ইসির জন্য পাঁচ নাম প্রস্তাব বি চৌধুরীর

আগের সংবাদ

মঞ্চস্থ হলো স্বপ্নদলের ‘হেলেন কেলার’

পরের সংবাদ

সাকিবের ব্যাটিং ঝড়ে শীর্ষে বরিশাল

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২২ , ১০:২৩ অপরাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২২ , ১০:২৩ অপরাহ্ণ

জমে ওঠেছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হয় ঢাকা-বরিশাল। এদিন টস জিতে ব্যাটিং নিয়ে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৮ রান করে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বাহিনী। জবাবে সাকিবের হাফসেঞ্চুরিতে ভর করে ৮ উইকেটে ও ২৭ বল বাকি রেখে জিতেছে বরিশাল। তবে এই হারে প্লে-অফে যাওয়া নিয়ে সংশয়ে পড়েছে মিনিস্টার ঢাকা। এমনকি ৫১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলার সুবাদে ম্যাচ সেরা পুরস্কার জিতেছেন সাকিব আল হাসান।

এছাড়া ফরচুন বরিশাল প্লে-অফ নিশ্চিত করেছে আগেই, এমনকি প্রথম কোয়ালিফায়ারও নিশ্চিত দলটির। এই জয়ে ফের দলটি উঠেছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। অন্যদিকে ১০ ম্যাচ শেষে মিনিস্টার ঢাকার পয়েন্ট ৯। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ও খুলনা টাইগার্সের অন্তত যেকোনো এক দল নিজেদের শেষ ম্যাচে হারলে শেষ চারে যাওয়া হবে ঢাকার।

হোম অব ক্রিকেট মিরপুরে জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে মুনিম শাহরিয়ারের ব্যাটে আবারও ঝড়ো শুরু পায় বরিশাল। মুনিম তিনটি করে চার-ছক্কা হাঁকিয়ে ২৫ বলে ৩৭ রান করে ফেরেন সাজঘরে। আরেক ওপেনার ক্রিস গেইল ১১ বলে করেন ৭ রান। তাদের বিদায়ের পর নাজমুল হোসেন শান্তকে সঙ্গী হিসেবে রেখে অধিনায়ক সাকিব আল হাসান চালিয়ে যান মারকুটে ব্যাটিং। ২৯ বলে অর্ধশতক পূরণের পাশাপাশি ক্রিজে থেকেই নিশ্চিত করেন দলের জয়। ২৯ বলে ৫২ রানে অপরাজিত থাকার দিনে সাকিব হাঁকান ৬টি চার ও ২টি ছক্কা। ২৮ বলে ২৮ রান করে অপরাজিত থাকেন শান্ত।

এদিন ব্যাট হাতে শুরুতেই ঝড় তোলেন ঢাকার তামিম। তিনি ৯ চার ও ১ ছয়ে ৫০ বলে সর্বোচ্চ ৬৬ রান করেন। ৪৮ বলে ৮ চারে এই বাঁহাতি ওপেনার দেখা পেয়েছিলেন ফিফটির। ২৭ বল খেলে ২১ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন শুভাগত হোম। এছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘরে পৌছাতে পারেনি।

সিঙ্গেলস-ডাবলসের সঙ্গে বাউন্ডারি মেরে রানের চাকা সচল রেখেছিলেন তামিম। কিন্তু সঙ্গে কাউকে পাননি হাল ধরার মতো। সে জন্য চ্যালেঞ্জিং রানের লক্ষ্যও দিতে পারেনি উড়তে থাকা সাকিবের দলকে।

নিজের জায়গায় ওপেনিংয়ে নেমে মোহাম্মদ নাঈম এদিনও ব্যর্থ। নিজেকে হারিয়ে যেন খুঁজছেন তিনি। রান খরায় আগের ম্যাচে বাদও পড়েছিলেন। এই ম্যাচে ফিরে আউট হন ৯ বলে ৬ রান করে। বিপিএলে ৭ ম্যাচ খেলে তার ব্যাট থেকে আসে মোট ৫০ রান। নাঈমের মতো জহুরুল ইসলাম (২), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৩) ও শামসুর রহমান ফেরেন দুই অঙ্কের ঘর ছোঁয়ার আগেই। একই হাল আজমতুল্লাহ ওমরজাই-কাইস আহমেদদেরও।

বরিশালের হয়ে বল হাতে ২টি করে উইকেট নেন শফিকুল ইসলাম, ডোয়াইন ব্রাভো ও মেহেদি হাসান রানা।

রি-কেই/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়