মানুষ আধাপেটা খেয়ে জীবন যাপন করছে: রিজভী

আগের সংবাদ

কিয়েভ দখলের দ্বারপ্রান্তে রাশিয়া

পরের সংবাদ

গাজীপুরে ফেসবুক স্ট্যাটাস নিয়ে সংঘর্ষে ৩ তরুণ নিহত

প্রকাশিত: মার্চ ১৩, ২০২২ , ১:৪৭ অপরাহ্ণ আপডেট: মার্চ ১৩, ২০২২ , ১:৫৯ অপরাহ্ণ

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় দুই পরিবারে মধ্যে ফেসবুকে এক নারীকে নিয়ে ‘আপত্তিকর’ স্ট্যাটাস দেয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ৩ তরুণ নিহত হয়েছেন। আজ রবিবার (১৩ মার্চ) সকালে উপজেলার সনমানিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ৩ তরুণের পরিচয় ওই ইউনিয়নের দক্ষিণগাঁও গ্রামের মৃত আলম হোসেনের ছেলে নাঈম (১৮), আলম মিয়ার ছেলে ফারুক (২৬) ও হিরণ মিয়ার ছেলে রবিন (১৫)।

সংঘর্ষে ছুরি ও দেশিয় অস্ত্রের এলোপাতারি আঘাতে উভয় পক্ষের অন্তত ৭-৮ জন গুরুতর আহত হয়। আহতদের নরসিংদী মনোহরদী হাসপাতালে নেয়া হয়। আহতরা হলেন- দক্ষিণগাঁও গ্রামের নয়ন সরকারের ছেলে রাব্বি (১৪), মির্জা নগর গ্রামের ইসমাইলের ছেলে হৃদয় (১৪), মামুর্দি গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে ফাহিম ও চর আলী নগর গ্রামের জাহিদ হোসেন (২৮)। এছাড়া অন্য আহতদের কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, এক নারীকে নিয়ে ফেসবুকে ব্যাঙ্গাত্মক একটি স্ট্যাটাস দেয়াকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের মধ্যে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। এতে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে নাঈম, ফারুক ও রবিন গুরুতর আহত হন। তাদের উদ্ধার করে পাশের নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে নাঈম ও ফারুককে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। অন্যদিকে রবিনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কাপাসিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম বলেন, এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মনোহরদীর কোচেরচর এলাকার মোস্তফার ছেলে বেলায়েত (২৩) ও দৌলতপুর এলাকার রফিক মিয়ার ছেলে ফয়সালকে আটক করেছে। ঘটনা তদন্ত করা হচ্ছে।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়