করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী, শনাক্তের হার এক লাফে ৫.৭৬

আগের সংবাদ

পদ্মা সেতু: প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাল ঢাবি সিনেট

পরের সংবাদ

সরকারি কর্মচারীদের সম্পদের হিসাব বাধ্যতামূলক হচ্ছে

প্রকাশিত: জুন ১৬, ২০২২ , ৭:০১ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ১৬, ২০২২ , ৭:১২ অপরাহ্ণ

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, সরকারি কর্মচারী আচরণ বিধিমালা-২০১৮ অনুযায়ী সম্পদের হিসাব দাখিল বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। একই সঙ্গে কর্মচারীদের নিজ পরিবারের সদস্যগণের বিদেশি নাগরিকত্ব সংক্রান্ত বিষয়টি ওই আচরণ বিধিমালায় আগে থেকেই সংযোজিত রয়েছে বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) সংসদে জাতীয় পার্টির সাংসদ শামীম হায়দার পাটোয়ারীর এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে বিষয়টি জানান মেহেরপুর-১ আসনের সাংসদ ও জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকারি চাকুরি আইন-২০১৮ এর আলোকে প্রস্তাবিত খসড়া সরকারী কর্মচারী (আচরণ) বিধিমালা-২০২২ প্রশাসনিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সচিব কমিটিতে উপস্থাপণের জন্য গত ১ মার্চ সার সংক্ষেপ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হয়েছে। প্রস্তাবিত খসড়া আচরণ বিধিমালায় তা যুগোপযোগী করার জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা-২০১৮ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। নতুন পদায়ন নীতিমালা প্রণয়ন কার্যক্রম চলমান। শীঘ্রই পদায়ন নীতিমালা প্রণয়ন কার্যক্রম শেষ করা হবে। সিনিয়র স্কেলসহ সকল গ্রেডের কর্মচারীদের পদোন্নতি দেয়ার জন্য বিভাগীয় পদোন্নতি কমিটি (ডিপিসি) রয়েছে এবং সরকারের উপসচিব, যুগ্মসচিব, অতিরিক্ত সচিব ও সচিব পদে পদোন্নতি বিধিমালা-২০০২ রয়েছে। যার আলোকে পদোন্নতি দেয়া হচ্ছে।

এ সময় সাংসদ বেনজীর আহমেদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে ফরহাদ হোসেন জানান, বর্তমানে দেশে সব মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তর ও সরকারি অফিসে শূন্য পদের সংখ্যা তিন লাখ ৯২ হাজার ১১৭টি। তিনি বলেন, আদালতে মামলা থাকায়, নিয়োগবিধির কাজ শেষ না হওয়ায় ও পদোন্নতি যোগ্য প্রার্থী না পাওয়ায় বেশ কয়েকটি শূন্য পদ যথাযথ সময়ে পূরণ করা যায় না।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়