ভারতীয় নারীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক, কূটনীতিক প্রত্যাহার

আগের সংবাদ

অবৈধ পথে ভয়ংকর যাত্রা বন্ধ করুন

পরের সংবাদ

অনশন ভাঙার পর অবরোধও প্রত্যাহার করলেন শাবির শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৬, ২০২২ , ১১:৩৩ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২৭, ২০২২ , ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলন শিক্ষার্থীরা অনশন ভাঙার পর এখন অবরোধও প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন। তবে ভিসি পদত্যাগ না করা পর্যন্ত তাদের আন্দোলন চলবে। বুধবার রাত পৌনে ১০টার দিকে ক্যাম্পাসে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে তারা এই ঘোষণা দেন।

এর আগে, বুধবার সকালে তারা দেশ বরেণ্য লেখক ও বুদ্ধিজীবী অধ্যাপক জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী ইয়াসমিন হকের মাধ্যমে দাবির পূরণের আশ্বাসে অনশন ভাঙেন।

বুধবার রাত ৯টার দিকে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সঙ্গে ভার্চুয়ালি আলোচনায় যুক্ত হয়েছিলেন। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি বিল্ডিংয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে মিলিত হন আন্দোলনকারীরা। সেখানে ব্যাপক আলাপ আলোচনা শেষে তারা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন যে, উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদ পদত্যাগ না করা পর্যন্ত তারা তাদের আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। তবে তার রূপ পরিবর্তন হবে।

তা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে তারা বলেন, ভিসির বাসভবনের সামনে এবং মূল ফটক থেকে তারা অবরোধ প্রত্যাহার করে নিবেন। তবে ক্যাম্পাসে প্রতিবাদ সভা সমাবেশ এবং মিছিল চলবে প্রতিদিন। পাশাপাশি সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে তারা তাদের প্রতিবাদ অব্যাহত রাখবেন। সেজন্য বিশ্ববিদ্যালয় গোলচত্বরে তারা একটি মঞ্চও তৈরি করেছেন।

প্রেস ব্রিফিংয়ে তারা জানান, ইতিমধ্যে তাদের ৫ দফা দাবির তৃতীয়টি মানে, গ্রেপ্তারকৃত অর্থদাতা পাঁচ সাবেক শিক্ষার্থীকে জামিনে মুক্তি দেয়া হয়েছে। অন্যান্য দাবিগুলোও একের পর এক পূরণের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে তারা বৃহস্পতিবার থেকে অবরোধ প্রত্যাহার করবেন।

গত ১৩ জানুয়ারি শাবির বেগম সিরাজুন্নেসা হলের শিক্ষার্থীরা তিনদফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করে। শনিবার তাদের আন্দোলনে ছাত্রলীগ হামলা চালায় বলে তারা অভিযোগ করেন। পরদিন রবিবার ক্যাম্পাসে উপাচার্যকে তারা অবরোধ করে রাখলে প্রবেশ করে লাঠি চার্জ, সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ এবং টিয়ালশেল ছোঁড়ে। এরপরই আন্দোলন মোড় পাল্টায়। পরিণত হয় ভিসির পদত্যাগের এক দফা দাবিতে। বুধবার বিকেলে তারা অনশন শুরু করেন। এরপর শিক্ষামন্ত্রীসহ আওয়ামী লীগের প্রথম সারির নেতাদের উদ্যোগে বুধবার ভোরের দিকে সস্ত্রীক ক্যাম্পাসে আসেন ড. জাফর ইকবাল।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়