জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন শুরু ১২ জুন

আগের সংবাদ

আরিজিৎ সিংয়ের থেকে ৫ কোটি চেয়েছিল গ্যাংস্টার!

পরের সংবাদ

যুদ্ধাপরাধে জামায়াত নেতা মন্টুসহ তিনজনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত: মে ৩১, ২০২২ , ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মে ৩১, ২০২২ , ১২:৩৭ অপরাহ্ণ

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে নওগাঁ জেলার জামায়াতের সাবেক আমির মো. রেজাউল করিম মন্টুসহ তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। অপর দুই আসামি হলেন- নজরুল ইসলাম ও মো. শহিদ মণ্ডল।

মামলায় তিনজন আসামির মধ্যে দুজন আটক ও একজন পলাতক রয়েছেন।

মঙ্গলবার (৩১ মে) আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন তিনজন বিচারপতির সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন প্রসিকিউটর সৈয়দ হায়দার আলী, আবুল কালাম আযাদ ও তাপস কুমার বল। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী আব্দুস সাত্তার পালোয়ান।

২০১৬ সালের ১৮ অক্টোবর এ মামলার তদন্ত শুরু হয়। তদন্তে মোট ৩১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়।

আসামিদের বিরুদ্ধে আনীত তিনটি অভিযোগ

অভিযোগ-১: ১৯৭১ সালের ৭ অক্টোবর বিকেল আনুমানিক চারটা থেকে রাত সাড়ে সাতটা পর্যন্ত সময়ে অভিযুক্ত আসামিরা নওগাঁর বদলগাছী থানার পাহাড়পুর ইউনিয়নের রানাহার গ্রামে হামলা চালিয়ে স্বাধীনতার পক্ষের নিরীহ-নিরস্ত্র বেসামরিক ব্যক্তি সাহেব আলী, আকাম উদ্দিন, আজিম উদ্দিন মণ্ডল, মোজাফফর হোসেনকে হত্যাসহ ১০-১২টি ঘরবাড়িতে লুটতরাজ ও অগ্নিসংযোগ করেন।

অভিযোগ-২: ১৯৭১ সালের ৮ অক্টোবর দুপুর আনুমানিক দেড়টা থেকে বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত সময়ে আসামিরা নওগাঁর বদলগাছী থানার পাহাড়পুর ইউনিয়নের খোজাগাড়ী গ্রামে হামলা চালিয়ে স্বাধীনতার পক্ষের নিরীহ-নিরস্ত্র মো. নুরুল ইসলামকে হত্যা করে। ১৫-২০টি বাড়ি লুটতরাজ ও অগ্নিসংযোগ করেন তারা।

অভিযোগ-৩: ১৯৭১ সালের ৮ অক্টোবর আনুমানিক বিকেল পাঁচটা থেকে পরদিন অর্থাৎ ৯ অক্টোবর আনুমানিক বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত সময়ে নওগাঁর বদলগাছী থানার পাহাড়পুর ইউনিয়নের মালঞ্চা গ্রামে হামলা চালিয়ে স্বাধীনতার পক্ষের মো. কেনার উদ্দিন ও মো. আক্কাস আলীকে অবৈধভাবে আটক করে নির্যাতন করে। পরে অপহরণ করে জয়পুরহাটের কুঠিবাড়ি ব্রিজে নিয়ে গিয়ে হত্যা করে। একই সময় আসামিরা ৪০-৫০টি বাড়ি লুটতরাজ ও অগ্নিসংযোগ করেন।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়