নেয়নি ঢাকা আবাহনী। দুই মিনিটের মধ্যেই ঢাকা আবাহনীকে ম্যাচে ফিরিয়েছেন দোরিয়েলতন।

গোল হজমের পর বাঁ প্রান্ত ধরে আক্রমণে উঠে কলিন্দ্রেস। এরপর কলিন্দ্রেসের ক্রসকে হেডের সাহায্যে গোল করেন দোরিয়েলতন। কিন্তু দোরিয়েলতনের সমতায় ফেরানোর আনন্দকে খুব একটা সময় স্থায়িত্ব হতে দেয়নি চট্টগ্রাম আবাহনী। ৩৮ মিনিটে ঢাকা আবাহনীর ডি বক্সে ক্যান্ডি অগাস্টিনকে ফাউল করে মেহেদী হাসান রয়েল। সঙ্গে সঙ্গে রেফারি বাঁশি বাজিয়ে পেনাল্টির সংকেত দেন। ঢাকা আবাহনীর ফুটবলাররা এর প্রতিবাদ করলেও রেফারি তার সিদ্ধান্তে অটুট ছিলেন। পেনাল্টির সুযোগ পেয়ে স্পট কিক থেকে লক্ষ্যভেদ করেন পিটার থ্যাঙ্কগড। এ গোলের সুবাদে প্রিমিয়ার লিগের চলতি আসরে ১৮ গোল নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে পিটার থ্যাঙ্কগড। দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণাত্মক খেলেছে আবাহনী।

এরপর ম্যাচের ৫৭ মিনিটে ১০ জনের দলে পরিণত হয় চট্টগ্রাম আবাহনী। দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ক্যান্ডি অগাস্তিন। ১০ জনের দলের বিপক্ষে আরো আক্রমণাত্মক খেলে আবাহনী লিমিটেড। ৭০ মিনিটে আবারো কলিন্দ্রেসের কর্নারে জটলার মধ্যে হেডে জাল খুঁজে নেন দোরিয়েলতন। টানা দুই ম্যাচে জোড়া গোলের দেখা পেয়েছে ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ড। ৭৭ মিনিটে সৌভাগ্যক্রমে গোল পেয়ে এগিয়ে যায় আবাহনী। বাঁ দিক দিয়ে আক্রমণে ওঠা নুরুল নাঈম ফয়সালের নেওয়া ক্রস চট্টগ্রাম আবাহনীর শাখাওয়াত হোসেনের মাথায় লেগে দিক বদলে দূরের পোস্টে গিয়ে জালে জড়ায়। অবাক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকা ছাড়া কিছুই করার ছিলনা গোলকিপার সাইফুল ইসলামের। বাকি সময়ে আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি চট্টগ্রাম আবাহনী। এই জয়ের সুবাদে ৩৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে আবাহনী লিমিটেড ঢাকা। দিনের আরেক ম্যাচে মুন্সীগঞ্জে দ্বিতীয় জয়ের দেখা পেয়েছে নবাগত স্বাধীনতা ক্রীড়সংঘ। ম্যাচের ৫৮তম মিনিটে প্রথম গোল পেয়ে লিড নিয়েছিল সাইফ।

এরপর ৬৭ মিনিটে জিল্লুর রহমানের গোলে সমতায় ফিরে স্বাধীনতা ক্রীড়াসংঘ। ম্যাচের শেষ দিকের নাটকীয়তায় শেষ হাসি হেসেছে স্বাধীনতা। ৮৪ মিনিটে ডি বক্সে ফাউল করে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ডিফেন্ডার রিয়াদুল হাসান রাফি। পেনাল্টির সুযোগ পেয়ে স্পট কিক থেকে গোল করে দলের দ্বিতীয় জয় নিশ্চিত করেন ইভান মারিচ। এই ম্যাচে জয় পেলেও মাত্র ৯ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে অবস্থান করছে স্বাধীনতা ক্রীড়াসংঘ। তৃতীয় ম্যাচে গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মণি স্টেডিয়ামে ৮০তম মিনিটে ম্যাচের প্রথম গোল পেয়েছে রহমতগঞ্জ। কিন্তু অতিরিক্ত সময়ে দ্বিতীয় মিনিয়ে ইউসুফ মরি বাম্বার গোলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে নেয় দুই দল।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়