আমরা সঠিক দাম ও মানে বিদ্যুৎ পাচ্ছি না

আগের সংবাদ

বাজেট বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকারের সক্ষমতা বাড়াতে হবে

পরের সংবাদ

ঢাকার ৭শ’ কেন্দ্রে কলেরা টিকা শুরু, চলবে ২ জুলাই পর্যন্ত

প্রকাশিত: জুন ২৬, ২০২২ , ৫:৫১ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২৬, ২০২২ , ৫:৫১ অপরাহ্ণ

ঢাকার পাঁচটি এলাকায় ৭’শটি কেন্দ্রে শুরু হয়েছে কলেরার মুখে খাওয়ার টিকার ক্যাম্পেইন।

রবিবার (২৬ জুন) দুপুরে আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্রের (আইসিডিডিআর,বি) সাসাকাওয়া মিলনায়তনে এই ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

এই টিকাদান কর্মসূচি চলবে ২ জুলাই পর্যন্ত। এ সময়ের মধ্যে ২৩ লাখ মানুষকে প্রথম ডোজ মুখে খাওয়ার কলেরা টিকাদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, আমরা সব বয়সী মানুষকে ডায়রিয়ার মুখে খাওয়ার টিকা দেব। ঢাকার সংক্রমণপ্রবন ৫টি এলাকার ২৩ লাখ মানুষকে এই টিকা দেব। প্রথমবারের মতো দেশে বড় পরিসরে এই টিকা দিচ্ছি। এর আগে ট্রায়ালে যেসব এলাকায় টিকা দিয়েছি সেখানে কলেরার প্রাদুর্ভাব একদম কমে গেছে।প্রতিটি হাসপাতালে ডায়রিয়া-কলেরা ইউনিট তৈরির নির্দেশ দিয়েছি।

অনুষ্ঠানে কলেরা টিকা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, বিভিন্ন দেশ থেকে শ্রমিকদের কলেরা টিকা দেওয়ার দাবি জানিয়েছে। আপাতত তাদের কলেরা নেই, সনদ প্রদান করে বিদেশে পাঠাচ্ছি। ভবিষ্যতে আমরা শ্রমিকদের কলেরা ভ্যাকসিন দিয়ে দেশে বাইরে পাঠাবো।

মার্চের মাঝামাঝি সময়ে ঢাকায় ডায়রিয়া পরিস্থিতি চরম আকার ধারণ করে। এ সময় আইসিডিডিআর,বির কলেরা হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা অতীতের সব রেকর্ড ছাড়ায়। সে সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছিল, এই প্রাদুর্ভাব কমাতে এপ্রিলে ঢাকায় ২৩ লাখ মানুষকে কলেরার টিকা খাওয়ানো হবে। কিন্তু সেটি পিছিয়ে ২৬ জুন নির্ধারণ করে সরকার। রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, দক্ষিণখান, মিরপুর, মোহাম্মদপুর ও সবুজবাগ এলাকায় কলেরার টিকা খাওয়ানো হবে। এসব এলাকার বাসিন্দাদের টিকা পেতে কোনো নিবন্ধনের প্রয়োজন হবে না বলেও জানানো হয়। অন্তঃসত্ত্বা ব্যতীত এই ৫ এলাকার ১ বছরের বেশি সব বয়সের মানুষকে এই টিকা দেয়া হবে। এটি দুই ডোজের টিকার প্রথম ডোজ কর্মসূচি। পরবর্তীতে দেয়া হবে দ্বিতীয় ডোজ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়