জবির প্রাচীরসহ কর্মচারীদের ঘর ভেঙ্গে ফেলল সিটি কর্পোরেশন

আগের সংবাদ

এবার প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষাও হচ্ছে না

পরের সংবাদ

জনপ্রিয় গায়ক কেকে’র শোকে গান লিখলেন কবীর সুমন

প্রকাশিত: জুন ৬, ২০২২ , ৭:২৭ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ৬, ২০২২ , ৭:২৭ অপরাহ্ণ

সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের মঞ্চ মাতিয়ে ফেরার পথে আকস্মিক মৃত্যু কেড়ে নেয় বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ ওরফে কেকে। গানের জগতে নেমে আসে শোকের ছায়া। লাখ লাখ ভক্ত তাকে হারিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের শোকগ্রস্ত হৃদয়ের কথা জানাতে থাকে। বিনোদনজগতের গানের জগতের তারকারাও গভীর শোক জানান কেকের মৃত্যুতে। এবার পশ্চিমবঙ্গে জনপ্রিয় গায় কবীর সুমনও তাকে হারানোর ব্যথা প্রকাশ করলেন একটি গীতি কবিতা লিখে। তিনি জানালেন, নিজেই গাইবেন প্রথমে। এবং পরে যেকেউ তা গাইতে পারবেন।
গানের কথা-

এ কেকে কেমন কেকে এই শহরে মরতে আসে
জেনে নাও কৃষ্ণকুমার এ-গান তোমায় ভালবাসে।
তোমাকে চিনতাম না জানতাম না তুমি এমন
আমার এই গানের সুরে হঠাৎ পাওয়া কান্না যেমন
শেষ গান গাইছ মৃত্যু দাঁড়িয়ে আছে তোমার পাশে –
এসেছো আগেও তুমি হয়তো হয়ে ছদ্মবেশী
কোনও এক জন্মে তুমি ছিলে আমার প্রতিবেশী।
এ শহর তোমারও ঘর তোমার শহর তোমার মাটি
বাংলার লক্ষ ছেলেমেয়ের বুকে তোমার ঘাঁটি
ফিরবে তাদের কাছেই কলকাতাতেই ফিরে এসে।।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের একাউন্টে গানের পেছনের গল্পটিও নিজের ভক্তদের জানিয়েছেন গায়ক কবীর সুমন। তিনি লিখেছেন,
“এ তুমি কেমন তুমি” গানটি কোনও ছবির জন্য বানাইনি। বানিয়েছিলাম একটি মেয়ের জন্য, একটি বিশেষ ছবির সাউণ্ডট্র‍্যাকে ব্যবহার হওয়ার ঢের আগে, অনেক আগে, ২০০৫ সালের এক গভীর রাতে, ফোনে মেসেজ করে করে। কোনও খাতায় বা পাতায় লিখিনি। হঠাৎ লিখতে শুরু করেছিলাম আমার ফোনে সরাসরি, আমার বুকে যত কান্না ধরা সম্ভব নয় তার চেয়েও বেশি কান্না নিয়ে, কীপ্যাড টিপে টিপে মেসেজ করে করে। তারপর সুর। – এক পরিচালক আবদার করে চেয়ে নেন গানটি তাঁর ছবির জন্য। স্নেহের জায়গা থেকে দিয়ে দিয়েছিলাম।
গানটি নাম করে গিয়েছে। ছায়াছবিতে গানটি যে সুকন্ঠী বাঙালি গায়ক গেয়েছিলেন তিনিও। যাঁর জন্য গানটি (হুবহু একই কথায় একই সুরে) নির্মাণ করেছিলাম এবং গানটি যাঁকে প্রথম শুনিয়েছিলাম সেই মেয়েটি নিশ্চই চুপিচুপি হেসেছেন। হয়তো আজও হাসেন। নাকি এই শহরে আমার চেয়ে কুড়ি বছরের ছোট এক গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যুর পর আমার মতো তিনিও লুকিয়ে কাঁদেন।
আমি শান্তি পাচ্ছি না।
কিছুতেই না।
শান্তি খুঁজতে খুঁজতে আজ আমি গানটার কথা, লিরিক পাল্টাতে শুরু করলাম। ঐ সুরে ছন্দে এই লিরিক সমান উপযুক্ত।

কবীর সুমন এ প্রসঙ্গে আরও লিখেছেন, ‘অনেক বছর আগে এক রাতে আমি যেমন ফোনের কীপ্যাড টিপেটিপে একটি গান মেসেজ করে করে পাঠিয়েছিলাম একটি মেয়েকে আজ তেমনি কীপ্যাড টিপেই ঐ গানের সুরের ওপর নতুন কথা বসিয়ে দিলাম। এই গানটি আমি নিজে প্রথমে গাইব। আর কাউকে দেবো না। আগে আমি গাইব, তারপর “কপিলেফট” – মোল্লা সুমনের গান যিনিই গাইতে চান গাইবেন – শুধু এই সুর ছন্দ লিরিক অবিকৃত রেখে।’

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়