ট্রেনে কয়েকগুণ যাত্রী, ছাদে করে ঝুঁকিপূর্ণ বাড়ি ফেরা

আগের সংবাদ

ইউক্রেনের জাদুঘরে প্রত্নসামগ্রী লুটপাট রুশ সেনাদের!

পরের সংবাদ

ঋণ মেটাতে ছাঁটাইয়ের ইঙ্গিত ইলন মাস্কের

প্রকাশিত: মে ১, ২০২২ , ১২:২৯ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ১, ২০২২ , ১০:২৪ অপরাহ্ণ

টুইটার কেনার জন্য ব্যাংক থেকে বিপুল অঙ্কের অর্থ ঋণ নিয়েছেন তিনি। তা শোধ করার জন্য শেষ পর্যন্ত তাকে কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটতে হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন ইলন মাস্ক। পাশাপাশি, খরচ কমানোর উদ্দেশ্যে সংস্থার কিছু উচ্চপদস্থ কর্মীর বেতনও কমানো হতে পারে বলে সম্প্রতি ঋণদাতা সংস্থাগুলিকে আমেরিকার ধনকুবের জানিয়েছেন বলে তার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানাচ্ছে।

আনন্দবাজার অনলাইনের প্রতিবেদন অনুসারে, টুইটার কিনতে আমেরিকার ধনকুবের মাস্ক খরচ করেছেন ৪,৪০০ কোটি ডলার। কিন্তু এই বিপুল পরিমাণ অর্থের অধিকাংশই ব্যাংক ঋণ থেকে এসেছে বলে খবর। মাইক্রোব্লগিং সাইটের মালিকানা পেতে মোট ২,৫৫০ কোটি ডলার ঋণ নিয়েছেন তিনি।

ওই সূত্র জানাচ্ছে, উপার্জন বৃদ্ধির জন্য টুইটারে নতুন কিছু বৈশিষ্ট্যও যোগ করতে চেয়েছেন মাস্ক। যদি কোনও টুইট ভাইরাল হয়ে যায় কিংবা বাইরের কোনও সংস্থা কোনও টুইট উদ্ধৃত করতে চায়, তবে তার জন্যও দিতে হতে পারে টাকা। তবে মাস্ক টুইটারকে বিজ্ঞাপন নির্ভর করতে চান না। ইতিমধ্যেই ‘টুইটার ব্লু’ নামক একটি প্রিমিয়াম পরিষেবা চালু রয়েছে টুইটারে। এই পরিষেবাটি মাস্ক আরও জোরালো করতে চান বলে গুঞ্জন উঠেছে। গোটা বিষয়টি সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন করতে মাস্ক নিজের পছন্দের সিইও নিয়োগ করতে চান বলেও খবর। তবে আইনগত বাধ্যবাধকতার কারণে আপাতত মুখে কুলুপ এঁটেছেন তিনি।

গত ২৫ এপ্রিল টুইটারের মালিকানা পান মাস্ক। সূত্রের খবর, তার আগে ১৪ এপ্রিল ঋণদাতা সংস্থাগুলির কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে ঋণ শোধের সম্ভাব্য দিশানির্দেশ দেন তিনি। সেখানেই ছাঁটাই এবং বেতন কমানোর ইঙ্গিত দেওয়া হয়। প্রসঙ্গত, মোট ২,৫৫০ কোটি ডলার ঋণের মধ্যে মাস্ক ১,৩০০ কোটি নিয়েছেন টুইটারের মালিকানা দেখিয়ে। বাকি ১,২৫০ কোটি ডলার ঋণ নিয়েছেন টেসলাতে নিজের অংশীদারিত্ব দেখিয়ে। ফলে অধিগ্রহণের ‘প্রভাব’ টেসলাতেও পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ডি-ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়