সোমবার থেকে আগের দামেই টিসিবির পণ্য বিক্রি

আগের সংবাদ

একদিনে অর্ধলাখ টাকা সরকারি খাতে জমা দিলেন টিটিই শফিকুল

পরের সংবাদ

রোমান-দিয়ার হাসি কেড়ে নিল ভারত

প্রকাশিত: মে ১১, ২০২২ , ১০:৩৭ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ১১, ২০২২ , ১০:৪১ অপরাহ্ণ

ইরাকের সুলাইমানিয়াহ শহরে এশিয়া কাপ আরচারি স্টেজ-২ টুর্নামেন্টে পুরুষ রিকার্ভ একক ফাইনালে বুধবার(১১ মে) স্বর্ণ হাতছাড়া করেছেন বাংলাদেশের রোমান সানা। তার প্রতিপক্ষ ভারতের মৃণাল চৌহান শেষ মুহূর্তে স্বর্ণে লক্ষ্যভেদ করতে সক্ষম হয়েছেন। আর পুরুষ রিকার্ভ একক ফাইনালে বাংলাদেশ আরচারির ‘পোস্টার বয়’ রোমান সানা রুপা জিতেছেন।

বুধবার ইরাকে তীর-ধনুক হাতে বাংলাদেশের তিন ইভেন্টে স্বর্ণ জয়ের সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে রুপা জিতে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের। সকালে দুই ইভেন্টে রুপা জেতেন রোমান-দিয়ারা। এরপর বিকালে ছিল রিকার্ভ ব্যক্তিগত ইভেন্ট। সেখানে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে স্বর্ণ হাতছাড়া করেন বাংলাদেশের রোমান।

সব মিলিয়ে ৪টি রুপা ও ব্রোঞ্জ জিতে এশিয়ান কাপ আরচারি মিশন শেষ করল লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। এবার এশিয়া কাপ আরচারি স্টেজ-২ টুর্নামেন্টে ভারত তাদের শীর্ষ দল না পাঠিয়ে যুব দল পাঠিয়েছিল। যুবাদের বিপক্ষে লাল-সবুজের জার্সি গায়ে সিনিয়র আরচাররা শেষ পর্যন্ত হার মেনেছেন।

এর আগে গত ১৪-১৯ মার্চ থাইল্যান্ডের ফুকেটে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপ আরচারির স্টেজ-১ টুর্নামেন্টে এই ইভেন্টের ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতেছিল বাংলাদেশ। সেবারও টাইব্রেকারে গড়ায় ম্যাচ।

এছাড়া এশিয়া কাপ ওয়ার্ল্ড র‌্যাঙ্কিং স্টেজ-২ টুর্নামেন্টে স্বর্ণ জয়ের স্বপ্ন নিয়ে ইরাকে খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ আরচারি দল। কিন্তু লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের হৃদয় ভেঙে স্বর্ণ জিতেছে ভারত। মঙ্গলবার(১০ মে) কম্পাউন্ড পুরুষ দলগত ইভেন্ট, কম্পাউন্ড নারী দলগত ইভেন্টে এবং মিশ্র দলগত ইভেন্টে স্বর্ণ লুফে নিতে পারনেনি মিঠু রহমান-শ্যামলী রায়রা। এরপর রিকার্ভ এককের ফাইনালে বাংলাদেশর রোমানের দিকে তাকিয়ে ছিলেন ভক্তরা।
স্বর্ণের জন্য লড়াইটা বেশ হাড্ডাহাড্ডি হয়েছে। ম্যাচে বেশ দাপটে তীর ছুড়েছেন রোমান। কিন্তু তিনি চতুর্থ সেটে ভালো করতে পারেননি। ভারতের আরচার মৃণাল চৌহানের সঙ্গে ৬-২ সেটে হেরেছেন রোমান। প্রথম সেটে লাল-সবুজের প্রতিনিধি ২৬-২৮ পয়েন্টে হেরে যান। পরের দুই সেট ড্র করেন রোমান। তিনি চতুর্থ সেটে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। ত্রিশের মধ্যে তিনে করেন মাত্র ২৫ আর ভারতের মৃণাল করেন ২৯।

চতুর্থ সেটেই ৬-২ ব্যবধান ফল হয়ে যাওয়ায় আর পঞ্চম সেটের প্রয়োজন হয়নি। এরপর দলীয় ইভেন্টেও স্বর্ণ হাতছাড়া করেন রোমান। রিকার্ভ পুরুষ দলগত ইভেন্টে স্বর্ণ জয়ের স্বপ্ন নিয়ে খেলতে নামেন বাংলাদেশের রোমান সানা, হাকিম আহমেদ এবং আবদুর রহমান। ফাইনালে তাদের ৫-১ সেট পয়েন্টে হারিয়েছে ভারত। এই ইভেন্টের প্রথম সেটে অবশ্য বাংলাদেশ ও ভারত দুই দলই পেয়েছে ৫৫ পয়েন্ট। কিন্তু পরের ২ সেট বেশ দাপটে খেলে জিতে ম্যাচটি নিজেদের করে নেয় ভারত। দ্বিতীয় সেটে বাংলাদেশ যেখানে ৫৫, সেখানে ভারত তুলেছে ৫৭ পয়েন্ট। তৃতীয় সেটে ভারতের পয়েন্ট ছিল ৫৬ আর বাংলাদেশের ৫৪।

এই ইভেন্টের প্রথম সেটে অবশ্য বাংলাদেশ ও ভারত দুই দলই পেয়েছে ৫৫ পয়েন্ট। কিন্তু পরের দুই সেট জিতে ম্যাচটি নিজেদের করে নেয় ভারত। দ্বিতীয় সেটে বাংলাদেশ যেখানে ৫৫ পয়েন্ট পেয়েছে, সেখানে ভারত পেয়েছে ৫৭ । তৃতীয় সেটে ভারতের পয়েন্ট ৫৬, বাংলাদেশের ৫৪।

এছাড়া রিকার্ভ নারী ব্যক্তিগত ইভেন্টে বুধবার ব্রোঞ্জের লড়াই ছিল দিয়া সিদ্দিকী ও বিউটি রায়ের মধ্যে। অল বাংলাদেশি ব্রোঞ্জ লড়াইয়ে দিয়া ৭-১ সেট পয়েন্টে বিউটিকে হারান। চার সেটের মধ্যে কোনোটিতেই জিততে পারেননি বিউটি। তিনি দিয়ার বিপক্ষে শুধু একটিতে ড্র করেন।

এর আগে মঙ্গলবার ছিল এশিয়া কাপ আরচারি টুর্নামেন্টের কম্পাউন্ড দলগত বিভাগে পদক নিষ্পত্তির খেলা। সেখানে পুরুষ দলগত এই ইভেন্টে স্বর্ণ জিতে নিয়েছে ভারত। তারা এই ইভেন্টের ফাইনালে ২২৪-২১৮ পয়েন্টে বাংলাদেশকে হারিয়ে জিতেছে। এই ইভেন্টে লাল-সবুজের জার্সি গায়ে লড়াই করে হেরেছেন আশিকুজ্জামান, মিঠু রহমান ও আহমেদ রাকিবরা। তারা ভারতের বিপক্ষে তীর-ধনুক হাতে শেষ মুহূর্তে লক্ষ ভেদ করেছেন।

ফলে রুপাতে সন্তষ্ট থাকতে হয় মিঠু-রাকিবদের। এছাড়া কম্পাউন্ড নারী দলগত ইভেন্টে এবং মিশ্র দলগত ইভেন্টেও ব্রোঞ্জ জিতেছে বাংলাদেশ। স্বাগতিক ইরাককে ১৯০-১৭৭ পয়েন্টে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছে বাংলাদেশ নারী আরচার দল। বন্যা আক্তার, শ্যামলী রায় ও সোমা বিশ্বাস কম্পাউন্ড দলে খেলেছেন।

এছাড়া তীর-ধনুক হাতে বিশ^মঞ্চে রোমান আলো ছড়ালেও হতাশ করেছেন বাংলাদেশের অন্য আরচাররা। পুরুষ বিভাগের রিকার্ভ এককের কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে বিদায় নিয়েছেন আবদুর রহমান। টাইব্রেকারের স্নায়ুক্ষয়ী লড়াইয়ে ৯-৮ সেট পয়েন্টে রহমানকে হারিয়ে দেন উজবেকিস্তানের সাদিকভ আমির খান। এর আগে অবশ্য দ্বিতীয় রাউন্ডে রহমান ৬-০ সেট পয়েন্টে পাকিস্তানের মোহাম্মদ নোমান সাকিবকে, প্রিকোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের জুয়েল সরকারকে ৭-৩ সেট পয়েন্টে হারিয়ে দেন।

তাছাড়া আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে কম্পাউন্ড ইভেন্টে লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের পারফরম্যান্স বেশ হতাশাজনক। গত মার্চে থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপ আরচারির স্টেজ-১ টুর্নামেন্টে কম্পাউন্ডের পুরুষ দলগত ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পদকের লড়াইয়ে ইরানের বিপক্ষে হেরেছে বাংলাদেশ। কিন্তু এবার যথেষ্ট ভালো স্কোরই করেছেন রোমান-মিঠুরা। তারা ধারাবাহিক সাফল্য পেয়ে ফাইনালে পা রাখেন।

আগের দলে অংশ নেয়া নেওয়াজ আহমেদ ও মিঠু রহমানের সঙ্গে এবার যোগ দেন মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান। গত পরশু ফাইনালে তারা তিনজনই খেলেছেন দুর্দান্ত। তবে ৪ সেটের খেলায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা শুরুতেই পিছিয়ে পড়েন। প্রথম সেটে যেখানে ভারতের আরচাররা পেয়েছেন ৫৭, সেখানে বাংলাদেশের ছিল ৫৫ পয়েন্ট। ভারতের বিপক্ষে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করেছেন আশিকুজ্জামান ও মিঠুরা। এরপর দ্বিতীয় সেটে বাংলাদেশ ও ভারত দলের পয়েন্ট ছিল সমান ৫৫। তৃতীয় সেটে ঘুরে দাঁড়ান লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। এই সেটে তারা ৫৬, আর ভারত ৫৫ পয়েন্ট তোলে। কিন্তু শেষ সেটে লক্ষ ভেদ করেছেন মিঠুরা।

এছাড়া তীর-ধনুক হাতে একের পর এক সাফল্য দিয়ে রোমান দেশকে করেছেন গর্বিত। গত ২০১৯ বছরটা দুর্দান্ত কাটিয়েছেন আরচার রোমান সানা। এমনকি গত জুনে আরচারির বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিতে উঠেই ইতিহাস গড়েছিলেন। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে পেয়েছিলেন সরাসরি ২০২০ টোকিও অলিম্পিকে খেলার ছাড়পত্র। তীর-ধনুক হাতে রোমানের দাপট নতুন কিছু নয়। তিনি মাঠে নামলে প্রতিপক্ষের হৃদস্পন্দন বেড়ে যায়। রোমান ২০১৯ সালে ব্রোঞ্জ জিতে দেশকে উপহার দিয়েছিলেন কোনো বিশ্ব প্রতিযোগিতার প্রথম পদক।

এরপর সেপ্টেম্বরে ফিলিপাইনে এশীয় র‌্যাঙ্কিং আরচারিতে ব্যক্তিগত ইভেন্টে জেতেন স্বর্ণ। ডিসেম্বরের শুরুতে নেপালের কাঠমান্ডুতে এসএ গেমসে আরচারির ১০ ইভেন্টের দশটিতেই স্বর্ণ জেতে বাংলাদেশ। এর মধ্যে রোমানের ব্যক্তিগত স্বর্ণ পদক ছিল ৩টি।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়