কুমিল্লায় মালবাহী বগি লাইনচ্যুত, তিন রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ

আগের সংবাদ

৯৯৯-এ ফোন কলে বন্ধ হলো ৯ম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ে

পরের সংবাদ

উমরানের বলের ১৫৭ কি.মি. গতি যা বললেন রবি শাস্ত্রী

প্রকাশিত: মে ৯, ২০২২ , ১২:৩১ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ৯, ২০২২ , ১:৫০ অপরাহ্ণ

বল হাতে আইপিএলে গতির ঝড় তুলেছেন উমরান মালিক। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের জোরে বোলারকে অবিলম্বে ভারতের জাতীয় দলে নেওয়ার দাবি তুলছেন অনেকে। কিন্তু জম্মু-কাশ্মীরের তরুণকে সতর্ক করে দিলেন রবি শাস্ত্রী।

ভারতীয় দলের প্রাক্তন কোচের অভিজ্ঞ চোখ বলছে, গতি থাকলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য এখনও তৈরি নন উমরান। শাস্ত্রীর মতে, শুধু গতি থাকলেই হবে না। সঠিক জায়গায় বল ফেলাও শিখতে হবে তরুণ জোরে বোলারকে। ২২ বছরের তরুণ ১৫৭ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিতে বল করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। চলতি আইপিএলে দ্রততম বল করেছেন। নিজের রেকর্ডই উন্নত করেছেন এ ক্ষেত্রে। কিন্ত, শাস্ত্রীর মতে, এই রেকর্ড টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে মূল্যহীন। সঠিক জায়গায় বল ফেলতে না পারলে গতি অর্থহীন। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

শাস্ত্রী বলেছেন, “উমরান সঠিক জায়গায় বল ফেলতে না পারলে ব্যাটার দ্বিগুণ গতিতে সেই বল বাউন্ডারিতে পাঠাবে। ও হয়তো খুব দ্রুত ভারতের হয়ে খেলবে। ১৫৬ হোক বা ২৫৬ বলের গতি যাই হোক, ঠিক জায়গায় না ফেললে মার খেতেই হবে। ওর গতি অবশ্যই দুর্দান্ত। কিন্তু ওকে মাথায় রাখতে হবে কোথায় বল ফেললে সেটা কার্যকরী হবে। শুধু গতি দিয়ে ব্যাটারদের চমকে দেওয়া সম্ভব নয়। ওকে বোলিং নিয়ে ভাবনা চিন্তা করতে হবে।”

উমরানকে উদ্দেশ্য করে শাস্ত্রী বলেছেন, “বিষয়টা যদি তোমার ঠিক মনে না হয়, তাহলে তুমি শুধুই সময় নষ্ট করছ। বড় সময় নষ্ট করে ফেলছ। তোমার বল ব্যাটে লাগার পর ২৫০ থেকে ৩০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিতে ছুটবে। প্রতিযোগিতা যত এগোবে উইকেটগুলো তত মন্থর হবে এবং ব্যাটিং সহায়ক হয়ে উঠবে। তাই সঠিক জায়গায় বল ফেলাটা গুরুত্বপূর্ণ।”

উমরানকে নিয়ে আলোচনার সময় তিনি আরও বলেছেন, “সকলেই ওর বলের গতি নিয়ে কথা বলছে। কিন্তু ২০ ওভারের ক্রিকেটে গতির কোনও গুরুত্ব আছে বলে আমার মনে হয় না। ও যদি কেবল উইকেট লক্ষ্য করে বল করে যায় তাহলেও ধারাবাহিকতা থেকে দূরে থাকতে হবে। ১৫৬, ১৫৭ কিলোমিটার গতি খুবই ভালো। কিন্তু কোথায় বল ফেলছে বা বল কীভাবে ব্যাটারের কাছে পৌঁছচ্ছে সেটাতেও নজর দিতে হবে।”

শাস্ত্রী মনে করেন উমরান সঠিক প্রশিক্ষণ এবং পরামর্শ পেলে ভবিষ্যতে ভারতীয় দলের জন্য সম্পদ হয়ে উঠতে পারেন।

ডি-ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়