বিধিনিষেধ শিথিলের ইঙ্গিত! সতর্কতার বিকল্প নেই বলছেন বিশেষজ্ঞরা

আগের সংবাদ

নাচের জন্য ঐশ্বরিয়াকে ১০ কোটি টাকা দিয়েছিলেন জারদারি!

পরের সংবাদ

লতা মঙ্গেশকরের প্রতি শাহরুখের শেষ শ্রদ্ধা, চলছে তুমুল বিতর্ক!

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২২ , ৯:০৮ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২২ , ১০:০৮ পূর্বাহ্ণ

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক অনুপম উদাহরণ দেখা গেছে লতা মঙ্গেশকরের প্রতি শাহরুখ খান ও তার সহকারীর শেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের চিত্রে। মানবতার চিত্রে এটি একটি পরম মমতামাখা শ্রদ্ধাঞ্জলি হতে পারতো, কিন্তু ভিন্ন বিশ্বাসের প্রতি সংকীর্ণ দৃষ্টিভঙ্গির কারণে এটিও হয়ে গেছে বিতর্কের বিষয়।

তাই তো শুরু হয়েছে বিতর্ক, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায় রবিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) শাহরুখ খান লতা মঙ্গেশকরের মরদেহের সামনে দাঁড়িয়ে মুসলিমদের মতো দুই হাত তুলে দোয়া পড়ছেন আর পাশে তার ম্যানেজার পূজা দাদলানি দুই হাত জোড় করে দাঁড়িয়ে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন।

বিবিসিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঐ ভিডিও ফুটেজ নিয়ে বিতর্ক শুরু করেন ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অরুণ যাদব। লতা মঙ্গেশকরের মরদেহের সামনে দাঁড়িয়ে দুই হাত তুলে শাহরুখের দোয়া পড়ার পর ফুঁ দেয়ার ভিডিও টুইট করে তিনি প্রশ্ন তোলেন – শাহরুখ কি মরদেহে থুতু ছুঁড়ছেন? সে সময় তার মুখে মাস্ক ছিল। দোয়া শেষ করে শাহরুখ মাস্ক নিচু করে বাতাসে ফুঁ দেন। তারপর তিনি এবং পূজা মরদেহের চারদিকে পাক খান। অনেকে এখন প্রশ্ন তুলছেন মাস্ক সরিয়ে শাহরুখ কি করেছিলেন। শাহরুখ মাস্ক নামিয়ে দু’টি ঠোঁট সরু করে বিশেষ ভঙ্গিমা করেন। সে মুখভঙ্গি নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

তবে যাদব প্রথম এই বিতর্ক শুরু করেন কিনা তা নিশ্চিত নয়। তবে বিজেপি নেতার এই টুইট অনেকে শেয়ার করেন। অনেক মানুষ নিজেরাও সোশ্যাল মিডিয়ায় শাহরুখকে নিয়ে একই ধরণের প্রশ্ন তোলেন।

উত্তর প্রদেশ রাজ্যে বিজেপির একজন মুখপাত্র প্রশান্ত উমরাও একই ছবি ও ভিডিও টুইট করে অভিযোগ করেন – লতাজির মরদেহে থুতু মারছেন শাহরুখ।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই অভিযোগ আর বিতর্কের তীব্র নিন্দা করেও অনেকে পোস্ট দিচ্ছেন। তারা বলছেন থুতু নয়, শাহরুখ তার ধর্মমতে দোয়া পড়ে ফুঁ দিচ্ছেন।

চলচ্চিত্র প্রয়োজক এবং পরিচালক অশোক পণ্ডিত টুইটারে লেখেন, প্রান্তিক যেসব লোক শাহরুখ খানের বিরুদ্ধে লতাজির শেষকৃত্যে থুতু দেয়ার মিথ্যা অভিযোগ তুলছে তাদের লজ্জা পাওয়া উচিত। থুতু নয় লতাজির আত্মার শান্তির জন্য দোয়া পড়ে শাহরুখ ফুঁ দিয়েছেন। এই ধরণের জঘন্য সাম্প্রদায়িতার কোনো স্থান আমাদের দেশে নেই।

শিল্পপতি জাফর সারেশওয়ালা, যিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত, শাহরুখের পক্ষ নিয়ে টুইট করেছেন। তিনি লিখেছেন, যে দৃশ্য ভারতের ঐক্য তৈরিতে সাহায্য করতে পারে তাকেও কিছু গোঁড়া ধর্মান্ধ সহ্য করতে পারছে না। লতা মঙ্গেশকর এমন এক মানুষ ছিলেন যিনি মৃত্যুর পরও মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করছেন। শাহরুখ খান এমন একজন মানুষ যিনি ভালোবাসা ছড়িয়ে দেন।

মুসলিম ধর্মীয় নেতা শামসুদ্দিন তামবোলি বলেন, ইসলামে এটি একটি প্রচলিত বিষয়। শাহরুখ খান তার ধর্মমতে প্রার্থনা করেছেন। মানুষ আল্লাহর কাছে দোয়া করে যে মৃত ব্যক্তি যেন জান্নাতে যায় এবং তার পরকালে যেন শান্তি হয়। শাহরুখ সেই দোয়াই করেছেন। ফুঁ দিয়ে মানুষ তার মনের ইচ্ছা ছড়িয়ে দেন। এটি ধর্মের প্রচলিত বিধান।

তামবোলি বলেন, অনেক গোঁড়া মুসলিম বলেন একজন অমুসলিমের জন্য এমনভাবে দোয়া করা না-জায়েজ। কিন্তু উদারপন্থী মুসলমানরা তা মানেন না। শাহরুখ যা করেছেন তা মানবিক আচরণ। এর উল্টো মানে করা অন্যায়। তিনি থুতু দিয়েছেন- এমন কথা তুলে মুসলিমদের বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃত-ভাবে দুর্নাম ছাড়ানো হচ্ছে।

অল্ট নিউজ নামে যে মিডিয়া সোশ্যাল মিডিয়া প্রচারিত খবরের সত্যতা যাচাই করে তার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ জুবাইর বলছেন – মুসলিমদের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যমুলকভাবে মিথ্যা অভিযোগ ছড়ানোর এমন আরো অনেক ঘটনা অতীতে ঘটেছে। ২০২০ সালের মার্চে মানুষের উপর থুতু দেয়ার জন্য তাবলীগ জামাতকে অভিযুক্ত করার ঘটনা উল্লেখ করেন তিনি।

যাই হোক, প্রকৃত সত্য হচ্ছে শাহরুখ মূলত মাস্ক নামিয়ে ফুঁ দিয়েছিলেন। থুতু ছেটাননি।

যদিও আক্রমণকারীরা এসব ব্যাখ্যার ধার না ধেরে প্রকৃত বিষয়টি না জেনেই শাহরুখ খানকে আক্রমণ করে গিয়েছেন। বিস্মিত শাহরুখ ভক্তদের জবাব, এমন পবিত্র বিষয়কেও এমন খাটো করে দেখা যায়!

এদিকে লতা মঙ্গেশকরের শেষকৃত্যে শাহরুখের সঙ্গের নারীকে নিয়েও অনেক জল্পনা হয়েছে। অনেকে মনে করেছিলেন ঐ নারী শাহরুখের স্ত্রী গৌরি। তারা ভেবেছিলেন যেহেতু শাহরুখ একজন মুসলিম এবং তার স্ত্রী হিন্দু – তাই তারা হয়ত নিজেদের ধর্ম বিশ্বাস অনুযায়ী প্রার্থনা করছেন।

কিন্তু আসলে শাহরুখের পাশের নারী তার স্ত্রী গৌরি নন। তিনি হলেন এই বলিউড তারকার ম্যানেজার পূজা দাদলানি।

টিআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়