পদ্মা সেতুর পরতে পরতে দুর্নীতি: বিএনপির রুমিন ফারহানা

আগের সংবাদ

সরকার পতনের আন্দোলনে একজোট বিএনপি ও জাতীয় পার্টি

পরের সংবাদ

সংসদ অধিবেশন

পদ্মা সেতু বড় অর্জন, তবে জবাবদিহিতা চাই: বিএনপির হারুন

প্রকাশিত: জুন ৮, ২০২২ , ১০:৪৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ৮, ২০২২ , ১১:৩৬ অপরাহ্ণ

বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ পদ্মা সেতু এদেশের জন্য বিরাট অর্জন বলে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রীকে এর জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

বুধবার (৮ জুন) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে তিনি বলেন, এতে কোনো সন্দেহ নেই যে পদ্মা সেতু বিরাট একটি অর্জন। নি:সন্দেহে পদ্মা সেতু দক্ষিণ অঞ্চলের উন্নয়নে মাইল ফলক, এটা অস্বীকার করার কোন উপায় নাই। পায়রা বন্দর, বেনাপোল বন্দর এসব ব্যাপক অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালু হবে। ওই এলাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থায় আমুল পরিবর্তন হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে দৃঢ় নেতৃত্ব নিয়ে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছেন সেজন্য তাকে অভিনন্দন জানাই।

বিশ্ব ব্যাংক আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান। এখনও বাংলাদেশের অনেক উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থায়ন করছে বিশ্ব ব্যাংক। পদ্মা সেতুতে বিশ্বব্যাংক কেন অর্থ দিল না, কেন অর্থ দেয়নি? তার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে দৃঢ় নেতৃত্ব নিয়ে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছে সেজন্য তাকে অভিনন্দন জানাই।

তিনি বলেন, যমুনা ব্রিজের কাজ শুরু হয়েছিল ১৯৯৬ সালে সেই উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আমি ছিলাম, সাবেক প্রধানমন্ত্রী ভিত্তি প্রস্তর দিয়েছিলেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করেছিলেন। প্রায় ৩২০০ কোটি টাকা খরচ হয়েছিল প্রায় সাড়ে ৫ কিলোমিটার দীর্ঘ সেতু নির্মাণে। সেই সেতুর দিন হরতালও করেছিলেন আপনারা। সেই সেতু মাত্র দুই বছরে মাত্র ৩ হাজার কোটি টাকা নির্মাণ ব্যয় সম্পন্ন করেছিলাম। বিশেষজ্ঞরা প্রশ্ন তুলেছেন বাংলাদেশে ব্রিজ নির্মাণ ক্ষেত্রে দফায় দফায় মূল্য বৃদ্ধি হচ্ছে। এই বিষয়গুলো স্বচ্ছ হওয়া দরকার। এগুলোর জবাবদিহিতা দরকার।

হারুন বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে সমাবেশ করবেন, লাখ লাখ মানুষের সমাবেশ করবেন ঠিক আছে। কথা হচ্ছে রেল সেতু নির্মাণ হচ্ছে, এক্সেপ্রেস ওয়ে নির্মাণ হচ্ছে। তাতে ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে করতে হচ্ছে। কিন্তু প্রকল্প নির্মাণ করতে গিয়ে লাখ লাখ কোটি টাকা বিদেশ থেকে ঋণ নিতে হয়েছে। এসব বিষয়ে স্বচ্ছতা থাকা দরকার।

শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন বেগম খালেদা জিয়া এতিমের টাকা আত্মসাৎ করেছেন, তাকে তথ্য দিতে হবে কত টাকা আত্মসাৎ করেছেন। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, দেশে কোনো আইনের শাসন আছে? শাসকদের সামনে শাসকদের সম্পর্কে সত্য কথা বলা সব চাইতে বড় জেহাদ। কোন তথ্যের ভিত্তিতে বলছেন বিএনপি বিশ্ব ব্যাংক থেকে টাকা বন্ধ করে দিয়েছে? বিএনপির কথায় বিশ্ব ব্যাংক টাকা দেয় বাংলাদেশে? বিএনপি তো তখন ক্ষমতায়ও নাই, তখন বিরোধী দলে। বিএনপির কথায় যদি টাকা বন্ধ করে দেয়? তারেক রহমান লন্ডনে বসে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করে- এসব কি কথা বলেন। তাই এসব কথা বলার ক্ষেত্রে দায়িত্বশীল হওয়া উচিত।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়