পি কে হালদারকে দেশে ফেরানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করব : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আগের সংবাদ

‘আনিসুজ্জামানের জীবন মানে বাংলাদেশের ইতিহাস’

পরের সংবাদ

পি কে হালদারকে তিন দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন

প্রকাশিত: মে ১৪, ২০২২ , ১০:১২ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ১৫, ২০২২ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ

প্রশান্ত কুমার হালদার বা পি কে হালদারের গ্রেপ্তারের পর তাকে আদালতে তোলা হয়েছে কিনা সেটা নিয়ে দু রকমের বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে। ইডির একটি সূত্র থেকে জানানো হয়েছে, শনিবার সকালেই কলকাতার ব্যাঙ্কশাল কোর্টের চিপ মেজিস্ট্রটের আদালতে তোলা হয় ধৃত পি কে হালদারসহ ৬জনকে। সেখানে ১৭ মে পর্যন্ত রিমান্ডও চাওয়া হয়।

তবে ইডির অন্য আরেকটি সূত্র থেকে জানানো হয়েছে, ইডির পক্ষ থেকে অনলাইনে আদালতের কাছে আবেদন করা হয়েছে মাত্র; শশরীরে রবিবারই তোলা হবে। যেহেতু রবিবার বিশেষ আদালত ছাড়া বাকি সব আদালতে সাপ্তাহিক ছুটি তাই আদালতের কাছে অগ্রিম আবদেন জানানো হয়েছে এবং সেখানে ৩ দিনের রিমান্ডের আবেদনও করা হয়েছে।

ইডির পক্ষ থেকে সরকারি কোনও বিবৃতি না আসায় পিকে হালদার গ্রেফতার ইস্যুতে শুরু থেকেই দেখা যায় বিভ্রান্তি। তবে ইডির অফিসিয়াল সাইটে কিংবা ই ডি সরকারি ভাবে শনিবার রাত পর্যন্ত পিকে হালদারের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেনি। কিংবা কোনও ব্রিফিংও দেওয়নি।

প্রসঙ্গত, শনিবার দুপুরের পর কলকাতার অদূরে সল্টলেকের ইডির দফতরের একটাধিক গাড়িতে করে বাংলাদেশের অর্থপাচার মামলায় গ্রেফতারি পরোায়ান প্রাপ্ত পিকে হালদার, তার স্ত্রী এবং ভাই সহ ৬ জনকে জেরা শুরু করেন। তখনই এই খবরটি প্রকাশ্যে আসে।

এদিকে পিকে হালদারের কাছ থেকে আদৌ ভারতীয় পাসপোর্ট পাওয়া গিয়েছে কিনা সেটাও নিশ্চিত করেনি কোনও সূত্র। অশোকনগর এবং এর আশপাশে এলাকায় ৪০ জনের সন্দেহভাজনের তালিকা তৈরি করে তাদের ওপর গোয়েন্দা নজরদারি শুরু করেছে বলে বিভিন্ন সূত্র থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে।

ভারতের অর্থ দূর্নীতি মামলার তদন্ত করে ই ডি। বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী সম্প্রতি তারা অশোকনগর সহ বেশ কিছু এলাকায় তল্লাশি চালায়। গ্রেফতার করা হয় প্রায় সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়া পি কে হালদার সহ তার পরিবারের ৬ জন সদস্যকে।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়