ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের জিততে প্রয়োজন ২৩০ রান

আগের সংবাদ

মাথায় টাক পড়তে শুরু করেছে, জেনে নিন মুক্তির উপায়!

পরের সংবাদ

কিয়েভের শপিংমলে রকেট হামলা

প্রকাশিত: মার্চ ২২, ২০২২ , ১১:১২ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মার্চ ২২, ২০২২ , ১১:১২ পূর্বাহ্ণ

কিয়েভের শপিংমলে রকেট হামলা করেছে রুশ সেনা। দেশটি দাবি করেছে, ওই শপিংমলে রকেট মজুত করেছে ইউক্রেন।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইগর কোনাশেঙ্কোভ জানান, এ শপিংমলে রকেট মজুত করে রাখা হচ্ছিল। এর পাশে রকেট লঞ্চারও তৈরি করা হয়েছিল। তাই গোটা এলাকাকে সে জন্য ধ্বংস করা হয়েছে। খবর ডয়চে ভেলের।

ইউক্রেন অবশ্য এ দাবি অস্বীকার করেছে। তারা বলেছে, এ শপিংমল শুধু আশ্রয় শিবির হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছিল। রাশিয়ার আক্রমণে অন্তত আটজন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে।

রুশ সেনার মৃত্যু

রাশিয়ার একটি সংবাদপত্র ইউক্রেন যুদ্ধে রাশিয়ার সেনার মৃত্যুর সংখ্যা প্রকাশ করে দিয়েছিল। তার কিছুক্ষণ পরই তা মুছে দেয়া হয়। কমসোমোলসকায়া প্রাভদা এক প্রতিবেদনে জানায়, তিন সপ্তাহ ধরে লড়াইয়ের পর প্রায় ১০ হাজার রুশ সেনার মৃত্যু হয়েছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কে উদ্ধৃত করে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছিল। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই তা ডিলিট করে দেয়া হয়।

এর আগে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি দাবি করেছিলেন, অন্তত ১৪ হাজার রুশ সেনার মৃত্যু হয়েছে। আফগানিস্তান যুদ্ধে ৯ বছরে ১৫ হাজার রুশ সেনার মৃত্যু হয়েছিল। সেখানে ইউক্রেনে মাত্র তিন সপ্তাহে ১০ হাজার রুশ সেনার মৃত্যু গুরুত্বপূর্ণ। তবে রাশিয়ার সরকারি সূত্র দাবি করছে, এখন পর্যন্ত ৪৯৮ রুশ সেনার নিহত হয়েছেন।

জেলেনস্কির আর্জি

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি ফের একবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে বৈঠকে বসার আর্জি জানিয়েছেন। জেলেনস্কির বক্তব্য, যেকোনো ফর্মে বৈঠক করতেই তিনি প্রস্তুত। বৈঠক না হলে বোঝা যাবে না, যুদ্ধ বন্ধের জন্য রাশিয়া কী পদক্ষেপ নিতে চায়।

তবে একই সঙ্গে জেলেনস্কি স্পষ্ট করে দিয়েছেন, কোনোভাবেই পুতিনের শর্ত মেনে ইউক্রেন আত্মসমর্পণ করবে না। জেলেনস্কির বক্তব্য, রাশিয়া চাইছে কিয়েভ, খারকিভ ও মারিউপলের যোদ্ধারা আত্মসমর্পণ করুক। কিন্তু রাশিয়ার দাবির সামনে আমরা মাথানত করবো না।

চীনের বিরুদ্ধে সরব

আবারও চীনের বিরুদ্ধে সরব হলো যুক্তরাষ্ট্র। জার্মানিতে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেছেন, ইউক্রেন হামলায় রাশিয়াকে সাহায্য করছে চীন। চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং আগে বলেছিলেন, এ লড়াইয়ে তিনি নিরপেক্ষ ভূমিকা নিয়েছেন। কিন্তু রাশিয়ার দাবি, ভেতরে ভেতরে অস্ত্র দিয়ে রাশিয়াকে সাহায্য করছে চীন। এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্টও এ অভিযোগ করেছিলেন।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়