কলাগাছের তৈরি শহীদ মিনারে শিশুদের ভালোবাসা

আগের সংবাদ

শহীদ মিনারে মানুষের ঢল

পরের সংবাদ

দুই বছর পর সীমান্ত খুলে দিল অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২২ , ১২:৩৮ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২২ , ১২:৩৮ অপরাহ্ণ

প্রায় দুই বছর পর সীমান্ত খুলে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালের মার্চ মাসে দেশটি সীমান্ত বন্ধ করে দেয়। সেখানে গত দু বছর ধরে করোনা মোকাবেলায় কঠিন সব পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

গত বছরের শেষ দিকে বিদেশে অবস্থানরত অস্ট্রেলিয়ানরা দেশে ফেরার অনুমতি পেয়েছিলেন। তবে বিদেশি পর্যটক কিংবা ভ্রমণকারীদের জন্য সীমান্ত বন্ধই ছিল। অবশেষে সেই কড়াকড়িও তুলে নিল দেশটি। খবর বিবিসির।

সীমান্ত খুলে দেয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার বিমানবন্দরগুলোতে আবেগময় দৃশ্যের অবতারণা হয়। বিদেশে থাকা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে বহুদিন পর দেখা হওয়ায় আনন্দে কান্না থামিয়ে রাখতে পারেনি অনেকেই। শার্লট নামের এক শিশু তার দাদাকে পেয়ে জড়িয়ে ধরে রাখে।

সে জানায়, আমি আমার দাদাকে অনেক মিস করছিলাম। আমি সবসময় এই দিনটির জন্য অপেক্ষা করেছি।

অস্ট্রেলিয়ার নতুন নিয়ম অনুযায়ী, দুই ডোজ টিকা গ্রহণ করলেই তাকে আর কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে না। তবে যারা টিকা নেননি তাদেরকে নিজ খরচে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। সোমবারই দেশটিতে ৫০টিরও বেশি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট অবতরণ করবে। ভ্রমণকারীরা পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া বাদে সকল প্রদেশে যেতে পারবেন। পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া আগামি মাসের প্রথম সপ্তাহে খুলে দেয়া হবে এবং সেখানে প্রবেশ করতে টিকার বুস্টার ডোজ গ্রহণ করতে হবে।

আশা করা হচ্ছে, সীমান্ত খুলে দেয়ায় পর্যটকদের ঢল নামবে অস্ট্রেলিয়ায়। ২০১৯ সালে দেশটিতে ৯ কোটি ৫০ লাখ পর্যটক সফর করেছিল। কিন্তু আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় এই খাত পুরোপুরি ভেঙে পরেছে। এত কিছু করার পরও করোনার তাণ্ডব থেকে পুরোপুরি বাঁচতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। দেশটিতে করোনায় গত দুই বছরে ৪ হাজার ৯০০ মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

টিআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়