আগুন সন্ত্রাস বিএনপির একমাত্র শক্তি: বাহাউদ্দিন নাছিম

আগের সংবাদ

রাশিয়ায় ‍যুদ্ধবিরোধী বিক্ষোভে আটক এক হাজারের বেশি

পরের সংবাদ

প্রথম দিন শেষে স্বস্তিতে প্রোটিয়ারা

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২ , ১১:৪৫ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২ , ১১:৪৫ অপরাহ্ণ

ক্রাইস্টচার্চে শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে মাঠে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম টেস্টে লজ্জার রেকর্ড গড়ে হারের কথা মাথায় রেখেই মাঠে নেমেছে প্রোটিয়ারা। তবে এবার আর ভুল করেনি তারা। ভালোভাবেই সামলে নিয়েছে প্রথম দিনের খেলা। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে দ্বিতীয় টেস্টে খেলতে নেমেই শতক হাঁকান ওপেনার সারেল এরউই। টেস্টে এটিই তার প্রথম তিন অঙ্কের রান। তার শতকের সুবাদেই ৩ উইকেট হারিয়ে ২৮৩ রানে প্রথম দিন শেষ করেছে প্রোটিয়ারা। টেম্বা বাভুমা ২২ এবং ফন ডার ডুসেন ১৩ রানে অপরাজিত থেকে শেষ করেছেন প্রথম দিনের খেলা।

ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলিতে টসে জিতে শুরুতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ডিন এলগার। নিউজিল্যান্ডে খেলতে গিয়ে সর্বশেষ ৪৫ টেস্টের মধ্যে টসে জিতে চতুর্থবার কোনো দল আগে ব্যাটিং করার সাহস দেখাল। শুরুতে ব্যাট করতে নেমে আগের ম্যাচের কথা ভালোভাবেই স্মরণে রেখেছিলেন দুই ওপেনার ডিন এলগার ও সারেল এরউই। তারা দেখেশুনে খেলতে থাকেন কিউই পেসারদের। আগের দিনের মতো শুরুতেই বিধ্বংসী হয়ে উঠতে পারেননি ম্যাট হেনরি ও টিম সাউদি। বলে গতি ও সুইং থাকলেও প্রোটিয়া ব্যাটাররা তা সামলেছেন দারুণভাবে। প্রথম দশ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়ে করেন ১৮ রান। কোনো উইকেট না হারিয়েই মধ্যাহ্ন বিরতিতেও যায় প্রোটিয়ারা। সর্বশেষ ১১ টেস্টের মধ্যে এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো এ মাঠ থেকে কোনো দল বিনা উইকেটে মধ্যাহ্ন বিরতিতে গেল। গত টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৯৫ রানে অলআউট হওয়া দল দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে উদ্বোধনী জুটি থেকেই শতরানের দেখা পায়। ৩৭তম ওভারের দ্বিতীয় বলে দলীয় ১১১ রানে এসে এলগার-এরউইয়ের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন টিম সাউদি। ১০১ বলে ৩ চারে ৪১ রান করে সাউদির বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন প্রোটিয়া অধিনায়ক এলগার। কিন্তু অন্য পাশে থাকা আরেক ওপেনার এরউই প্রায় ৫ ঘণ্টা উইকেটে থেকে ধৈর্য সহকারে সামলেছেন কিউই পেসারদের।

দ্বিতীয় উইকেটে মার্করামকে সঙ্গে নিয়ে গড়েছেন ৮৮ রানের জুটি। এরউই পেয়েছেন শতরানের দেখা। ৭০তম ওভারের শেষ বলে ড্যারেল মিচেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন মার্করাম। ওয়াগনারের বলে আউট হওয়া এ প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান ১০৩ বলে ৮ চারে ৪২ রান করেন। পরের ওভারের দ্বিতীয় বলে টম ব্ল্যান্ডেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন এরউই। দলীয় ১৯৯ রানেই ম্যাট হেনরির বলে এরউই সাজঘরে ফিরলে স্বস্তির দেখা মেলে নিউজিল্যান্ড দলে। নিউজিল্যান্ডের হয়ে সাউদি, হেনরি ও ওয়াগনার একটি করে উইকেট পেয়েছেন।

৩২ বছর বয়সী বাঁহাতি ওপেনার সারেল এরউই খেলতে নেমেছিলেন তার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট। এর আগে অভিষেক টেস্টের দুই ইনিংসে ১০ ও শূন্য রান করে ফিরেছিলেন সাজঘরে। দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসেই ২২১ বলে ১৪ চারে খেলেছেন ১০৮ রানের ইনিংস। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ৯৬ ম্যাচ খেললেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এটি তার দ্বিতীয় ম্যাচ। দ্বিতীয় ম্যাচে এসেই দেখা পেলেন প্রথম শতকের।

ক্রাইস্টচার্চে প্রোটিয়ারা ইনিংস ও ২৭৬ রানে হারলে প্রথম টেস্ট শেষ হয়েছিল মাত্র তিন দিনের মধ্যেই। প্রথম ইনিংসে ৯৫ রানে অলআউট হয়ে লজ্জার রেকর্ড গড়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে করতে পেরেছিল মাত্র ১১১ রান। সে হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটাররা কৌশল ও ধৈর্যের পরিচয় দিয়ে আজ পুরো দিন খেলেছেন। কিউই পেসাররা ৩১ ওভার পেয়েছেন মেডেন। এরউইয়ের শতকের সুবাদে মাত্র তিন উইকেট হারিয়েই ২৩৮ রান তুলে শেষ করে প্রথম দিন। দিন শেষে টেম্বা বাভুমা ২২ এবং ফন ডার ডুসেন ১৩ রানে অপরাজিত আছেন।

রি-এসএস/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়