১৪ মাস পর এফডিসিতে দেখা মিললো চিত্র নায়িকা পপির

আগের সংবাদ

কাঞ্চন-নিপুণ পরিষদের ২২ দফা ইশতেহার ঘোষণা

পরের সংবাদ

ব্যবসার বড় প্রতিবন্ধকতা দুর্নীতি: সিপিডির জরিপ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৬, ২০২২ , ৪:৪০ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২৬, ২০২২ , ৪:৪০ অপরাহ্ণ

ব্যবসার ক্ষেত্রে বড় প্রতিবন্ধকতা দুর্নীতি এমন তথ্য উঠে এসেছে সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের (সিপিডি) জরিপে।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) রাজধানীতে সিপিডির নিজস্ব কার্যালয়ে আয়োজিত ‘বাংলাদেশ ব্যবসায় পরিবেশ ২০২১: উদ্যোক্তা জরিপের ফলাফল’ শীর্ষক প্রতিবেদন অনুষ্ঠানে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়। সিপিডির জরিপের ফল তুলে ধরেন প্রতিষ্ঠানটির গবেষণা পরিচালক গোলাম মোয়াজ্জেম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সিপিডির নির্বাহী পরিচালক ফাহমিদা খাতুন।

ব্যবসার ক্ষেত্রে দুর্নীতি বড় প্রতিবন্ধকতা বলে মনে করেন ৬৮ শতাংশ ব্যবসায়ী। দুর্নীতির পাশাপাশি ব্যবসায়ীদের মতে ব্যবসার আরও দুটি বড় প্রতিবন্ধকতা হলো অদক্ষ আমলাতন্ত্র ও ব্যবসায় অর্থায়নে সীমাবদ্ধতা।

সিপিডি গত বছরের এপ্রিল, জুন, জুলাই এই তিন মাসব্যাপী ঢাকা, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, ফরিদপুরের ৭৩টি প্রতিষ্ঠানের কর্তাব্যক্তিদের উপর এই জরিপ পরিচালনা করে। জরিপে অংশগ্রহণ করা ৬৭ শতাংশ ব্যবসায়ীরা মনে করেন, অদক্ষ আমলাতন্ত্র ব্যবসায়ের জন্য আরেকটি প্রতিবন্ধকতা। এছাড়া ৫৫ শতাংশ ব্যবসায়ী মনে করেন, অর্থায়নে সীমাবদ্ধতাও ব্যবসার জন্য আরেকটি বড় সমস্যা।

২০২০ সালেও ব্যবসার পরিবেশ নিয়ে জরিপ করেছিল সিপিডি। তখন ব্যবসা করার ক্ষেত্রে প্রধান বাধা হিসেবে উঠে এসেছিল অদক্ষ প্রশাসন। ওই সময় ব্যবসায়ীরা দুর্নীতিকে দ্বিতীয় ও অর্থায়নের সীমাবদ্ধতাকে তৃতীয় অবস্থানে রেখেছিলেন।

অনুষ্ঠানে গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ বছর ‘বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা সক্ষমতা রিপোর্ট ২০২১-২২’ প্রকাশিত হচ্ছে না। তাই আমরা ‘বাংলাদেশ ব্যবসায় পরিবেশ ২০২১: উদ্যোক্তা জরিপের ফলাফল’ শীর্ষক প্রতিবেদনটি প্রকাশ করছি। আমরা মূলত সব সেক্টরকে এই জরিপের আওতায় এনেছি। জরিপে অধিকাংশ ব্যবসায়ীরা বলেছেন, দুর্নীতি বড় প্রতিবন্ধকতা। ব্যবসায়ীদের ট্রেড লাইসেন্স, কর এবং বিভিন্ন পরিষেবার জন্য আর্থিক লেনদেন করতে হয়। টাকা পাওয়ার সুযোগ সীমিত থাকার কথা বলেছেন ৫৫ শতাংশ ব্যবসায়ী। এর পর আছে অপর্যাপ্ত অবকাঠামো, ঘন ঘন নীতি বদল ইত্যাদি।

সিপিডি ব্যবসায়ীদের মতামত বিশ্লেষণ করে দেখেছে এই দুর্নীতির কারণে ছোট ব্যবসায়ীরা সবচেয়ে বেশি ক্ষতির শিকার হয়েছেন। বড় ব্যবসায়ীদের কম ক্ষতিগ্রস্থ হতে হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা দেখছি অর্থনীতি পুনরুদ্ধার হচ্ছে। তবে তা সুষম গতিতে হচ্ছে না। অনেক ছোট ও মাঝারী ব্যবসায়ীরা এখনও তাদের আগের অবস্থানে ফিরে যেতে পারেননি। জরিপে অংশগ্রহণ করা ব্যবসায়ীদের ৪৫ শতাংশ মনে করেন, তাদের ক্ষতিপূরণ হতে তিন বছরেরও বেশি সময় লাগতে পারে। তবে তাদের মধ্যে ৮ শতাংশ মনে করেন, অবস্থা স্বাভাবিক থাকলে এক বছরের মধ্যে ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারবেন।

সিপিডির এই জরিপে ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যয় কমানোর চিত্র উঠে এসেছে। এদের মধ্যে ২৮ শতাংশ প্রতিষ্ঠান তাদের কর্মী ছাটাই করেছে। ২২ শতাংশ ব্যয় কমানোর ক্ষেত্রে নতুন বায়ারের সঙ্গে কাজ করেছে। ১৯ শতাংশ ব্যবসা সম্প্রসারণ করেছে এবং ১৬ শতাংশ নতুন বাজারে যুক্ত হয়েছে, ১৫ শতাংশ নতুন পণ্য উৎপাদনে গিয়েছে।

সামনের ১০ বছরে দেশে নতুন কী কী ব্যবসা উঠে আসবে জরিপে তারও একটি ধারণা উঠে এসেছে। ৬৭ শতাংশ ব্যবসায়ী বলেছেন, ডিজিটাল আর্থিক সেবা আরও বিকশিত হবে। দক্ষ মানবসম্পদ খাতকে দ্বিতীয় ও ডেটা ম্যানেজমেন্টকে তৃতীয় অবস্থানে রেখেছেন ব্যবসায়ীরা।

টিআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়