ফাঁকিবাজ ঘোড়া

আগের সংবাদ

চার শিক্ষিকাকে হেনস্তার ঘটনায় মূল হোতাসহ গ্রেপ্তার ৪

পরের সংবাদ

বৃষ্টি নেই তবুও উৎসবে বর্ষা বরণ

প্রকাশিত: জুন ১৫, ২০২২ , ১:১৭ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ১৫, ২০২২ , ১:১৭ অপরাহ্ণ

সকালের আকাশে খানিকটা মেঘের ওড়াউড়ি থাকলেও বৃষ্টির দেখা মেলেনি। শেষ পর্যন্ত পঞ্জিকাই শাসন করল প্রকৃতিকে। আসার পূর্বাভাস দিয়েও আসেনি বৃষ্টি। বৃষ্টি না ঝরুক, আষাঢ়ের প্রথম দিনে রাজধানীতে বৃষ্টির দেখা মেলেনি তবুও বর্ষা বরণের উৎসবে উৎসাহের ঘাটতি ছিল না। সকালে বর্ষা উৎসব উদযাপন পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন নানা আয়োজনে বর্ষাবরণ উৎসব উদযাপন করেছে। এরমধ্যে ছিল বর্ষা নিয়ে আলোচনা, সংগীত, নৃত্য, আবৃত্তি, বৃক্ষের চারা উপহারসহ নানা আয়োজন।

উৎসবে অংশগ্রহণকারীদের পোশাক ও সাজসজ্জা ছিল বর্ষার সঙ্গে মানানসই। নারীদের পরনে ছিল আকাশি-নীল শাড়ি, সঙ্গে খোঁপায় বেলি ফুলের মালা আর হাতে প্রিয়জনের দেয়া কদম ফুল। পুরুষদের পরনে নীল পাঞ্জাবি আর ফতুয়া। অনেকে আবার বর্ষার কবিতার পঙক্তি আর ছবি আঁকা টি-শার্ট পরেছিলেন।

গতকালের কটকটে রোদের পর অনেকের মনে প্রশ্ন ছিল, সকালে বর্ষার দেখা মিলবে তো? ইট-কাঠ-পাথরের এই নগরে সহসা নামল না বর্ষা। তবে প্রতি বছরের মতো এবারেও সকাল সাড়ে ৭টায় অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয় যন্ত্রসঙ্গীতের মধ্যদিয়ে। বর্ষা কথন পর্বে অংশগ্রহণ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি নুরুল হুদা, সাহিত্যিক ও গবেষক ড. হায়াৎ মামুদ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ। স্বাগত বক্তব্য দেন বর্ষা উৎসব উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মানজার চৌধুরী সুইট। সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি, বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী, লেখক ও গবেষক, অধ্যাপক ড. নিগার চৌধুরী। এছাড়াও ধরিত্রীকে সবুজ করার লক্ষ্যে শিশু-কিশোরদের মাঝে বনজ, ফলদ ও ঔষধি গাছের চারা বিতরণ করা হয়।

এ উৎসবে একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন মহাদেব ঘোষ, প্রিয়াংকা গোপ, অনিমা রায়, তানভির সজিব, বিমান চন্দ্র বিশ্বাস, রত্না সরকার, অনিমা রায় ও নবনীতা জাইদ চৌধুরী। একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন- আহকাম উল্লাহ, মাসকুর-এ-সাত্তার কল্লোল ও নায়লা তারাননুম চৌধুরী কাকলি, অনিক বসুর নৃত্য পরিচালনায় দলীয় নৃত্য পরিবেশন করে স্পন্দন, সালমা মুন্নীর পরিচালনায় নৃত্য পরিবেশন করে নৃত্যাক্ষ, মানমী অর্থির পরিচালনায় সুরবিহার, নিক্কণ পারফরমিং আর্ট সেন্টার ও নাঈম হাসান সুজার পরিচালনায় নৃত্যজন। দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেছে- বহ্নিশিখা, স্ব-ভূমি লেখক শিল্পী কেন্দ্র, সত্যেন সেন শিল্পীগোষ্ঠী, পঞ্চভাস্কর, সুরবিহার ও সুর সাগর ললিতকলা একা।

রি-এসবি/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়