নিষেধাজ্ঞা তুলে নিতে যুক্তরাষ্ট্রকে অনুরোধ

আগের সংবাদ

তরুণীকে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ, থানায় মামলা

পরের সংবাদ

প্রেমের টানে যুক্তরাষ্ট্র থেকে গাজীপুরে এসে বিয়ে

প্রকাশিত: জুন ৪, ২০২২ , ১:৪৪ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ৪, ২০২২ , ১:৪৪ অপরাহ্ণ

প্রেমের টানে যুক্তরাষ্ট্র থেকে এক তরুণ গাজীপুরে এসে বাংলাদেশি তরুণীকে বিয়ে করেছেন। রাইয়ান কফম্যান (২৭) নামে ওই তরুণ যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্যের ক্যানসাস সিটির বাসিন্দা। আর বাংলাদেশি তরুণীর নাম- সাইদা ইসলাম (২৬)। তিনি গাজীপুর নগরীর বাসন থানার ভোগড়া মধ্যপাড়া এলাকার মোশারফ হোসেন মাস্টারের নাতনি।

গত ২৯ মে বাংলাদেশে আসেন রাইয়ান। গত বুধবার সাইদার সঙ্গে পারিবারিকভাবে তার বিয়ে হয়। তাদের বিয়ে ঘিরে এলাকায় ব্যাপক কৌতূহল সৃষ্টি হয়। আমেরিকা থেকে আসা ‘সুদর্শন’ ও ছয় ফুট উচ্চতার যুবককে এক নজর দেখার জন্য বিয়ে বাড়িতে অনেকে ভিড় জমায়।

তরুণীর নানা মোশারফ হোসেন বলেন, সাইদার প্রথম স্বামী ঢাকার দনিয়া এলাকার বাসিন্দা সিকন্দার আলী ২০১৯ সালে মারা যান। এরপর সাইদা ও তার ছোট বোন তাদের মায়ের সঙ্গে নানাবাড়িতে অবস্থান করে আসছেন। বাবা মারা যাওয়ার এক বছর পর ২০২০ সালে মানবিক বিভাগ থেকে স্নাতক পাস করেন সাইদা।

রাইয়ানের সঙ্গে কীভাবে পরিচয় হলো- এমন প্রশ্নের জবাবে সাইদা বলেন, ২০২১ সালে এপ্রিলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাইয়ানের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। প্রথম পরিচয়েই নিজেদের ফোন নম্বর ও ফেসবুক আইডি বিনিময় করেন। এরপর থেকে তাদের নিয়মিত যোগাযোগ হতে শুরু করে। ফেসবুক ও ফোনে ভিডিওকলে কথা বলতে বলতে নিজেরা আরও ঘনিষ্ঠ হন। এক পর্যায়ে দুজন দুজনকে ভালোবেসে ফেলেন এবং প্রায় এক বছর তারা এভাবেই চুটিয়ে প্রেম করেন। শেষে দুজনই বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন।

অন্যদিকে রাইয়ান বিয়ে করার জন্য তার দেশেই খ্রিস্টধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। পরে তার ও সাইদার পরিবারের সম্মতিতে বাংলাদেশে আসেন তিনি। ওই সময় প্রথমবার দুজনের দেখা হয়। তারপর সাইদার সঙ্গে গাজীপুরে তার নানার বাড়িতেই ওঠেন রাইয়ান। পরে সামাজিক ও ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী বিয়ের যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষ করেন তারা।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়