আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলকে মাঠে নামতেই হচ্ছে

আগের সংবাদ

বোলিংয়ে ফিরছেন তাসকিন

পরের সংবাদ

বিপিএল ফেরার দিনে শেখ জামালের হোঁচট, বসুন্ধরার জয়

প্রকাশিত: জুন ২১, ২০২২ , ১১:৩৭ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২১, ২০২২ , ১১:৩৭ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ ফুটবল প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় লেগ বেশ কয়েকটি ধাপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এএফসি কাপে দেশের একমাত্র ক্লাব বসুন্ধরা কিংসের প্রতিনিধিত্ব করার পর ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ ও এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ব্যস্তসূচি থাকায় দীর্ঘ ৩৮ দিন স্থগিত ছিল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের চলতি মৌসুম। গত ১৩ মে লিগের দুই ম্যাচের পর মঙ্গলবার আবার বিপিএল মাঠে গড়িয়েছে। প্রিমিয়ার লিগের শেষ হয়েছে ১৫ রাউন্ড।

মঙ্গলবার (২১ জুন) বসুন্ধরা কিংস ও রহমতগঞ্জের ম্যাচ দিয়ে শুরু হয় ১৬তম রাউন্ডের খেলা। বিপিএল মাঠে ফেরার দিনে মুন্সীগঞ্জের শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট লে. মতিউর রহমান স্টেডিয়ামে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটির মুখোমুখি হয়েছে বসুন্ধরা কিংস। বসুন্ধরা ও রহমতগঞ্জের ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে। কিন্তু সিলেট অঞ্চলের ভয়াবহ বন্যায় স্টেডিয়ামে অনেক মানুষ আশ্রয় নিয়েছে। সেজন্য সিলেটের পরিবর্তে মুন্সীগঞ্জে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। অন্যদিকে বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রের মুখোমুখি হয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। মুন্সীগঞ্জে দুই ব্রাজিলিয়ান রবসন রবিনিও ও মিগুয়েল ফিগেইরার একটি করে গোলে ২-০ ব্যবধানে জয় পেয়েছে টেবিলের শীর্ষস্থান অধিকারী দল বসুন্ধরা কিংস। কিংস অ্যারেনায় শেখ জামালকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে শেখ রাসেল। শেখ রাসেলের হয়ে একটি করে গোল করেছেন হেমন্ত বিশ্বাস, দিদিয়ার ব্রসু ও মান্নাফ রাব্বি।

মুন্সীগঞ্জে গোলের জন্য বেশ অপেক্ষা করতে হয়েছে কিংসদের। ম্যাচের ৩৪ মিনিট পর্যন্ত গোলশূন্য ছিল দুই দল। ৩৪তম মিনিটে কিংস ফরোয়ার্ড নুহা মারংকে আটকাতে গিয়ে বক্সে বাইরে চলে আসেন রহমতগঞ্জের গোলরক্ষক জিয়াউর রহমান। নুহা মারং আলতো করে গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে উঠিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে ডি-বক্সের বাইরে বলে হাত লাগিয়ে বসেন জিয়া। সঙ্গে সঙ্গে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয়েছে তাকে। এর সুবাদের ফ্রি কিক পেয়ে রহমতগঞ্জের ফুটবলারদের সহজেই বোকা বানিয়ে অসাধারণ গোল করেন মিগুয়ের ফিগেইরা। শট নেয়ার ভঙ্গি করছিলেন রবসন দি সিলভা রবিনিও। কিন্তু দামাশেনো বাঁ পায়ের বাঁকানো শটে কাছের পোস্ট দিয়ে জাল খুঁজে নেন। গোলরক্ষক তুষার ঝাঁপিয়ে পড়েও বলের নাগাল পাননি। এর দুই মিনিট পরই লিড দ্বিগুণ করেন কিংস অধিনায়ক আরেক ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার রবসন রবিনিও। কর্নার কিকের প্রান্ত থেকে ক্রস বাড়ান রিমন হোসেন। সেখান থেকে মিগুয়ের ফিগেইরা বল দেন রবসনের পায়ে। রক্ষণভাগের ফুটবলারদের আবার বোকা বানিয়ে ডান প্রান্ত দিয়ে নিচু শট নেন রবসন। সেই শট থেকেই রহমতগঞ্জের জালে চলে যায় বল। এ গোলের সুবাদে লিগে ১২টি গোল করেছেন তিনি। তার থেকে চারটি গোল বেশি করে শীর্ষে আছেন চট্টগ্রাম আবাহনীর পিটার থ্যাংকগড। প্রথমার্ধের শেষ দিকে ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ পেয়েছিল রহমতগঞ্জ। কিন্তু মাহমুদুল হাসান কিরণের ফ্রি কিকে সানডে চিজুবার হেড ড্রপ খেয়ে ছুটছিল জালের দিকে। দারুণভাবে বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে গোল আটকে দেন আনিসুর রহমান জিকো। ১০ জন নিয়ে দ্বিতীয়ার্ধে রক্ষণ জমাট রাখার দিকে আরো বেশি মনোযোগী হয় রহমতগঞ্জ। এর মধ্যেই সুযোগ পায় কিংস। ৭৬তম মিনিটে মিগুয়েল ফিগেইরার ফ্রি কিক ক্রসবারে লেগে গোললাইনের একটু বাইরে পড়ে। ভালো অবস্থায় থাকা মোহাম্মদ ইব্রাহিমও পারেননি ফিরতি সুযোগ কাজে লাগাতে। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে বক্সের ঠিক উপরে ফ্রি কিক পায় রহমতগঞ্জ। সানডের শট বাইরে দিয়ে যায়। এরপর কর্নার থেকেও তারা পারেনি ব্যবধান কমাতে। নির্ধারিত সময় শেষে ২-০ গোলের হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে পুরান ঢাকার ক্লাবটির। এর আগে প্রথম লেগের দেখায় কিংসের ঘাম ছুটিয়ে দিয়ে ৩-২ গোলে হেরেছিল রহমতগঞ্জ।

একই দিনে বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় অনুষ্ঠিত ম্যাচে শুরু থেকেই গোলের জন্য ঘাম ঝরিয়েছে শেখ জামাল ও শেখ রাসেল। প্রিমিয়ার লিগে চলতি আসরের প্রথম লেগে অপরাজিত দল ছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। এরপর স্প্যানিশ কোচ হুয়ানকে বদলে সাবেক নাইজেরিয়ান কোচ জোসেফ আফুসিকে দায়িত্বে আনার পর দ্বিতীয় লেগে দুই ম্যাচ হেরেছে শিরোপাপ্রত্যাশী দলটি। গতকাল কিংস অ্যারেনায় ম্যারেচ ২৪ মিনিটেই লিড পেয়েছে শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র। ডান প্রান্ত থেকে আকিনাদের কাট ব্যাক থেকে সহজেই বল জালে জড়ান হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস। তবে প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগেই সমতায় ফিরেছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। সলোমন কিংয়ের লম্বা করে বাড়ানো বল ধরে অফসাইডের ফাঁদ এড়িয়ে ডি বক্সে ঢুকে পড়েন ওতাবেক। বাঁ-প্রান্ত থেকে তার নেয়া ডান পায়ের জোরালো শট দূরের পোস্ট দিয়ে জালে জড়ায়। ৪২ মিনিটে ওতাবেক ভালিজনভের গোলে ১-১ সমতায় পৌঁছানোর পরও স্বস্তিতে থাকতে পারেননি জোসেফ আফুসির শিষ্যরা। প্রথমার্ধের ইনজুরি সময়ের প্রথম মিনিটে আবারও লিড অর্জন করে শেখ রাসেল। বাঁ প্রান্তে জুয়েলের কাছ থেকে বল পেয়ে ডি-বক্স বরাবর ক্রস খেলেছেন হেমন্ত বিশ্বাস। সেখান থেকে বলকে নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গোলউদ্দেশ্যে শট নিয়েছেন দিদিয়ের। শেখ জামালের গোলরক্ষক সামিউল বলকে গ্রিপ করতে ব্যর্থ হওয়ায় হাতের নিচে দিয়ে জালে জড়িয়ে যায় বল। এরপর ম্যাচের ৮৭ মিনিটে শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রের হয়ে তৃতীয় গোল করেছেন মান্নাফ রাব্বি।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়