ভাষা শহীদ বরকতের বাড়ি সংস্কার করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা

আগের সংবাদ

যশের সঙ্গে 'রকস্টার' লুকে নুসরাত ফারিয়া

পরের সংবাদ

মিজান-বাছিরের মামলার রায় বুধবার

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২ , ৫:২৮ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২ , ৫:২৯ অপরাহ্ণ

ঘুষ কেলেঙ্কারির অভিযোগে পুলিশে বরখাস্ত উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমান ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে মামলার রায় ঘোষণার জন্য আগামীকাল বুধবার দিন ধার্য করা হয়েছে। ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম মামলাটির রায় ঘোষণা করবেন।

এরআগে গত ১০ ফেব্রুয়ারি মামলাটির রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামি পক্ষের সকল যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায়ের তারিখ ঠিক করেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল দাবি করেছেন, আসামিদের বিরুদ্ধে সকল সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। আসামি ডিআইডি মিজান বাধ্য হয়ে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ দিয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন। তাই আসামিদের যেন সর্বোচ্চ শাস্তি হয় সেই প্রত্যাশা করেছেন তারা।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ২৪ জুন সম্পদের তথ্য গোপন ও অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মিজানুরের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করে দুদক। সেটির অনুসন্ধান কর্মকর্তা ছিলেন দুদকের পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছির। এ অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ থেকে রেহাই দিতে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ নেন বাছির।

এ অভিযোগে ২০১৯ সালের ১৬ জুলাই মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এ মামলাটি করেন দুদকের পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্লাহ। ঘুষ কেলেঙ্কারির অভিযোগ ওঠার পর তাদের দুইজনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

এ মামলায় পরের বছর ২০২০ সালের ১৯ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েসের আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার বাদী ও তদন্ত কর্মকর্তা ফানাফিল্লাহ। এরপর ৯ ফেব্রুয়ারি আসামিদের উপস্থিতিতে এ চার্জশিট গ্রহণ করা হয়। ৪ মার্চ দুদকের পক্ষে অভিযোগ গঠন শুনানি শেষ হয়। পরে ১৮ মার্চ ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে মামলার আনুষ্ঠানিক বিচারকাজ শুরু করেন। এ মামলায় ১৭ সাক্ষীর মধ্যে ১২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে।

রি-আরএ/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়