দাদাগিরির ফিনালেতে প্রথমবার একসঙ্গে নাচলেন সৌরভ-ডোনা

আগের সংবাদ

ভোরের কাগজের বিরুদ্ধে মামলা: ফেনীতে মানববন্ধন, সমাবেশ

পরের সংবাদ

রাজনীতি নিয়ে টুইট ‘নিখোঁজ’ তৃণমূল সাংসদ নুসরাতের

প্রকাশিত: মে ২২, ২০২২ , ১২:৫২ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ২২, ২০২২ , ১২:৫২ অপরাহ্ণ

২০২১-এর বিধানসভা ভোটের পরে আচমকা রাজনৈতিক কার্যকলাপ থেকে কিছুটা ‘দূরে’ চলে যান বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান। বর্তমানে অভিনেত্রী-সাংসদের বেশির ভাগ টুইট বিনোদন দুনিয়া সংক্রান্ত। কিন্তু শনিবার তিনি রাজনীতি সংক্রান্ত একটি টুইট করেন। এবার মোদি সরকারকে নিশানা করে তার ওই টুইটবার্তার প্রেক্ষিতে ধেয়ে আসে পাল্টা কটাক্ষ। কেউ কেউ মনে করালেন, দিন কয়েক আগে সাংসদের নামে তার নিজের লোকসভা কেন্দ্রেই ‘নিখোঁজ’ পোস্টার পড়েছে। কেন তিনি ‘গায়েব’ হয়ে গিয়েছেন, সে প্রশ্ন করলেন কেউ কেউ।

গত শুক্রবার বিরোধীদের ঝাঁঝালো আক্রমণ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার অভিযোগ, রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য ছোট ছোট ঘটনার দিকে তাকিয়ে থাকেন বিরোধীরা। এইভাবে মানুষের মধ্যে ‘বিষ’ ছড়ায় ওই রাজনৈতিক দলগুলি। এ নিয়ে পাল্টা টুইট করেছেন নুসরাত। প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্যকে বাংলার কিছু ঘটনার প্রেক্ষিতে এনে ফেলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরাত। তার কটাক্ষ, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিশ্চয়ই রাজ্য বিজেপির কথা বলছেন।’ লেখার শেষে মুখ চেপে হাসির ‘ইমোজি’ যোগ করেন নুসরাত। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

উল্লেখ্য, বার বার রাজ্যে বিরোধীদের উপর রাজনৈতিক হিংসার অভিযোগ করে আসছে বিজেপি। বাংলা সফরে এসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মুখেও শোনা গেছে ওই একই অনুযোগ। মোদির মন্তব্যকে হাতিয়ার করে ওই প্রসঙ্গেই রাজ্য বিজেপিকে খোঁচা দেন নুসরাত। পরোক্ষে বোঝাতে চাইলেন, ‘ছোট ঘটনা’কে রাজনৈতিক হাতিয়ার করতে চায় গেরুয়া শিবিরই।

ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের মতে, বর্তমানে এমন টুইটের মাধ্যমে আবার রাজনীতিতে ‘প্রাসঙ্গিক’ হতে চাইছেন নুসরাত। মাস কয়েক আগে তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বহু কাটাছেঁড়া হয়েছে। তার সন্তানের বাবা কে, এক সময় তীব্র হয়েছিল সেই বিতর্ক। সে সবে অবশ্য পাত্তা দেননি নুসরাত। তবে তার সন্তানের জন্মের পর এক বারই নিজের লোকসভা কেন্দ্রে সাংসদকে দেখা গেছে বলে দাবি করেছেন কেউ কেউ। দিন কয়েক আগে সাংসদের নামে ‘নিখোঁজ’ পোস্টারও পড়েছিল বসিরহাটে। তার পরই কি নিজের রাজনীতিক ‘ভাবমূর্তি’ ঘষামাজায় মন দিলেন অভিনেত্রী-সাংসদ নুসরাত?

২০২১-এর বিধানসভা ভোটের সময় তৃণমূল সাংসদ নুসরাত এবং বিজেপি আইটি সেলের প্রধান অমিত মালবীয়র টুইট-যুদ্ধ ছিল প্রায় রোজকার ঘটনা। শুধু কি নেটমাধ্যম, তখন সাংবাদিক বৈঠকেও তারকা সাংসদকে এগিয়ে দিয়েছে তৃণমূল। আর নুসরাত সেখানে কখনও মোদি সরকারের আমলে বেকারত্ব নিয়ে আক্রমণ করছেন, কখনও আবার ভুয়া ভিডিও ছড়িয়ে মমতা সরকারের বিরুদ্ধে ‘ষড়যন্ত্র’ হচ্ছে বলে রাজ্য বিজেপির মুন্ডুপাত করছেন। এর বহু দিন পর এল নুসরাতের কোনও ‘রাজনৈতিক’ টুইট।

ডি-ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়