রাজধানীর মগবাজারে আগুন

আগের সংবাদ

পাকিস্তানের পক্ষ নেয়া এমএনএ, এমপিএদেরও তালিকা হবে

পরের সংবাদ

পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খুলে নেয়া বায়েজিদ ৭ দিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত: জুন ২৭, ২০২২ , ৭:২০ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২৭, ২০২২ , ৭:২৫ অপরাহ্ণ

পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট-বল্টু খুলে টিকটক করা যুবক বায়জিদ তালহার ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। সোমবার (২৭ জুন) বিকেলে শরীয়তপুরের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সালেহুজ্জামান এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) বায়েজিদকে আদালতে হাজির করে তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন জানায়। আদালত তার ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী শহিদুল ইসলাম সজিব বলেন, এই রায়ে আমরা খুশি না। এই রায়ের বিপরীতে আমরা আপিল করব।

পুলিশের সিআইডি শাখা বলছে, পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খুলতে যন্ত্রপাতি ব্যবহার করেন টিকটকার বায়েজিদ তালহা। কোনো যন্ত্রাংশ ছাড়া শুধুমাত্র হাত দিয়ে পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খোলা সম্ভব নয়।

পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খোলার ভাইরাল হওয়া ভিডিওর যুবক বায়েজিদ তালহাকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে সোমবার (২৭ জুন) দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির সাইবার শাখার বিশেষ পুলিশ সুপার মো. রেজাউল মাসুদ এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, এটি একটি অন্তর্ঘাতমূলক কাজ। পদ্মা সেতুর যারা-যারা নাট-বল্টু খুলেছে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে।

সাইবার ইন্টিলিজেন্স অ্যান্ড রিস্ক ম্যানেজমেন্ট বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার রেজাউল মাসুদ আরও বলেন, গ্রেপ্তারকৃত বায়জিদ তালহার একটি টিকটক আইডি রয়েছে এবং তার আরেক বন্ধু কায়সারের টিকটক আইডি থেকে রবিবার ৩০ থেকে ৩৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও আপলোড হয়েছে। ভিডিওটি আপলোড হওয়ার এক ঘণ্টার মধ্যে তাকে শনাক্ত করে অবস্থান নিশ্চিত করে গ্রেপ্তার করি। এরপর বায়েজিদ তালহা বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়।

ভাইরাল হওয়া ৩৪ সেকেন্ডের ওই টিকটক ভিডিওতে দেখা যায়, বায়েজিদ তালহা সেতুর রেলিংয়ের পাশে দাঁড়িয়ে দুটি বল্টুর নাট খুলছেন। ভিডিও ধারণকারীকে বলতে শোনা যায়, ‘এই লুজ দেহি, লুজ নাট, আমি এটা ভিডিও করতেছি, দেহ। ’

নাট হাতে নিয়ে বায়েজিদ বলেন, ‘এই হলো পদ্মা সেতু, আমাদের পদ্মা সেতু। দেখো, আমাদের হাজার হাজার কোটি টাকার পদ্মা সেতু। এই নাট খুইলা এহন আমার হাতে। ’

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়