ভামিকাকে পিছনে বসিয়ে সাইকেল চালাচ্ছেন আনুশকা

আগের সংবাদ

ফ্রান্সের ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে হেরে গেল প্রেসিডেন্ট মাক্রোঁর জোট

পরের সংবাদ

শ্রীলঙ্কায় পেট্রোল শেষ হতেই পাথরবৃষ্টি, সামাল দিতে সেনাবাহিনীর গুলি

প্রকাশিত: জুন ২০, ২০২২ , ১২:১০ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২০, ২০২২ , ১২:১০ অপরাহ্ণ

বিদেশি মুদ্রাভাণ্ডার কার্যত তলানিতে এসে ঠেকেছে। আর্থিকভাবে বিপর্যস্ত শ্রীলঙ্কায় জ্বালানি সংকট চরমে। তার জেরে প্রতিদিন দেশের নানা প্রান্তে বিক্ষোভ করছেন দেশটির সাধারণ জনগণ। তবে রবিবার রাতে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, কার্যত তা নজিরবিহীন! একটি পাম্পে পেট্রোল, ডিজেল সংগ্রহের জন্য ভিড় জমিয়েছিলেন বহু নাগরিক। কিন্তু পেট্রোল শেষ হয়ে যাওয়ায় ক্ষোভে ফেটে পড়েন অনেকে। পরিস্থিতি এমন অবস্থায় উপনীত হয় যে, গুলি চালাতে বাধ্য হয় শ্রীলঙ্কার সেনা।

দেশটির রাজধানী কলম্বো থেকে উত্তরে ৩৬৫ কিলোমিটার দূরে বিসুভামাডু অঞ্চলের ঘটনা। রবিবার রাত থেকেই জ্বালানি সংগ্রহে লাইন দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছিল। সেই সময়েই অনেকে প্রমাদ গুনছিলেন। সেনাবাহিনীর মুখপাত্র নিলান্ত প্রেমরত্নে বলেন, হঠাৎ করেই সেখানে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। ২০ থেকে ৩০ জনের একটি দল পাথর ছুঁড়তে শুরু করেন। ক্ষতিগ্রস্ত হয় সেনাবাহিনীর একটি ট্রাক। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলি চালাতে বাধ্য হয় উপস্থিত সেনাবাহিনীর সদস্য। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে গুলি চালানো শুরু হতেই বিক্ষোভকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। তবে এই ঘটনায় আহত হয়েছেন চারজন সাধারণ নাগরিক এবং সেনাবাহিনীর তিনজন সদস্য।

সীমাহীন আর্থিক সংকটে বিদেশ থেকে প্রয়োজন অনুযায়ী জ্বালানি আমদানি করতে পারছে না শ্রীলঙ্কার প্রশাসন। এই পরিস্থিতিতে ভারত ও আরও কয়েকটি দেশ সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেও প্রয়োজনের তুলনায় তা সামান্যই। রবিবারের ঘটনা ফের সেই ইঙ্গিতেরই বহিঃপ্রকাশমাত্র।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়