পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ

আগের সংবাদ

বিস্ফোরক মামলা: জবির সাত ছাত্র রিমান্ড শেষে কারাগারে

পরের সংবাদ

অর্থনীতির চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ: আতিউর রহমান

প্রকাশিত: জুন ২৬, ২০২২ , ৯:৩৭ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২৬, ২০২২ , ৯:৩৭ অপরাহ্ণ

মুদ্রনীতির মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজ সম্পাদনের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় ব্যাংক দেশের অর্থনীতির প্রধান চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবিলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। এর মধ্যে রয়েছে- কর্মসংস্থান সৃষ্টি, উৎপাদন বাড়বে এমন খাতগুলোয় বিনিয়োগ বাড়ানো এবং জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা। ডেভেলপমেন্টাল সেন্ট্রাল ব্যাংকিং সরকারের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনা করে। অনেক উন্নয়নশীল এবং উদীয়মান অর্থনীতির দেশগুলোর কেন্দ্রীয় ব্যাংক এরই মধ্যে সামষ্টিক অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতার পরিবর্তে উন্নয়ন কাঠামোগত পরিবর্তন নিয়ে কাজ করছে।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) অডিটোরিয়ামে মুদ্রনীতির ওপর প্রথম এম এ এম কাজেমী মেমোরিয়াল লেকচার অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উন্নয়ন সমন্বয়ের সভাপতি ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান মূল প্রবন্ধে এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিআইবিএম গভর্নিং বোর্ডের চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিআইবিএম-এর মহাপরিচালক ড. মো: আখতারুজ্জামান। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বিআইবিএম-এর সহযোগী অধ্যাপক এবং পরিচালক (গবেষণা, উন্নয়ন এবং পরামর্শ) ড. আশরাফ আল মামুন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর, ডেপুটি গভর্নর, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে যখন বাংলাদেশের কোন মুদ্রানীতি ছিল না তখন কাজেমী নতুন মুদ্রানীতি প্রণয়ন করেন। যেখানে টেকসই প্রবৃদ্ধি, মূল্যস্ফীতি স্থিতিশীল রাখা, বিনিময় হার ঠিক রাখা এবং বৈদেশিক বাণিজ্যে ভারসাম্য রাখার বিষয়টি গুরুত্ব দেয়া হয়। তিনি বলেন, কোভিড-১৯ সংকটকালিন বাংলাদেশের অর্থনীতিতে এর নেতিবাচক প্রভাব মোকাবেলায় কাজেমী বাংলাদেশ ব্যাংকের বিভিন্ন নীতি প্রণয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। বাংলাদেশে কোভিডের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ অর্থনীতি পুনর্বাসন সংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়নে কাজেমীর ভূমিকা অবিস্মরণীয়।

বিআইবিএম-এর মহাপরিচালক ড. মো: আখতারুজ্জামান বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতির লক্ষ্যসমূহ অর্জনে মুদ্রানীতি প্রণয়ন এবং বাস্তবায়নে যে কয়জন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন কাজেমী অন্যতম। বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে যখন বাংলাদেশের অর্থনীতির সাথে বৈশ্বিক অর্থনীতির সঙ্গে সমন্বয় সাধন কঠিন হয়ে পড়ে তখন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন জনাব কাজেমী। বিশেষ করে বৈদেশিক বিনিময় হার, মানি মার্কেট পলিসি প্রণয়ন এবং আর্থিক অন্তর্ভূক্তিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখেন। বিআইবিএম-এর সহযোগী অধ্যাপক এবং পরিচালক (গবেষণা, উন্নয়ন এবং পরামর্শ) ড. আশরাফ আল মামুন বলেন, প্রয়াত কাজেমী মহোদয়ের অবদান কেন্দ্রীয় ব্যাংক তথা পুরো ব্যাংকিং খাতের জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

উল্লেখ্য, মোঃ আল্লাহ্ মালিক কাজেমী ১৯৪৯ সালের ৩১ মে কুমিল্লা জেলার কোতয়ালী থানার ছোটরা গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থ বিজ্ঞানে ১৯৭৩ সালে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান অধিকার করে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৭৬ সালে বাংলাদেশ ব্যাংকে প্রথম সরাসরি প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তা পদে মেধা তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করে অফিসার ক্লাস-১ পদে যোগদান করেন। এরপর চাকুরীরত অবস্থায় জনাব কাজেমী যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব ওয়েলস থেকে ব্যাংকিং অ্যান্ড ফিন্যান্স বিষয়ে অসামান্য একাডেমিক রেকর্ড নিয়ে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। তথাপি তিনি মনিটরিং ও বহিঃখাত সংস্কার নীতিমালা, আঞ্চলিক সমন্বয় এবং সহযোগিতা, আর্থিক খাত সংস্কার, হাউজিং অন্তর্ভুক্তি ও অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রবৃদ্ধি ইত্যাদি বিষয়ের উপর গুরুত্বপূর্ণ পেপার্স লিখেন।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়