সারোগেসির মাধ্যমে মা হলেন প্রিয়াঙ্কা

আগের সংবাদ

আজকের সংবাদপত্র পর্যালোচনা

পরের সংবাদ

টেস্টের পর এবার ওয়ানডে সিরিজেও হারল ভারত

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২২, ২০২২ , ১০:৪১ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২২, ২০২২ , ১০:৪১ পূর্বাহ্ণ

এবার ওয়ানডে সিরিজেও দক্ষিণ আফ্রিকার কারছে হার মেনেছে ভারত। এরআগে, তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ২-১ জেতে দক্ষিণ আফ্রিকা।

শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) পার্লের বোল্যান্ড পার্কে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে ১১ বল বাকি থাকতেই ৭ উইকেটে টেম্বা বাভুমার দল জিতে যায়। খবর জি-নিউজের।

এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ ২-০ জিতে নেয় প্রোটিয়ারা। আগামী রবিবার কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই দল। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সিরিজের ফয়সলা হয়ে যাওয়ায় শেষ ম্যাচ হতে চলেছে কেবলই নিয়মরক্ষার। ভারতের সিনিয়র দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পর রাহুল দ্রাবিড়ের এটিই প্রথম বিদেশ সফর। তবে জয় না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়েই দ্রাবিড়কে ভারতে ফিরতে হচ্ছে!

ভারতের ২৮৭ রান তাড়া করতে নেমে প্রোটিয়া ওপেনার জেনম্যান মালান ও কুইন্টন ডি কক দুর্দান্ত মেজাজে শুরু করেন। প্রথম উইকেটেই তারা স্কোরবোর্ডে তুলে দেন ১৩২ রান। ডি কক ৬৬ বলে ৭৮ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলে শার্দূল ঠাকুরের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে যান। এরপর মালান ক্যাপ্টেন বাভুমার সঙ্গে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান। মালানকে ৯১ রানে থামান জসপ্রীত বুমরা। ১০৮ বলের ইনিংস খেলে বোল্ড হয়ে যান তিনি। মাত্র ৯ রানের জন্য সেঞ্চুরি মাঠে রেখে আসতে হয় তাকে। মালান যখন ফেরেন তখন প্রোটিয়াদের স্কোর ২১২। মোটামুটি তিনি আর ডি কক জয়ের মঞ্চটা গড়ে দিয়েই যান। এরপর বাভুমা ৩৬ বলে ৩৫ করে যুজবেন্দ্র চাহালের বলে তাঁর হাতেই ক্যাচ তুলে আউট হয়ে যান। তিনি ফেরার পর আইদেন মারক্রম ( ৪১ বলে ৩৭) ও রাসি ভ্যান ডার ডুসেন (৩৮ বলে ৩৭) অপরাজিত থেকে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ম্যাচ ও সিরিজ জিততে সহায়তা করেন।

শুক্রবার পার্লের বোল্যান্ড পার্কে টস জিতে প্রথম ব্যাট করে ভারত। নির্ধারিত ওভারে ৬ উইকেটে হারিয়ে তোলে ২৮৭। এদিন ব্যাট করতে নেমে ভারত ৬৪ রানের মধ্যে হারিয়ে ফেলে ২ উইকেট। কেএল রাহুলের সঙ্গে ওপনে করতে নেমে শিখর ধাওয়ান রীতিমতো সেট হয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু ৩৮ বলে ২৯ রানের ইনিংস খেলে মারক্রমের বলে মাগালার হাতে ক্যাচ তুলে দেন। এরপর রাহুলের হাত শক্ত করতে এসেছিলেন বিরাট কোহলি। কিন্তু সদ্যপ্রাক্তন ক্যাপ্টেন উইকেটটি ছুঁড়ে দিয়ে আসলেন, তা দেখে বিশ্বাস করতে কষ্ট হয় যে, তিনি ব্যাটিং মায়েস্ত্রো! মাত্র পাঁচ বল খেলে শূন্য রানে ফিরে এলেন কোহলি। বাঁ-হাতি স্পিনার কেশব মহারাজের সাদামাটা ডেলিভারি কভারে তুলে খেললেন কোহলি, একেবারে লোপ্পা ক্যাচ তুলে দিলেন প্রোটিয়া ক্যাপ্টেন টেম্বা বাভুমার হাতে।

ধাওয়ান-কোহলি ফেরার পর দলের হাল ধরেন ঋষভ পন্থ। রাহুলের সঙ্গে জুটি বেঁধে স্কোরবোর্ডে তোলেন আরও ১১৫ রান। এদিন চেনা মেজাজেই ব্যাট করলেন পন্থ। ৭১ বলে ঝোড়ো ৮৫ রানের ইনিংস খেলে আউট হলেন তিনি। ১০টি চার ও জোড়া ছক্কা হাঁকান পন্থ। পন্থ প্রোটিয়া স্পিনার তাবারেজ শামসির বলে ক্যাচ আউট হন। পন্থ ফেরার কিছুক্ষণের মধ্যেই সাজঘরে ফিরে যান শ্রেয়স আইয়ার (১৪ বলে ১১)। তিনিও শিকার হন শামসির। এলবিডব্লিউ হয়ে যান আইয়ার। এরপর রানের গতি বাড়ানোর কাজটা করেন ভেঙ্কটেশ আইয়ার। ৩৩ বলে ২২ রানের ইনিংস আসে তার ব্যাট থেকে। ভেঙ্কটেশ ফেরার পর শেষের দিকে ম্য়াচের রং বদলে দেন শার্দূল ঠাকুর (৩৮ বলে অপরাজিত ৪০) ও আর অশ্বিন (২৪ বলে অপরাজিত ২৫)।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়