নবীনগরে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে ধর্ষণ, আটক ২

আগের সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক অনেক গভীর: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পরের সংবাদ

রাণীনগরে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূর মাথার চুল কেটে নির্যাতন, মামলা

প্রকাশিত: মার্চ ২৩, ২০২২ , ৩:৫৯ অপরাহ্ণ আপডেট: মার্চ ২৩, ২০২২ , ৩:৫৯ অপরাহ্ণ

নওগাঁর রাণীনগরে যৌতুকের নির্ধাারিত টাকা না দেওয়ায় এক গৃহবধূর মাথার চুল কেটে নির্যাতন করে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। নির্যাতনের বিচার চেয়ে রাণীনগর থানা পুলিশের দারস্থ হলেও মামলা নেয়নি পুলিশ। পরে নিরুপায় হয়ে ওই গৃহবধূ আদালতে মামলা দায়ে করেন। এদিকে মামলা করার প্রায় এক মাস পার হলেও কোনো বিচার না পাওয়ায় নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছে ভুক্তভোগীর পরিবার।

জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি রাণীনগর উপজেলার মধুপুর গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে ফিরোজ হোসেন পাশের ভান্ডারপুর গ্রামের ভুক্তভোগীকে বিয়ে করেন। বিয়ের দিন জামাইকে চুক্তি অনুযায়ী ব্যবসা করার জন্য ১ লাখ টাকা যৌতুক হিসেবে দেন ভুক্তভোগীর বাবা।

কিছুদিন পর থেকেই ফিরোজ হোসেন আরো ১ লাখ টাকা এনে দেয়ার জন্য তার স্ত্রীকে চাপ দিতে থাকেন। স্ত্রী দাবি মেনে না নেওয়ায় স্বামী ও স্বামীর পরিবারের লোকজন তার উপর নির্যাতন শুরু করে। এক পর্যায়ে গত ২২ ফেব্রুয়ারি স্বামী ফিরোজ হোসেনের সঙ্গে ভুক্তভোগী গৃহবধূর চরম বাকবিতন্ডা হয়। পরে স্বামীর পরিবারের কয়েকজন গৃহবধূর ওপর নির্যাতন করে।

নির্যাতনকারীদের নির্যাতনে গৃহবধূ অজ্ঞান হয়ে পরে। এ সময় প্রকাশ্যে স্বামী ফিরোজ হোসেনসহ অন্যরা কেঁচি দিয়ে গৃহবধূর চুল কেটে দেয় এবং পরে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। তিনি এখন দরিদ্র বাবার বাড়িতে বসবাস করছেন।

নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ জানান, ঘটনার পরদিন সকালে রাণীনগর থানায় মামলা করতে গেলে থানা পুলিশ মামলা বা অভিযোগ নেয়নি। পরে নিরুপায় হয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারি নওগাঁর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইবুনাল আদালত-১ এ মামলা দায়ের করি।

গৃহবধূর বাবা হোসেন আলী বলেন, মামলা দায়ের করা হলেও আসামি গ্রেপ্তার করা হয়নি। দোষীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করছি।

এ বিষয়ে রাণীনগর থানার ওসি শাহিন আকন্দ বলেন, গৃহবধূ হাসিনা বা তার পরিবারের কেউ থানায় অভিযোগ নিয়ে আসেনি। আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী মঙ্গলবার থানায় মামলা রের্কড করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

রি-এসকেপি/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়