ইমারত নির্মাণ করলে সোকওয়েল ও সেফটিক ট্যাংক থাকতে হবে: তাপস

আগের সংবাদ

লিঙ্গ সমতার ধারণা নিয়ে শিশুদের জন্য এল ‘জেন্ডার স্কুল’

পরের সংবাদ

ঢাবিতে তরুণীর জামা খামচে ছিঁড়ে গালি দিতে দিতে পালালো বাইক আরোহী

প্রকাশিত: জুন ১০, ২০২২ , ১০:৫৭ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ১০, ২০২২ , ১১:১০ অপরাহ্ণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে বাইক আরোহীর নিপীড়নের শিকার হয়েছেন এক তরুণী। বাইক আরোহী ওই তরুণীকে পেছন থেকে খামচে জামা ছিঁড়ে গালাগাল করতে করতে পালিয়ে যায়।

ঘটনাটি ঘটে যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার (৯ জুন) বিকালে শাহবাগ থানায় গিয়ে মৌখিকভাবে অভিযোগ করেছেন হেনস্তার শিকার ওই তরুণী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ছেঁড়া জামা পরা একটি ছবিসহ ঘটনার বর্ণনা দিয়ে একটি স্ট্যাটাসও দিয়েছেন তিনি।

স্ট্যাটাসে তিনি লেখেন, এই যে আমার ছেঁড়া জামাটা দেখতেছেন, এটাই আপনাদের বাংলাদেশ। এই দেশে মেয়েদের মলেস্ট হওয়া, হ্যারাস হওয়া, রেপ হওয়া, গালি খাওয়া স্বাভাবিকভাবে মেনে থাকতে পারলে থাকেন, নাইলে এই রাগে দুঃখে ট্রমাটাইজ হয়ে সুইসাইড করেন, মরে যান, যা খুশি করেন কিন্তু প্রতিরোধ কিংবা বিচারের আশা কইরেন না।

ওই তরুণী ফেসবুকে আরও লেখেন, একটা লোক বাইক নিয়ে রিকশার পেছন থেকে এসে আমার বুক খামচে টেনে জামা ছিঁড়ে আমাকেই গালাগাল করতে করতে চলে গেল। আশেপাশে একটা পুলিশ নাই, একটা মানুষ এসে ধরল না, আমার চিৎকার শুনে। আমি কিছু করতে পারলাম না। আমার শরীর এখনও ভয়ে কাঁপতেছে। আমার সঙ্গে এমনটা কেন হলো? কখনও ভাবি নাই আমার ঢাকা শহরে আমার সাথেই এমন কিছু হতে পারে। একটা মানুষ আগায় এল না।

একটা মানুষও না। এই দেশে থাকতে চাইলে বিনিময়ে রাস্তাঘাটে গায়ে হাত দেয়ার পারমিশন দিতে হবে? নাকি এখন সন্ধ্যার পর বাসার বাইরে বের হওয়া বন্ধ করে দিবো? আর কারে গিয়ে বললে একটু স্বাভাবিক সিকিউরভাবে এদেশে বাঁচতে পারবো?

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুত হাওলাদার জানান, একটা ঘটনা ঘটেছে। আমরা মৌখিকভাবে জানতে পেরেছি। তিনি লিখিত অভিযোগ দিলে আমরা বিস্তারিত বলতে পারব। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে ঘটনার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিকে শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়