সীমান্তবর্তী দুর্গম এলাকায় সহযোগিতা বাড়ানো হবে: আইজিপি

আগের সংবাদ

আগাম নির্বাচনের জন্য সংসদ ভেঙে দিলেন কুয়েতের যুবরাজ

পরের সংবাদ

বন্যাদুর্গত এলাকায় জরুরি অবস্থা ঘোষণার দাবি ছাত্র ইউনিয়নের

প্রকাশিত: জুন ২৩, ২০২২ , ৯:২৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২৪, ২০২২ , ১:৩৩ পূর্বাহ্ণ

অবিলম্বে বন্যাদুর্গত এলাকাগুলোতে দুর্যোগকালীন জরুরি অবস্থা ঘোষণা ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য চলমান বাজেট থেকে অর্থ বরাদ্দসহ পাঁচ দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) দুপুর দুইটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে পাঁচ দফা দাবিতে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রাজু ভাস্কর্যের সামনে বৃহস্পতিবার দুপুরে পাঁচ দফা দাবিতে মানববন্ধন করে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন। ছবি: ভোরের কাগজ

বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি মো. ফয়েজউল্লাহর সভাপতিত্ব ও সহকারী সাধারণ সম্পাদক মাহির শাহরিয়ার রেজার সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সভাপতি খায়রুল হাসান জাহিন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সভাপতি রেজোয়ান হক মুক্ত, ঢাকা মহানগর সংসদের সভাপতি শাহরিয়ার ইব্রাহিম মিমো।

ফয়েজউল্লাহ বলেন, সিলেট, সুনামগঞ্জসহ সারাদেশের যে ভয়াবহ বন্যা তা গত ১২২ বছরে কেউ দেখে নাই। অথচ এমন ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের কোন প্রস্তুতি নাই। এমনকি বানভাসি মানুষদের কাছে এখনও পর্যন্ত ত্রাণ সহযোগিতা পৌঁছানো হয় নাই। জনপ্রতি মাত্র সাড়ে ৬ টাকা বরাদ্দ করে জনগণের সাথে তামাশা করা হচ্ছে, এমনকি জনগণকে অচ্ছুৎ মনে করে হেলিকাপ্টার থেকে ত্রাণ ফেলে দেওয়া হচ্ছে, সেই ত্রাণের আঘাতে প্রায় ১০ জন আহত এবং একজন নিহত হয়েছেন। ভারতের সঙ্গে অসম চুক্তি এবং নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে প্রতি বছর দেশের উত্তরাঞ্চল এবং উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল বন্যায় প্লাবিত হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, এমন ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় যেখানে মানবিক সহযোগিতা নিয়ে সরকারের সবার আগে উপস্থিত হওয়ার কথা ছিল সেখানে তারা পদ্মা সেতুর জাঁকজমকপূর্ণ উদ্বোধন নিয়ে ব্যস্ত আছেন। সেই উদ্বোধনে কোটি কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দ করা হয়েছে অথচ বানভাসি মানুষের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ বরাদ্দ দেয়া হয়নি। আমরা দাবি জানাই অবিলম্বে বর্তমান অর্থ বছরের বাজেট থেকে বন্যার্তদের জন্য অর্থ বরাদ্দ দিতে হবে, পর্যাপ্ত ত্রাণসহ বন্যার্ত মানুষের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করতে হবে, ভারতের সাথে সব নতজানু পররাষ্ট্রনীতি বাতিল করতে হবে, প্রাণ প্রকৃতি ধ্বংস করে এমন সব অপরিকল্পিত ও অরিণামদর্শী উন্নয়ন বাতিল করতে হবে।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, কেন্দ্রীয় সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক সুমাইয়া সেতুসহ বিভিন্ন জেলা ও বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে ছাত্র ইউনিয়নের পাঁচ দফা নিম্নরূপ-

১) বন্যাদুর্গত এলাকায় দুর্যোগকালীন জরুরি অবস্থা ঘোষণা।

২) বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য চলমান বাজেট থেকে অর্থ বরাদ্দ দেওয়া।

৩) বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পর্যাপ্ত ত্রাণ এবং পুনর্বাসন নিশ্চিত।

৪) ভারতের সাথে নতজানু পররাষ্ট্রনীতি এবং অসম চুক্তি বাতিল এবং

৫) হাওরাঞ্চলে স্বাভাবিক পানি প্রবাহে বাধা সৃষ্টিকারী সকল অপরিকল্পিত সড়ক ও স্থাপনা বাতিল।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়