রবিবার চাঁদ দেখা গেলে সোমবার ঈদ

আগের সংবাদ

শেহনাজকে বলিউডে আমন্ত্রণ সালমানের

পরের সংবাদ

ছোট থেকে ৩ দৈনন্দিন অভ্যাসে দূরে থাকবে স্থূলতা

প্রকাশিত: এপ্রিল ৩০, ২০২২ , ১১:২৬ পূর্বাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ৩০, ২০২২ , ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে ১৯৭৫ সাল থেকে ২০১৬ সাল সময়কালে পাঁচ থেকে ঊনিশ বছর বয়সি শিশু-কিশোরদের মধ্যে স্থূলতার সমস্যা বেড়েছে উদ্বেগজনক হারে। ১৯৭৫ সালে স্থূলতায় আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা ছিল শতকরা চার জন। ২০১৬ সালে এই সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৮ শতাংশ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দৈনন্দিন জীবনে কিছু নিয়ম মেনে চললেই প্রতিরোধ করা যেতে পারে স্থূলতার সমস্যা।

১. হালকা খাবার হোক স্বাস্থ্যকর : শিশুদের চোখের খিদে বরাবরই বেশি। চোখের সামনে লোভনীয় কোনও খাবার দেখলেই খেতে চাওয়া শিশুদের পক্ষে অস্বাভাবিক নয়। মূল খাবারের বাইরে যে যে খাবার শিশুরা খায় সেগুলো স্বাস্থ্যকর হওয়াই বাঞ্ছনীয়। অস্বাস্থ্যকর ফ্যাট সমৃদ্ধ খাবারের বদলে ফল কিংবা কাঠবাদামের মতো খাবার খেলে খিদেও মিটবে, স্থূলতার আশঙ্কাও কমবে।

২. নিয়মিত শরীরচর্চা : পিঠের ব্যাগের ওজন যত বাড়ছে, ততই কমছে খেলাধুলোর সময়। খেলাধুলো কমে যাওয়ার প্রভাব শিশুদের মানসিক স্বাস্থ্যের পাশাপাশি শারীরিক দিক থেকেও ক্ষতিকর। বিশেষজ্ঞরা বলছেন প্রতিদিন অন্তত ত্রিশ মিনিট যে কোনও ধরনের শরীরচর্চা যদি নিয়ম মেনে করা যায়, তবে অনেকটাই কমে স্থূলতার আশঙ্কা। শরীরচর্চা মানে কিন্তু শুধু ব্যায়াম নয়। সাইকেল চালানো, সাঁতার কাটা, কিংবা দৌড়ের মতো অভ্যাসও ব্যায়ামের সমান কার্যকর।

৩. ফাস্ট ফুড পরিহার : বাজার জাত ফাস্ট ফুড শুধু স্থূলতা নয়, ডেকে আনে হরেক রকমের গুরুতর সমস্যা। তাই সাবধান হতে হবে ছোট থেকেই। শিশু-কিশোরদের মধ্যে এই ধরনের খাবার খাওয়ার প্রবণতা অত্যন্ত বেশি। তাই ছোট থেকেই এই অভ্যাসে লাগাম টানা দরকার। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়