টি-টোয়েন্টিতে ফেরা নিয়ে মুখ খুললেন তামিম

আগের সংবাদ

ছয় দফা ছিল স্বাধীনতার সিড়ি, সংসদে আলোচনা

পরের সংবাদ

বুধবার ঢাকায় আসছে ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি

প্রকাশিত: জুন ৭, ২০২২ , ৯:৪০ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ৭, ২০২২ , ৯:৪১ অপরাহ্ণ

বিশ্বকাপ ফুটবলকে ঘিরে উন্মাদনা প্রকাশে বাংলাদেশের ভক্তরা সব সময় এগিয়ে থাকেন। এ বছরের নভেম্বরে কাতারে বসবে বিশ্বকাপ আসর। লাল-সবুজের জার্সি গায়ে এখনো বিশ্বকাপ মঞ্চে পৌঁছাতে পারেনি আমাদের ফুটবলাররা। তবুও বিশ্বকাপে অংশ নেয়া অন্য দেশগুলোর তুলনায় বাংলাদেশে উন্মাদনার মাত্রা অনেক ক্ষেত্রে বেশি দেখা গেছে। এবার তাদের উৎসবের পালে হাওয়া দিতে ৯ বছর পর চার্টার্ড বিমানে করে বুধবার বাংলাদেশ সময় পৌনে এগারোটায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছানোর কথা বিশ্বকাপ ফুটবলের ট্রফি। চার্টার্ড বিমানে ট্রফির সঙ্গে থাকবেন ফিফার সাত কর্মকর্তা। এদের মধ্যে একজন ১৯৯৮ সালে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য ক্রিশ্চিয়ান কারেম্বু। সঙ্গে থাকবেন ফিফার অফিসিয়াল পার্টনার কোকাকোলার কয়েকজন কর্তাব্যক্তিরা।

বিশ্বকাপের ট্রফিটি মঙ্গলবার পাকিস্তান এসে পৌঁছেছে। পাকিস্তান থেকে আগামীকাল বুধবার সকালে বাংলাদেশে আসবে। ঢাকা থেকে ট্রফিটি পূর্ব তিমুরের উদ্দেশ্যে রওনা হবে। কখন ঢাকা ছাড়বে ট্রফি সেটি এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি বাফুফে, ‘বাংলাদেশ থেকে কোন সময় ট্রফি পূর্ব তিমুরের উদ্দেশ্যে রওনা হবে এটি আগামীকাল জানা যাবে। বলেন বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ।

ট্রফির সফরসূচি সম্পর্কে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, বুধবার ট্রফিটি ঢাকায় এসে পৌছাবে। এরপর বিকেলের দিকে মহামান্য রাষ্ট্রপতির বাসভবনে নেয়া হবে। সন্ধ্যার পর মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে। সংসদ অধিবেশন চলমান থাকায় সময় কিছুটা আগে-পরে হতে পারে।’ প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত ক্রীড়ামোদী। বিশ্বকাপ ট্রফি নিয়ে প্রধামন্ত্রীর সঙ্গে কোনো কথা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন,‘ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া ট্রফি দেখানোর পর জানাতে পারব। অবশ্যই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী খুশি হবেন। তিনি খেলাধূলার খোজ রাখেন। বিশ্বকাপ নিয়ে সারা বিশ্বে আলোচনা হয়। সেই ট্রফি বাংলাদেশে আসছে এটা আমাদের জন্য দারুণ গর্বের’।

এবার বাংলাদেশে সফরে আসা ফিফা বিশ্বকাপের ট্রফির সঙ্গে সবাই ছবি তোলার সুযোগ পাবেন না। জানা গেছে, শুধু কোকাকোলা বাংলাদেশের আমন্ত্রিত অতিথি ও এর ক্যাম্পেইন থেকে টিকেট পাওয়া গ্রাহকরা ট্রফির সঙ্গে ছবি তোলার সুযোগ পাবেন। এর আগে ২০১৩ সালে ডিসেম্বরে দুদিনের জন্য বাংলাদেশে এসেছিল স্বপ্নের বিশ্বকাপ ট্রফি। দীর্ঘ ৯ বছর পর ফের ট্রফিকে স্বাগত জানাতে উৎসবে মেতেছে বাংলাদেশ।

বুধবার সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছাবে ফিফা বিশ্বকাপের ট্রফি। এবারের সফরে ৬০ ঘণ্টা বাংলাদেশে থাকবে ট্রফিটি। বিমানবন্দরে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনসহ নির্বাহী কমিটির সদস্য ও কোকাকোলার কর্মকর্তারা ট্রফিটি গ্রহণ করবেন।

প্রথম দিন ৮ জুন রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর কাছে নিয়ে যাওয়া হবে বিশ্বকাপ ট্রফিটি। পরদিন থাকবে ট্রফির সঙ্গে ছবি তোলার সুযোগ ও কোক স্টুডিও বাংলার কনসার্ট। কিন্তু যে কেউ চাইলেই ট্রফির সঙ্গে ছবি তুলতে পারবেন না। বিশ্বকাপ ট্রফির বাংলাদেশ ভ্রমণের দ্বিতীয় দিন হোটেল র‌্যাডিসন ব্লুতে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত ট্রফির সঙ্গে ছবি তোলার ব্যবস্থা থাকবে। এজন্য ভেতরে প্রবেশের দরজা খুলে দেয়া হবে বেলা ১১টা থেকেই। তবে ছবি তোলার সুযোগ পাবেন শুধু কোকাকোলা বাংলাদেশের আমন্ত্রিত অতিথি এবং কোকাকোলার ক্যাম্পেইন থেকে টিকেট পাওয়া গ্রাহকরা। বিশ্বকাপ ট্রফির সঙ্গে ছবি তোলার সুযোগ করে দিতে ২৫০ মিলি ৬০০ মিলি, ১.২৫ লিটার ও ২.২৫ লিটার কোকাকোলার বোতলে ক্যাম্পেইন আয়োজন করেছিল কর্তৃপক্ষ। সেই ক্যাম্পেইন থেকে টিকেট সংগ্রহ করা কোকাকোলার গ্রাহকরা ৯ জুন দুপুর আড়াইটার মধ্যে র‌্যাডিসন ব্লু হোটেলে গিয়ে বিশ্বকাপ ট্রফির সঙ্গে ছবি তুলতে পারবেন।

এরপর বিকাল সাড়ে ৫টায় ট্রফি চলে যাবে আর্মি স্টেডিয়ামে। সেখানে ট্রফি সামনে রেখেই হবে কোক স্টুডিওর কনসার্ট। জমকালো এই আয়োজন শেষে রাতে ট্রফি ফের নিয়ে যাওয়া হবে র‌্যাডিসন হোটেলে। এরপর বৃহস্পতিবারই ট্রফিটি বাংলাদেশ ত্যাগ করবে না। এবার ৫১টি দেশে ঘোরার জন্য বের হয়েছে এই ট্রফি। প্রতিবারের মতো এবারো কোকাকোলার উদ্যোগে আয়োজিত হচ্ছে বিশ্বকাপের বিশ্ব ভ্রমণ। ফিফার সঙ্গে কোকাকোলার দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কের শুরু ১৯৭৬ সালে। পাশাপাশি ১৯৭৮ সাল থেকে কোম্পানিটি ফিফা বিশ্বকাপ এর অফিশিয়াল স্পন্সর। পাঁচ দশকের বেশি সময় ধরে একটি সতেজ ও নতুন পৃথিবী গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে বাংলাদেশে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে কোকাকোলা।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়