মা হওয়া মুখের কথা নয়: মিথিলা

আগের সংবাদ

পরিবারে এলো নতুন সদস্য, খুশিতে আত্মহারা শ্রাবন্তী

পরের সংবাদ

যুদ্ধক্ষেত্র থেকেই শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিচ্ছেন ইউক্রেনীয় অধ্যাপক

প্রকাশিত: মে ৮, ২০২২ , ১১:৫২ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মে ৮, ২০২২ , ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ

উল্টো দিক থেকে ক্রমাগত চলছে রুশ সেনার গোলাবর্ষণ। তার মধ্যেই বালির বস্তা দিয়ে ঘেরা পরিখার পিছনে বসে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের অনলাইন ক্লাস নিচ্ছেন এক ইউক্রেনীয় সেনা। রাইফেল কাঁধ থেকে নামানো। এক হাতে খাতা-পেন। আর অন্য হাতে মোবাইল ফোন। যা দিয়ে যুদ্ধক্ষেত্র থেকে পড়ুয়াদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন তিনি। গত শুক্রবার রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ৭২তম দিনে এমনই এক ছবি ছড়িয়ে পড়ল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই সেনাকর্মীর নাম ফেদির শ্যান্ডর। আদতে পেশায় অধ্যাপক তিনি। অধ্যাপনা করেন ইউক্রেনের উজহোরড ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। ওই দিনই সেনায় নাম লিখিয়েছিলেন শ্যান্ডর। তারপর থেকে তিনি যুদ্ধক্ষেত্রেই রয়েছেন। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

শ্যান্ডর বলেন, ‘‘গত ৭০ দিন ধরে যুদ্ধ করছি আমি।’’ এই যুদ্ধের মধ্যেও পড়ুয়াদের অনলাইন ক্লাস নেওয়ার সময় ঠিক করে নিয়েছেন শ্যান্ডর। প্রতি সপ্তাহে সোমবার ও মঙ্গলবার সকাল ৮টা। গত ৭০ দিনে এক বারের জন্যেও তার ব্যত্যয় ঘটেনি। শ্যান্ডর বলেন, ‘‘ছেলেমেয়েদের পড়ানোর মতো পবিত্র কাজ আর হয় না। ওটা বাদ দিতে পারব না।’’ ইউক্রেনের কোন প্রান্তে যুদ্ধে গিয়েছেন শ্যান্ডর, তা অবশ্য প্রকাশ্যে আনেনি উজহোরড ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। শুধু জানানো হয়েছে, পূর্ব ইউক্রেনের কোনও এক প্রান্তে।

ডি-ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়