রাশিয়া থেকে তেল আমদানি দুই-তৃতীয়াংশ কমানোর সিদ্ধান্ত ইইউর

আগের সংবাদ

রাতে ক্লে কোর্টে জোকোভিচ-নাদাল দ্বৈরথ

পরের সংবাদ

আইপিএলে শচীনের সেরা একাদশে নেই কোহলি, ধোনি, রোহিত

প্রকাশিত: মে ৩১, ২০২২ , ৯:১৩ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মে ৩১, ২০২২ , ৯:১৩ পূর্বাহ্ণ

রবিবার শেষ হয়েছে এ বারের আইপিএল। তার পরের দিন, অর্থাৎ সোমবারই সেরা একাদশ বেছে নিলেন শচীন টেন্ডুলকার। নাম নয়, পারফরম্যান্স এবং প্রতিভার বিচারে এই দল গড়েছেন তিনি। সেই কারণেই দলে নেই বিরাট কোহলি, মহেন্দ্র সিং ধোনি, রোহিত শর্মাদের নাম। কারণ এরা কেউই এ বারের আইপিএলে ছন্দে ছিলেন না। শচীনের দলে গুজরাটের একাধিক ক্রিকেটার যেমন রয়েছেন, তেমনই পঞ্জাব রাজস্থান থেকেও ক্রিকেটার রয়েছেন।

শচীন জানিয়ে দিয়েছেন, ওপেনিংয়ে তিনি বাঁ হাতি-ডান হাতি কম্বিনেশন বেছে নিতে চান। সে ভাবে প্রথমেই বেছে নিয়েছেন শিখর ধাওয়ানকে। তার মতে, শিখর এমন একজন ক্রিকেটার যিনি খুচরো রান নিয়ে স্কোরবোর্ড সচল রাখতে পারেন। তার অভিজ্ঞতাও কাজে লাগতে পারে। আর এক ওপেনার হিসেবে তিনি নিয়েছেন জস বাটলারকে। বলেছেন, “ওর থেকে ভয়ঙ্কর ক্রিকেটার এ বারের আইপিএলে দেখিনি। এক বার মারতে শুরু করলে আর থামানো যায় না।” খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

তিনে রেখেছেন কেএল রাহুলকে। ক্রিজে তার স্থিরতা এবং ধারাবাহিকতা মন কেড়েছে শচীনের। পাশাপাশি শচীনের মতে, রাহুল এমন একজন ক্রিকেটার যিনি খুচরো রান নিতে পারেন আবার মারতেও পারেন। চারে রেখেছেন গুজরাট টাইটান্সকে খেতাব দেওয়া অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়াকে। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে হার্দিকের কিছু ইনিংস নজরে এসেছে শচীনের। পাশাপাশি তিনি যে ভাবে শক্তি কাজে লাগিয়ে ছয় মারতে পারেন তারও প্রশংসা করেছেন।

পাঁচে তিনি রাখলেন ডেভিড মিলারকে। মিলার এ বার বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেছেন। শচীনের মতে, তিনি এ বার মাঠের চারধারে বল ফেলতে পেরেছেন। যেমন তেমন ভাবে নয়, পুরোপুরি ক্রিকেটীয় শট মেনে। ছয়ে তিনি নিয়েছেন পঞ্জাবের লিয়াম লিভিংস্টোনকে। ক্রিজে এসেই যে ভাবে ছয় মারতে শুরু করেন, তার প্রশংসা করেছেন শচীন। সাত নম্বরে রেখেছেন দীনেশ কার্তিককে, যিনি থাকছেন উইকেটকিপার হিসেবে। কার্তিকের ধারাবাহিকতা এবং ঠান্ডা মাথার তুমুল প্রশংসা করেছেন শচীন।

আটে তিনি রেখেছেন গুজরাটের রশিদ খানকে। মাঝের দিকে ওভারে উইকেট নেওয়ার দক্ষতার জন্যেই বেছে নিয়েছেন শচীন। গুজরাটের আর এক বোলার মহম্মদ শামিকে রেখেছেন নয়ে। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে শামির উইকেট নেওয়ার দক্ষতার প্রশংসা করেছেন তিনি। ডেথ ওভারে দুর্দান্ত বোলিং করার জন্য যশপ্রীত বুমরা রয়েছেন দশে। দলের শেষ ক্রিকেটার হিসেবে শচীন নিয়েছেন যুজবেন্দ্র চাহালকে। চালাকি করে ব্যাটারদের আউট করার দক্ষতার জন্যে তিনি বেছে নিয়েছেন রশিদকে। তার আশা, মাঝের দিকের ওভারে রশিদ এবং চাহাল একসঙ্গে আক্রমণ করলে বিপদে পড়বে যে কোনও দল।

ডি-ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়